1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

গঙ্গা নদীর দূষণ রোধের উদ্যোগ জার্মান পত্রিকায়

ভারতের বৃহত্তম নদী গঙ্গা ধর্মপ্রাণ মানুষদের কাছে পবিত্র৷ কিন্তু একই সাথে তা হয়ে উঠেছে দূষণ আর আবর্জনার আধার৷ এই নদী বাঁচাতে পরিবেশ সংগ্রামী বীর ভদ্র মিশ্র উদ্যোগী হয়েছেন৷ তারই বিশদ উল্লেখ জার্মানির বাম দৈনিক পত্রিকায়৷

default

গঙ্গা ধর্মপ্রাণদের কাছে পবিত্র

ভারত নতুন ধ্যানধারণা আর প্রচুর অর্থের সাহায্যে তার পবিত্রতম নদী গঙ্গার দূষণের মোকাবিলা করতে সচেষ্ট হয়েছে৷ এই চেষ্টার প্রেক্ষাপটে বেনারসের হনুমান মন্দিরের মুখ্য পুরোহিত ও পরিবেশ সংগ্রামী বীর ভদ্র মিশ্রের জৈব নিষ্কাশন প্রকল্পের বিস্তারিত উল্লেখ করেছেন নয়েস ডয়েচলান্ড পত্রিকার সংবাদদাতা হিলমার ক্যোয়েনিগ৷ মিশ্রের সঙ্গে দীর্ঘ সাক্ষাৎকারের ওপর নির্ভর করে লেখা এই নিবন্ধে তিনি লিখছেন:

‘‘গঙ্গা আজ রুগ্ন''- অনুযোগ ভরা কন্ঠে বলে ওঠেন বীর ভদ্র মিশ্র৷ পরিবেশ সংরক্ষণের ক্ষেত্রে যোগ্যতার পরিচয় রেখেছেন তিনি৷ তাঁর ‘সংকট মোচন' ফাউন্ডেশনের মাধ্য দিয়ে তিনি দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে পবিত্র বলে পরিচিত এই নদীকে আবর্জনা আর বিষাক্ত পদার্থের দূষণ থেকে মুক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন৷ আর এই কাজের জন্য তাঁর চেয়ে যোগ্যতর ব্যক্তি আর কেই বা হতে পারে৷ তিনি শুধু হনুমান মন্দিরের মুখ্য পুরোহিতই নন, পেশার দিক থেকে হাইড্রলিক ইন্জিনিয়ারও৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞদের সাহায্যে তাঁর ফাউন্ডেশন নদীতে কোন্ কোন্ পদার্থ এসে মিশছে তার বিশ্লেষণ করেছে৷ এবং এই নদীর জলে পাওয়া গেছে সায়ানাইড, আর্সেনিক, সীসা, দস্তা, ক্রোমিয়াম, পারদ, কলেরা আর টাইফয়েডের জীবাণু, মলমূত্র, মৃতদেহের অংশ এবং মরা পশুপাখি৷ প্রতিদিন গঙ্গা নদী দূষিত করছে ১.২ বিলিয়ন লিটার বর্জ্য পানি৷ তা আসছে ১১৪টি শহরের মূলত কলকারখানা আর মাত্রাধিক রাসায়নিকে ঠাসা কৃষিখাত থেকে৷

নিবন্ধকার ক্যোয়েনিগ গঙ্গা নদী রক্ষায় মিশ্রের কর্মকাণ্ডের উল্লেখ করে লিখছেন:

ধীরে ধীরে গঙ্গা শোধনে তাঁর পরিবেশবান্ধব ও জ্বালানি সাশ্রয়ী জৈবপ্রকল্প দৃষ্টি আকর্ষণ করছে৷ তিনি বলেন, মানুষকে অবশ্যই একথাটা বুঝতে হবে যে নদীর মৃত্যু হলে মানুষেরও মৃত্যু৷ তাঁর আশা ‘জয় গঙ্গা মাই কি' ডাকটা কোন একদিন সত্যিই পূর্ণতা পাবে৷

প্রতিবেদন: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়