1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

খেলা দেখুন, শুধু দেখেই থাকুন সুস্থ

এতদিন বলা হতো সুস্থ থাকতে হলে ব্যায়াম বা খেলাধুলা করতে হবে৷ দিন বোধহয় পাল্টে যাচ্ছে৷ বিজ্ঞানীরা বলছেন, নিজের খেলতে হবে না, অন্যের খেলা দেখলেও শরীর অনেকটা সুস্থ রাখা যাবে৷ সেটাও কী সম্ভব?

ব্যাপারটা অনেকটা অন্য কাউকে খেতে দেখেই ক্ষুধা মেটানোর মতো৷ একেবারে একরকম নিশ্চয়ই নয়, তবে কিছুটা মিল যে আছে তা তো মানতেই হবে৷ অস্ট্রেলিয়ার এক দল বিজ্ঞানী রীতিমতো গবেষণা করে দেখেছেন, খেলা দেখলে মানুষের হৃদস্পন্দন, ত্বকে রক্তের প্রবাহ, এমনকি ঘামও বাড়ে!

খুব গরম না পড়লে, পরিশ্রমও না করলে শরীরে ঘাম আসবে কী করে? এটা এখন পুরোনো প্রশ্ন৷ গত রোববার ‘ফ্রন্টিয়ার্স ইন অটোমেটিক নিউরোসায়েন্স' ম্যাগাজিনে প্রকাশিত প্রতিবেদন বলছে, তরতাজা কোনো ভিডিওতে কাউকে দৌড়াতে দেখলেও শরীরের বেশ উপকার হয়৷ বিজ্ঞানীরা একজন-দু'জন নয়, নয়জন স্বেচ্ছাসেবককে নিয়ে গবেষণা করে এমন প্রমাণই পেয়েছেন৷

নয়জনকে প্রথমে একটি স্থিরচিত্র দেখানো হয়৷ কম্পিউটারের মনিটরে সেই ছবি দেখার পর তাঁদের শরীরে কী প্রতিক্রিয়া হলো, তা পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে দেখেছেন বিজ্ঞানীরা৷ কোনো উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন ধরা পড়েনি৷ তারপর দেখানো হয় ২২ মিনিটের একটি ভিডিও৷ ভিডিওটিতে দেখা যায়, এক দৌড়বিদ খুব দ্রুত দৌড়াচ্ছেন৷ ব্যাস, দর্শকদের মনে দেখা দেয় উত্তেজনা, শরীরেও পড়তে থাকে তার প্রভাব৷ হৃদস্পন্দন এবং শ্বাস-প্রশ্বাস দ্রুততর হতে থাকে, প্রত্যেকের শরীরে এক সময় চিকচিক করতে থাকে ঘাম৷ এমন প্রতিক্রিয়া খালি চোখেও দেখা যায়৷ কিন্তু ত্বকে রক্তের প্রবাহ বাড়ার মতো অন্তর্গত পরিবর্তনগুলো তো এভাবে দেখা যায় না৷ বিজ্ঞানীরা সেসব দেখতে আগে থেকেই নয়জনের শরীরে ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন বিশেষ ধরণের সিরিঞ্জ৷ তার সহায়তায় স্নায়ুতে যেসব পরিবর্তন দেখা যায় সেগুলোর কারণেই বিজ্ঞানীরা বেশি অবাক৷ গবেষণায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা বিজ্ঞানী ভগান মেসফিল্ড বার্তা সংস্থা এএফপি-কে সে কথাই জানিয়েছেন৷

ইউনিভার্সিটি অফ ওয়েস্টার্ন সিডনির এই গবেষক বিস্ময়কর এক উদ্ভাবনের কথা জানাতে গিয়ে বলেছেন, ‘‘আমরা জানতে পেরেছি দৌড়ানোর সচল ছবি দেখলেও হৃদপিণ্ড এবং ত্বকে রক্তের প্রবাহ বাড়ে, ঘাম বাড়ে, শ্বাস-প্রশ্বাসও দ্রুত হয়৷'' এসব পরিবর্তন শরীর সুস্থ রাখতে সহায়তা করে৷ দৌড়াতে দেখলেই যেহেতু এমন উপকার হয়, শারীরিক পরিশ্রম বেশি হয় এমন খেলার ভিডিও দেখলেও তা হবে বলেই মনে করছেন বিজ্ঞানীরা৷

এসিবি/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন