1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

খাদ্য নিরাপত্তা হুমকির মুখে ৪০ লাখ মানুষ

চালের দাম বাড়ায় নিম্নবিত্ত এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত মানুষ খাদ্য নিরাপত্তার সংকটে পড়েছে৷ এজন্য ভিড় বাড়ছে ওএমএস-এর দোকানে৷ অর্থনীতিবিদরা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের খাদ্য কর্মসূচী অব্যাহত এবং টিসিবিকে সক্রিয় করার কথা বলেছেন৷

default

ফাইল ফটো

চালের মজুদ পর্যাপ্ত থাকলেও দাম বেড়ে যাওয়ায় দেশের ৪০ লাখ মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়েছে৷এই তথ্য জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা এফওএ'র৷ গত বছরে ৪০ লাখ টন খাদ্য আমদানির বিপরীতে এবার খাদ্য উৎপাদন বাড়তে পারে মাত্র ৩ শতাংশ৷ চালের দাম বাড়ার সাথে আয় তেমন না বাড়ায় নিম্নবিত্ততো বটেই অনেক মধ্যবিত্ত পরেছেন বিপাকে৷ তাই সরকারী উদ্যোগে ওএসএস বা খোলাবাজারে চাল কিনতে মধ্যবিত্তরাও লাইন দিচ্ছে৷ আর এই লাইন দীর্ঘ হচ্ছে দিন দিন৷

ইন্সটিটিউট অব গভর্নেন্স স্টাডিজ এর হিসেব মতে দেশের ৪০ শতাংশ মানুষ দারিদ্র্য সীমার নীচে বাস করে৷ পাঁচ কোটি ৮০ লাখ মানুষ জীবনধারণের মত খাদ্য কিনে খেতে পারেনা৷ এইসব মানুষের জন্য আমন ধান না ওঠা পর্যন্ত সরকারের খাদ্য কর্মসূচী অব্যাহত রাখার পরামর্শ দিয়েছেন অর্থনীতিবিদরা৷ অর্থনীতিবিদ খন্দকার ইব্রাহীম খালেদ বলেন, এজন্য সরকারের ভোগ্যপণ্য ক্রয় প্রতিষ্ঠান টিসিবিকে সক্রিয় করতে হবে৷

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার মতে সুস্থ থাকতে হলে একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষকে প্রতিদিন ২১২২ ক্যালরি খাদ্য গ্রহন করতে হয়৷ কিন্তু এই ন্যুনতম ক্যালরি পায়না ছয় কোটি ১৮ লাখ মানুষ৷ এমনকি এক হাজার ক্যালরি পায়না এমন মানুষের সংখ্যা তিন কোটি ১০ লাখ৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম