1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ক্ষমতার চাবিকাঠি পশ্চিমের হাতেই : ওবামার প্রত্যয়

দুনিয়া জুড়ে যতই যা ঘটুক না কেন.. শেষ পর্যন্ত সেই পশ্চিম দুনিয়ার হাতেই ক্ষমতার চাবিকাঠি৷ আজও নেতৃত্ব দিচ্ছে তারাই৷ নোবেলজয়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তেমনই মনে করেন৷ বললেন একথা ইউরোপে দাঁড়িয়েই৷

default

সংসদের উভয়কক্ষের সামনে দৃপ্ত ওবামা

ওবামা বললেন, এই সেই সময় যখন অ্যামেরিকা আর পশ্চিমকে হাতে লাগাম তুলতে হবে৷

বিশ্বের এদিক ওদিক থেকে একের পর নতুন শক্তি মাথাচাড়া দিচ্ছে৷ তাই এই সেই সময়, যখন তারা কেউ দানা বাঁধার আগেই অ্যামেরিকা আর পশ্চিমকে এগিয়ে আসতে হবে নেতৃত্বের লাগাম হাতে তুলে নিতে৷ যতই যাই হোক, আসল লাগাম সেই পশ্চিমের হাতেই এখনো রয়েছে৷ ব্রিটিশ রাজনীতিকদের সভায় এই মন্তব্য বারাক ওবামার৷ ওবামার ভাষণ নিয়ে প্রায় হৈচৈ পড়ে গেছে ইউরোপে৷ ব্রিটিশ মন্ত্রিসভার উভয় কক্ষ টইটম্বুর ছিল তাঁর ভাষণ শুনতে৷

শুরু করেছেন সাংবাদিকতার রসিকতা করে৷ সাংবাদিকদের কাছে সবচেয়ে প্রিয়, বারবার মড়া বাঁচিয়ে তোলার খবর কী? উত্তর নিজেই দিয়ে দিয়েছেন ওবামা৷ লন্ডন ওয়াশিংটন সম্পর্ক৷ ফলে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তো এসে গেছেই ভাষণে৷

ব্রিটিশ মন্ত্রিসভার সবচেয়ে সুপ্রাচীন ওয়েস্টমিনস্টার হলে এই যে ভাষণ, এতে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে স্বভাবতই বেশ গুরুত্বপূর্ণ কথা বলেছেন বারাক ওবামা৷ ইরাক, আফগানিস্তান, ন্যাটো, লিবিয়া, ইত্যাদি বিভিন্ন প্রসঙ্গেই কার কী দায়দায়িত্ব, তা বুঝিয়েছেন ধৈর্য ধরে৷ বুশ ব্লেয়ার বন্ধুত্বের জমানা অবসানের পর, ওবামা অ্যামেরিকার হাল ধরার পর প্রথমে পার করেছেন টোনি ব্লেয়ারকে , মাঝে গর্ডন ব্রাউন আর এখন ডেভিড ক্যামেরন৷ ফলে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে বহু দরকারি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন শেষ পর্যন্ত বোঝাপড়ায় কোন ঘাটতি নেই কোনপক্ষেই৷

London Obama Rede Britisches Parlament

এই বিরল বক্তৃতা শুনতে পূর্ণ ছিল সভাকক্ষ৷

ইংল্যন্ডের ঝিমিয়ে পড়া অর্থনীতি নিয়ে বেশ চিন্তাতেই নতুন সরকার৷ তাছাড়া, ক্যামেরনের রক্ষণশীল সরকারের প্রতি সাধারণ মানুষের একটা সন্দেহের কিছুটা দূর হল এই খোলামেলা ভাষণের পরে৷ বিশেষ করে পশ্চিমের হৃতগৌরব ফেরাতে ওবামার এই উদাত্ত আহ্বান তো পালে বাতাস লাগাল অনেকটাই৷ ভাষণকে ঘিরে প্রচুর আগ্রহই তার প্রমাণ৷

পঁয়ত্রিশ মিনিটের টানটান ভাষণে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে সভা মাতিয়ে রেখেছিলেন ওবামা এদিন৷ একদিকে এই প্রথম কোন মার্কিন প্রেসিডেন্ট এই পোডিয়ামে ভাষণ দিলেন৷ সে এক মস্তবড় সম্মান৷ দ্বিতীয়ত, তিন প্রাক্তন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী, টোনি ব্লেয়ার, জন মেজর আর গর্ডন ব্রাউন পাশাপাশি বসে শুনেছেন ওবামার ভাষণ৷ ছিলেন ব্রিটিশ রাজনীতির যাবতীয় হোমড়াচোমড়ারা৷ পুরো হলে তিলধারণের জায়গা ছিলনা৷ সবকিছু মিলে বারাক ওবামা ম্যাজিক আবারও দেখা গেল এদিন পুরোমাত্রায়৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: ফাহমিদা সুলতানা