1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ক্রিস্টাল মেথ একটি বিপজ্জনক মাদক

সিন্থেটিক মাদক ক্রিস্টাল মেথ উত্তেজনা জাগিয়ে তোলে৷ ক্লান্তি দূর করে৷ যারা প্রবল চাপ বা স্ট্রেসে থাকে এবং কর্মক্ষমতা বাড়াতে চায়, তাদের মধ্যেই এই মাদক সেবনের প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে৷

ইদানীং মাদক গবেষকদের উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে মেথ৷ দীর্ঘদিন ধরে এই মাদক সেবন করলে প্রচণ্ড শারীরিক ও মানসিক ক্ষতি হয়৷ নার্ভ সেল বা স্নায়ুকোষ ধ্বংস হয়৷ ক্ষতি হয় মস্তিষ্কের৷ আক্রমণাত্মক ও সহিংস করে তোলে মানুষকে৷

এই মাদকের ক্লিস্টাল পাউডার নাক দিয়ে টানা হয়, মুখে খাওয়া হয়, সিগারেটের মতো ধূমপান করা হয় কিংবা সিরিঞ্জ দিয়ে শিরায় ঢোকানো হয়৷

Droge Crystal Meth

ইদানীং মাদক গবেষকদের উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে মেথ

সীমান্তবর্তী অঞ্চলে বিস্তৃতি লক্ষ্য করা যায়

জার্মানির কোনো কোনো অঞ্চলে বিশেষ করে চেক সীমান্তবর্তী রাজ্যগুলিতে ‘ক্রিস্টাল মেথ' মাদক সেবনের হার খুব বেশি৷ চেক প্রজাতন্ত্রে এক ধরনের ‘ল্যাবরেটরিতে' সস্তায় তৈরি করা হয় এই ফ্যাশন মাদক৷ এরপর অল্প অর্থের বিনিময়ে জার্মানিতে পাঠানো হয় এটি৷

বিশেষ করে স্যাক্সনি, স্যাক্সনি-আনহাল্ট, ট্যুরিঙেন ও বাভারিয়ায় এই মাদকের প্রাচুর্য লক্ষ্য করা যায়৷ এক পরিসংখ্যানে জানা গিয়েছে, স্যাক্সনির আসক্তি-পরামর্শ কেন্দ্রে আসা মানুষের হার এক বছরের মধ্য চার শতাংশ থেকে ১৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে৷ এ কথা জানান মাদক গবেষক হাইনো শ্ট্যোভার৷

ক্রিস্টাল মেথের সাইকোঅ্যাকটিভ প্রভাব সাংঘাতিক৷ এই মাদক সেবনে শরীরে উত্তেজনা বেড়ে যায়৷ মানুষকে জাগিয়ে রাখে৷ দেহের স্বাভাবিক প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত হয়৷ আবার এই মাদক ছেড়ে দিলে উল্টো ব্যাপার লক্ষ্য করা যায়৷ আসক্তরা এটি ছাড়া ঘুমাতে পারেন না, যদিও ক্লান্তি তাদের ঘিরে থাকে৷ কোনো কাজে মনোযোগ দিতে সমস্যা হয় তাঁদের৷

স্বাস্থ্যের ভীষণ ক্ষতি হয়

দীর্ঘদিন ক্লিস্টাল মেথ সেবন করলে স্বাস্থ্যের ভীষণ ক্ষতি হয়৷ অনেকের দাঁত পড়ে যায়৷ ওজন অত্যন্ত কমে যায়৷ অল্প সময়ের মধ্যে বার্ধক্য ভর করে৷ কোনো কোনো ক্ষেত্রে অল্প কয়েক মাসের মধ্যেই বিপর্যয় ঘটে যায়৷ এই সব ক্ষতি আর পূরণ করা যায় না – বলেন মাদক গবেষক শ্ট্যোভার৷

মাদক জগতে ক্রিস্টাল মেথ অনেক দিন ধরেই পরিচিত৷ আগে এটির বাণিজ্যিক নাম ছিল ‘পারভিটিন'৷ অত্যধিক ক্লান্তিতে জাগিয়ে রাখার জন্য ব্যবহৃত হতো এই মাদক৷ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এর বিস্তৃতি লক্ষ্য করা যায়৷ রাতে দায়িত্বপালনরত ট্যাংক কম্যান্ডার ও পাইলটরা এই মাদক সেবন করতেন৷ আজও এইসব কারণে ক্রিস্টাল মেথের দিকে হাত বাড়ান অনেকে৷ ‘‘যেমন শিক্ষার্থীরা কিংবা চাপের কাজ করেন যারা৷ এছাড়া সাময়িকভাবে একটানা দীর্ঘ সময়ের কাজ করতে হলে এই মাদকের সাহায্য নেন অনেকে৷'' জানান শ্ট্যোভার৷

জার্মানিতে ক্রিস্টাল মেথ মূলত পার্টি মাদক হিসাবে ব্যবহার করা হয়৷ যেমন টেকনো পার্টিতে৷ এই মাদক নিলে তরুণরা তরুণীরা দীর্ঘ সময়ের জন্য সতেজ থাকে৷ নাচের উন্মাদনা বজায় থাকে৷

বিকল্প মাদক রিপোর্ট

'গত ২রা জুলাই জার্মানিতে প্রথমবারের মতো বিকল্প মাদক রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়৷ ৫০ জনের মতো বিশেষজ্ঞ মাদক প্রতিরোধে বিভিন্ন ধরনের বিকল্প কলাকৌশলের উল্লেখ করেছেন৷ অতীতের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে একটি কার্যকর মাদক প্রতিরোধ নীতি গড়ে তোলাই হলো এই প্রতিবেদনের লক্ষ্য৷ জার্মান এইডস সাহায্য সংস্থা, প্রাক্তন আসক্তদের ফেডারেশন – ‘সেল্ফহেল্প নেটওয়ার্ক'-সহ বেশ কয়েকটি সংস্থা এই প্রতিবেদনের কার্যক্রমে অংশ নিয়েছে৷

জার্মান সরকারের আসক্তি ও মাদক রিপোর্টের বিকল্প প্রতিবেদন এটি৷ ‘‘আমরা তাদের মতো একই বিষয় নিয়ে চিন্তাভাবনা করেছি৷ প্রশ্ন উত্থাপন করেছি৷ কিন্তু উত্তরগুলি ছিল ভিন্নরকম৷ '' বলেন মাদক গবেষক শ্ট্যোভার৷

তিনি মনে করেন, মাদক প্রতিরোধ ও আসক্তদের পরামর্শের ব্যাপারে আরো অনেক কিছু করার রয়েছে৷ বিশেষ করে ক্রিস্টাল মেথের ক্ষেত্রে৷

Flash-Galerie Techno Party

সিন্থেটিক মাদক ক্রিস্টাল মেথ উত্তেজনা জাগিয়ে তোলে

সমবয়সিদের পরামর্শ কাজে লাগে

মাদক প্রতিরোধে আরো বেশি কর্মী নিয়োগ দেওয়া, নতুন ধরনের কলাকৌশল ও পদ্ধতির দাবি জানান শ্ট্যোভার৷ যারা আগে ক্রিস্টাল মেথ সেবন করতেন, তাঁদের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর প্রস্তাব দেন তিনি৷ তাঁর ভাষায়, ‘‘সাধারণত পরামর্শ কেন্দ্রের কর্মীরা আসক্তদের চেয়ে বেশি বয়সের হয়ে থাকেন৷ তাই তাঁদের তেমন নির্ভরযোগ্য মনে করতে পারেন না ভুক্তভোগীরা৷ সে ক্ষেত্রে ক্রিস্টাল মেথ সেবনে যাদের অভিজ্ঞতা রয়েছে, সেইসব সমবয়সিদের পরামর্শ অনেক বেশি বিশ্বাসযোগ্য ও কার্যকর হতে পারে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন