1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম ‘ওপাস’ তেন্ডুলকারের

বিখ্যাত ব্যক্তিদের জীবনী লেখা হবে এটাই স্বাভাবিক৷ কিন্তু তা যদি হয় সেই প্রখ্যাত মানুষটির নিজ রক্ত দিয়ে লেখা, তবে কেমন হবে? তা-ই দেখতে যাচ্ছেন এবার প্রকাশনা সংস্থা ক্রাকেন-এর কর্তৃপক্ষ৷

ভারত, ক্রিকেট, শচীন তেন্ডুলকার Sachin Tendulkar, Cricket

ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন তেন্ডুলকার (ফাইল ছবি)

ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন তেন্ডুলকারের জীবনী এবার লেখা হচ্ছে তাঁরই নিজের রক্ত দিয়ে৷ ভাবছেন, একটি বই-এ তাঁর এক ফোটা রক্ত ছোঁয়ানো হবে হয়তোবা৷ মোটেও তা নয়, তাঁর রক্তের ছোঁয়া থাকছে প্রথম দশটি বইয়ে৷ জীবন্ত এই কিংবদন্তির প্রতি সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা প্রদর্শনেই নাকি এই উদ্যোগ৷ বিশাল আকারের এই জীবনীমূলক গ্রন্থকে দেওয়া হয়েছে মহাগ্রন্থ তথা ‘ওপাস'-এর মর্যাদা৷ নাম ‘তেন্ডুলকার ওপাস'৷ আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসেই আলোর মুখ দেখবে প্রকাশনা জগতের এই নতুন বিস্ময়৷

ক্রাকেন-এর প্রধান নির্বাহী কার্ল ফাউলার বললেন, ‘‘কাগজের মন্ডের সাথে শচীনের রক্ত মিশিয়ে করা হচ্ছে বইটির সিগনেচার পেজ৷ ফলে এটার রং হবে রজনের মতো লাল৷'' লন্ডন থেকে প্রকাশিত ‘দ্য গার্ডিয়ান' পত্রিকা ছেপেছে ফাউলারের এই বক্তব্য৷ তিনি আরো বলেন, ‘‘এটা পেয়ালা ভর্তি চা'য়ের মতো নয়, এটা সবার স্বাদের জন্যও নয়৷ অনেকের কাছেই এটা বেশ অদ্ভুত ঠেকতে পারে৷ কিন্তু প্রকৃত কথা হচ্ছে, শচীন তেন্ডুলকার লাখো ভক্তের কাছে এক ধর্মীয় প্রতীকও বটে৷ আর আমাদের দর্শন হলো, প্রকাশনার আকারে যেন স্রষ্টার খুব কাছাকাছি আসতে পারেন আপনি,'' এমনই আবেগময় অনুভূতি তুলে ধরেন ফাউলার৷

জানা গেছে, ইতিমধ্যেই নির্ধারিত হয়ে গেছে কে পাবেন তেন্ডুলকারের রক্ত মেশানো প্রথম দশ কপি৷ এগুলোর একেকটি কপির দাম উঠেছে ৭৫ হাজার ডলার করে৷ তবে এসব বই থেকে অর্জিত টাকা যোগ হবে তেন্ডুলকারের দাতব্য প্রতিষ্ঠানে৷ ফলে দেখা যাচ্ছে, মূলত অসহায় মানুষের সেবার জন্যই উৎসর্গিত হচ্ছে এই ক্রিকেট তারকার রক্ত৷ এছাড়া আরো এক হাজার কপি জীবনীগ্রন্থে থাকছে নির্দিষ্ট ক্রমিক নম্বর এবং তেন্ডুলকারের নিজের স্বাক্ষর৷ এগুলোর দাম রাখা হবে দুই থেকে তিন হাজার ডলার৷

একেকটি বইয়ে থাকছে ৮৫২টি পাতা৷ স্বর্ণপাত দিয়ে মোড়ানো প্রতিটি পাতার আয়তন আধা বর্গমিটার৷ একটি বইয়ের ওজন হবে ৩৭ কেজি৷ থাকছে প্রায় দেড় হাজার ছবি এবং তিন লাখেরও বেশি শব্দ৷ শচীন তেন্ডুলকারই প্রথম কোন ক্রিকেটার যাঁর জীবনীগ্রহন্থ পাচ্ছে ওপাস তথা মহাগ্রন্থের মর্যাদা৷ এর আগে ওপাস আকারে প্রকাশিত হয়েছে ফেরারি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, দিয়েগো মারাদোনা, মাইকেল জ্যাকসন এবং দ্য বুর্জ খলিফা'র মতো বিশাল ব্যক্তি কিংবা প্রতিষ্ঠানের জীবনী ও ইতিহাসমূলক গ্রন্থ৷

প্রতিবেদন : হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়