1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

কৌতুক অভিনেতারা অকাল মৃত্যুর ঝুঁকিতে বেশি থাকেন!

অবাক হচ্ছেন? অন্তত সাম্প্রতিক একটি গবেষণা কিন্তু সেটাই বলছে৷ অস্ট্রেলিয়ার দুই গবেষক ৫৩ জন কৌতুক অভিনেতার উপর গবেষণা করে এই ধারণা পেয়েছেন৷ আন্তর্জাতিক এক জার্নালে গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে৷

গত আগস্ট মাসে মার্কিন জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা রবিন উইলিয়ামসের ৬৩ বছর বয়সে আত্মহত্যা করার ঘটনাটি অস্ট্রেলীয় গবেষকদের এ ধরনের গবেষণা কাজে আগ্রহী করে তোলে৷

অস্ট্রেলিয়ার ক্যাথলিক ইউনিভার্সিটির ‘ম্যারি ম্যাককিলপ ইনস্টিটিউট অফ হেলথ রিসার্চ'-এর দুই গবেষক – অধ্যাপক সিমন স্টুয়ার্ট এবং অধ্যাপক ডেভিড থমসন – এর গবেষণাটি ‘ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ কার্ডিওলজি-তে প্রকাশিত হয়েছে

গবেষণায় পাওয়া মূল তথ্যটি হচ্ছে, মজার মানুষ হওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক – একজন কৌতুক অভিনেতা যত বেশি মজার, তাঁর অকাল মৃত্যু হওয়ার ঝুঁকি বেশি৷

কমেডিয়ানদের ব়্যাংকিং করে এমন একটি ওয়েবসাইটের সহায়তা নিয়ে গবেষকরা ৫৩ জন ব্রিটিশ ও আইরিশ কৌতুক অভিনেতার উপর এই গবেষণা করেন৷ গবেষকরা আবার এঁদের মধ্য থেকে নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী ২৩ জনের একটি তালিকা তৈরি করেন, যাঁদের গবেষকরা ‘এলিট' কমেডিয়ান বলে মনে করেছেন৷ গবেষণায় দেখা যায় এই ২৩ জনের মধ্যে ৭৮ শতাংশ অভিনেতাই অকাল মৃত্যুর শিকার হয়েছেন৷

অধ্যাপক স্টুয়ার্ট তাঁদের গবেষণা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার এবিসি-তে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন৷ সেখানে তিনি বলেন, ‘‘নীচুমান ছাড়া উঁচুমান থাকতে পারেনা৷ মানুষকে হাসানোর ক্ষেত্রে এই অভিনেতারা অনেক উঁচু মানের পরিচয় দিয়েছেন, তাই বলে কি আমরা একটা বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারি যে, তাঁদের পুরো জীবনটাই হাসির মধ্য দিয়ে গেছে?

‘‘ব্যক্তিগত জীবনে অনেক কমেডিয়ানই সাংঘাতিকভাবে অস্বাভাবিক মানসিক অবস্থা বা মনোবৈকল্য, বিষাদ ইত্যাদির মধ্য দিয়ে যান'', বলেন অধ্যাপক স্টুয়ার্ট৷

জেডএইচ/ডিজি (ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন