1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

কোরান পোড়ানোর প্রতিবাদ অব্যাহত, ওবামার নিন্দা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ কোরান পোড়ানোর প্রতিবাদে আফগানিস্তানে বিক্ষোভ অব্যাহত৷ তবে কোরান পোড়ানোর ঘটনা ও এসব বিক্ষোভে প্রাণহানির নিন্দা জানিয়েছে ওয়াশিংটন৷

default

শুক্রবার মাজার-ই-শরিফে জাতিসংঘের কার্যালয়ের উপর কালো ধোঁয়া

ফ্লোরিডার গির্জায় গত ২০ মার্চ প্রায় ৫০ জন ব্যক্তির সামনে কোরান পোড়ান খ্রিষ্টান ধর্মযাজক টেরি জোনস৷ সেই খবর জানার পর থেকেই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন আফগানিস্তানের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা৷ কাবুল, মাজার-ই-শরিফ এবং কান্দাহারসহ বেশ কিছু শহরে বিক্ষোভ প্রদর্শিত হয়৷ তবে এই প্রতিবাদ বিক্ষোভ সহিংস রূপ নেয় মূলত দক্ষিণের শহর কান্দাহারে৷ তালেবান গোষ্ঠীর প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত এই কান্দাহার৷ গত শুক্রবার মাজার-ই-শরিফে জাতিসংঘের দপ্তরে হামলা হয়৷ গত শুক্রবার থেকে চলমান বিক্ষোভে অন্তত ২৪ জন নিহত হয়েছে৷

এরপর থেকে চলে আসছে বিক্ষোভ প্রতিবাদ৷ রবিবারও সেখানে প্রতিবাদ বিক্ষোভে সমবেত হয় কয়েকশ' জনতা৷ অ্যামেরিকা এবং আফগান প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই নিপাত যাক বলে তারা স্লোগান দিতে থাকে৷ বিক্ষোভকারীরা একটি পুলিশ ফাঁড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়৷ এসময় একটি গ্যাসের বোতল বিস্ফোরিত হয়৷ ঘটনায় একজনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে৷ আহত হয়েছে অন্তত ১৮ জন৷ এছাড়া একই শহরে বিক্ষোভকারীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষে নিহত হয়েছে দুই পুলিশ সদস্য৷ সেখানে আহত হয়েছে আরো ২০ জন৷ এর আগে শনিবারও কান্দাহারে বিক্ষোভ প্রতিবাদের সময় সহিংসতায় ১০ জন নিহত হয়৷ গতকাল অন্তত ৮৩ জন আহত হয়৷

Reaktionen zu Terry Jones' Koran-Plänen

গত সেপ্টেম্বরেও কাবুলে টেরি জোনসের প্রতিমূর্তি পোড়ানো হয়েছে

শুক্রবারের ঘটনার পর জাতিসংঘ ভবনে হামলার জন্য বিভিন্ন মহল থেকে নিন্দা জানানো হলেও আজ কোরান পোড়ানোর নিন্দা জানালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা৷ হোয়াইট হাউস থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে ওবামা বলেন, ‘‘কোরানসহ যে কোন ধর্ম গ্রন্থের অবমাননা করা চরম অসহিষ্ণু এবং গোঁড়ামিমূলক কাজ৷ তবে একইসাথে এর প্রতিবাদে নিরপরাধ মানুষদের উপর হামলা এবং হত্যা করাও জঘন্য এবং মানবতার অমর্যাদা৷'' ওবামা আরো বলেন, ‘‘নিষ্পাপ মানুষদের জবাই এবং শিরচ্ছেদ করাটা কোন ধর্মেই স্বীকৃত নয় এবং এমন ঘৃণিত কাজের কোন যৌক্তিকতা নেই৷'' গত শুক্রবারের হামলায় নিহত জাতিসংঘ কর্মকর্তাদের আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং তাদের শোকার্ত আত্মীয়-স্বজনদের প্রতি সমবেদনা জানান ওবামা৷

তবে কোরান পোড়ানোর ঘটনার নায়ক টেরি জোনস বার্তা সংস্থা রয়টার্সের সাথে সাক্ষাৎকারে এই ঘটনার জন্য কোন অনুতাপ প্রকাশ করেননি৷ বরং চলতি মাসের শেষে ইসলাম বিরোধী আন্দোলনের ঘোষণা দেন জোনস৷ মিশিগানের ডিয়ারবর্নে অবস্থিত অ্যামেরিকার সবচেয়ে মড় মসজিদের সামনে তিনি বিক্ষোভ প্রদর্শনের কথা বলেন৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সংশ্লিষ্ট বিষয়