1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

কে হচ্ছেন জাতিসংঘের পরবর্তী প্রধান জলবায়ু কর্মকর্তা?

জাতিসংঘের বর্তমান প্রধান জলবায়ু বিষয়ক কর্মকর্তা ইভো দ্য বোয়ার পদত্যাগ করছেন৷ আগামী পয়লা জুলাই থেকে তাঁর পদত্যাগ কার্যকর হচ্ছে৷ তাই এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে নতুন কর্মকর্তা নিয়োগ নিয়ে জল্পনা কল্পনা৷

default

পদত্যাগ করছেন বর্তমান প্রধান ইভো দ্য বোয়ার

মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে দুজনের মধ্যে৷ একটি ইন্টারভিউ প্যানেল সম্ভাব্য কয়েকজনের নাম থেকে এ দুজনকে বেছে নিয়েছেন বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে৷ এদের একজন হলেন দক্ষিণ আফ্রিকার পর্যটন মন্ত্রী মার্টিনুস ভ্যান শালকভিক, আর অন্যজন কস্টারিকার ক্রিস্টিয়ানা ফিগেরেস, যিনি বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে একজন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন নেত্রী৷

এদিকে একটি সূত্রের উল্লেখ করে রয়টার্স বার্তা সংস্থা বলছে যে, এ দুজনের মধ্যে শালকভিকের নির্বাচিত হবার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি৷ কারণ বেশির ভাগ দেশই নাকি তাঁকে সমর্থন করছে৷ এছাড়া নিজে মন্ত্রী হওয়ায় অন্যান্য দেশের মন্ত্রীদের সঙ্গে তিনি ভালভাবে আলোচনা করতে পারবেন বলে অনেকের ধারণা৷ আর রাজনীতিবিদ হওয়ায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে তাঁর আলোচনা চালিয়ে যেতে সুবিধা হবে৷ আবার একটি প্রদেশের গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালন করার অভিজ্ঞতা থাকায় ব্যবস্থাপনা বিষয়টিও তাঁর নখদর্পণে৷ নরওয়ের পরিবেশমন্ত্রী এরিক সোলহাইম শালকভিকের প্রশংসা করে বলেছেন যে, এ পদের জন্য তিনি একজন শক্তিশালী প্রার্থী৷ কারণ এক সময় তিনি তাঁর দেশের পরিবেশমন্ত্রী হিসেবে কাজ করেছেন৷ অন্যদিকে কস্টারিকার ফিগেরেস ১৯৯৫ সাল থেকে তাঁর দেশের জলবায়ু বিষয়ক প্রধান আলোচক হিসেবে কাজ করছেন৷

তবে যেই নির্বাচিত হোন না কেন, এটা নিশ্চিত যে, উন্নয়নশীল কোন দেশ থেকেই এবার ঐ উঁচু পদে বসতে যাচ্ছেন কেউ৷ জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে উন্নয়নশীল দেশগুলোই যে বেশি ক্ষতির স্বীকার হচ্ছে, এটা হবে তাঁরই স্বীকৃতি৷ জাতিসংঘের মহাসচিব এই দুজনের মধ্যে থেকে একজনকে বেছে নেবেন৷

নতুন প্রধানকে প্রথম বড় ধরনের দায়িত্বের মুখে পড়তে হবে এ বছরেরই ডিসেম্বরে৷ সেসময় মেক্সিকোর কানকুনে অনুষ্ঠিত হবে কোপেনহেগেন সম্মেলন পরবর্তী জলবায়ু সম্মেলন৷

উল্লেখ্য, বর্তমান প্রধান জলবায়ু কর্মকর্তা ইভো ডি বোয়ার হল্যান্ডের নাগরিক৷ জাতিসংঘ থেকে পদত্যাগের পর তিনি শীর্ষস্থানীয় অডিটর ফার্ম কেপিএমজি-তে যোগ দেবেন বলে জানা গেছে৷ গত ফেব্রুয়ারিতে তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দেন৷ ঐ সময় তিনি বলেন যে, কোপেনহেগেন সম্মেলন ব্যর্থ হওয়ার পর থেকে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে এক নতুন ধরনের কূটনীতি শুরু হয়েছে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়