1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

কোকোর বিরুদ্ধে অর্থ পাচার মামলার বিচার শুরু

বাংলাদেশের বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর বিরুদ্ধে সিঙ্গাপুরে অর্থ পাচারের মামলা নিয়ে বিচার শুরু হয়েছে বিশেষ আদালতে৷ মঙ্গলবার প্রথম দিনে বাদীর সাক্ষ্য নিয়েছেন আদালত৷

Arafat, Rahman, Koko, son, former, কোকো, অর্থ, পাচার, মামলা, বিচার, Prime, Minister, Bangladesh, Begum, Khaleda, Zia, Coco, Koko, Politics, Politiker, Bangladesch, Dhaka,

আরাফাত রহমান কোকো

অভিযোগ, বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে আরাফাত রহমান কোকো বিপুল পরিমাণ অর্থ দেশের বাইরে পাচার করেন৷ এই অর্থ সিঙ্গাপুরের নাগরিক লিং সিউ-এর সঙ্গে সেখানকার ইউনাইটেড ওভারসিজ ব্যাংকের যৌথ অ্যাকাউন্টে জমা রাখেন তিনি৷ মোট অর্থের পরিমাণ ২৮ লাখ ৮৪ হাজার সিঙ্গাপুরি ডলার এবং ৯ কোটি ৩২ লাখ টাকা৷ জুলাইয়ে এই মামলার চার্জশিট দেয়ার পর মঙ্গলবার বিচার শুরু হল৷ প্রথমদিনে মামলার বাদী দুদকের উপ-পরিচালক আবু সাঈদ সাক্ষ্য দিয়েছেন৷ মামলায় দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন কাজল জানান, প্যারোল বাতিল করে গ্রেফতারি পরওয়না জারির পরও কোকো দেশে ফিরে আদালতে আত্মসমর্পণ করেননি৷ এই মামলায় তার পক্ষ থেকে নিয়োগ করা হয়নি কোন আইনজীবী৷

কোকো ছাড়া এই মামলার আরেক আসামি সায়মন আকবরও পলাতক আছেন৷ মামলায় মোট সাক্ষী ২৩ জন৷ সাক্ষীদের একজন সিঙ্গাপুরের লিং সিউকে এই ঘটনায় সেখানকার আদালত অর্থদণ্ড দিয়েছে৷ তবুও তাকে সাক্ষী দিতে ঢাকায় আনান চেষ্টা চলছে বলে জানান আইনজীবী৷

দুই আসমির অনুপস্থিতিতে বিচারক মোজাম্মেল হকের আদালতে শুরু হওয়া এই বিচারের রায় তাদের বিপক্ষে গেলে সর্বোচ্চ ৭ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে৷ আর মামলা শেষে সিঙ্গাপুর সরকার পাচার হওয়া অর্থ ফেরত দেবে বলে জানান দুদকের আইনজীবী৷ আর আপিল করতে হলে আদালতে তাদের আত্মসমর্পণ করতে হবে৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক