1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

কেট-উইলিয়াম বিয়ের আর এক মাস বাকি

একমাস পরেই বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে যাচ্ছেন প্রিন্স উইলিয়াম এবং কেট মিডলটন৷ অথচ রাজ পরিবারের এই বিয়ে নিয়ে ব্রিটেনে যতটা হৈচৈ দেখা দেবে বলে মনে করা হচ্ছিলো, এখনও তেমনটা দেখা যাচ্ছেনা৷

default

প্রিন্স উইলিয়াম ও কেট মিডলটন

তবে বিয়ের এই হাওয়া নিশ্চয়ই রাজপরিবারের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে৷‘উইলিয়াম ও কেট: দ্য লাভ স্টোরি'র লেখক রবার্ট জবসন এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘অদ্ভূতভাবে এখন পর্যন্ত এখানে এ নিয়ে তেমন উত্তেজনা দেখা যাচ্ছেনা৷ অথচ অ্যামেরিকায়ও এই বিয়ে নিয়ে উন্মাদনা ছড়িয়ে পড়েছে৷'' তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র টেলিভিশন নেটওয়ার্ক এনবিসি ৩০ বছর পর ব্রিটেনের রাজ পরিবারের এই বিয়ে নিয়ে এক সপ্তাহে তাঁর তিনবার সাক্ষাৎকার নিয়েছেন৷ তবে তিনি মনে করেন, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে এই বিয়ে নিয়ে নিশ্চয়ই বিভিন্ন খবর জানতে পারবেন মানুষ৷

গত নভেম্বর মাসে রাজপরিবারের পক্ষ থেকে ২৮ বছরের যুবরাজ উইলিয়াম এবং তাঁর বিশ্ববিদ্যালয়ের বান্ধবী ২৯ বছরের কেট মিডলটনের বাগদানের কথা ঘোষণা করা হয়৷

ব্রিটেনের অন্যতম পর্যটন সংস্থা ‘ভিজিট লন্ডন'৷ সংস্থাটি ভবিষ্যদ্বাণী করেছে, ২৯শে এপ্রিল রাজ পরিবারের বিয়ের দিন অতিরিক্ত ৬ লাখ পর্যটক লন্ডনে আসবেন৷ ঐদিন লন্ডনে অন্যান্য দিনের চেয়ে পর্যটকের সংখ্যা দশ লাখ পর্যন্ত বেশি হতে পারে৷ অন্যদিকে ইন্টারনেটে দেখা গেছে, এই সময় লন্ডনে এখনও হোটেলের রুম খালি পাওয়া যাচ্ছে৷

NO-FLASH London Gericht

ওয়েস্টমিন্সটার অ্যাবে

লন্ডনের ঐতিহাসিক ওয়েস্টমিন্সটার অ্যাবে গির্জায় উইলিয়াম ও মিডলটন বিয়ে করবেন৷ ১৯৮১ সালে উইলিয়ামের বাবা-মা প্রিন্স চার্লস এবং প্রিন্সেস ডায়ানা'র বিয়ের পর এবার আবার সেখানে রাজকীয় বিয়ে হতে যাচ্ছে৷ বিয়ের অনুষ্ঠানের পর নবদম্পতি রাজধানীর রাজপথ দিয়ে বাকিংহ্যাম প্রাসাদে ফিরে যাবেন৷ বাকিংহাম প্রাসাদে মধ্যাহ্নভোজে ৬০০ অতিথিকে আপ্যায়ন করবেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ৷ এছাড়া চার্লস এর পক্ষ থেকে ৩০০জন অতিথিকে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে নৈশভোজে৷ আর ২৯ এপ্রিলকে ছুটির দিন হিসেবেও ঘোষণা করা হতে পারে৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন