1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

উত্তর কোরিয়া

কিছু একটা হতে চলেছে: ট্রাম্প

চীন সফরে এসে উত্তর কোরিয়া সংকটের সমাধানসূত্রের আশা করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ চীন অবশ্য সরাসরি সংলাপের প্রস্তাব দিচ্ছে৷ সপ্তাহান্তে রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনায়ও বিষয়টি প্রাধান্য পাবে৷

বৃহস্পতিবার ট্রাম্প তাঁর স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার বিষয়ে ‘কিছু একটা হতে চলেছে'৷ সে দেশের বিতর্কিত পরমাণু কর্মসূচিতে রাশ টানতে তিনি চীনের উপর প্রবল চাপ সৃষ্টি করে আসছেন৷ তাঁর মতে, চীন ‘দ্রুত ও সহজে' এই সমস্যার সমাধান করতে পারে৷ তাঁর মতে, হাতে সময় বড় কম৷ তিনি বেইজিং-এর উদ্দেশ্যে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আর্থিক সম্পর্ক ছিন্ন করার আহ্বান জানিয়েছেন৷

চীন অবশ্য এখনো পর্যন্ত শুধুমাত্র জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করার অঙ্গীকার করে এসেছে৷ তার বাইরে কোনো একক উদ্যোগ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না৷ প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বর্তমান সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধানের লক্ষ্যে একাধিকবার অ্যামেরিকা ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে সরাসরি সংলাপের আহ্বান জানিয়েছেন৷ উত্তর কোরিয়ার প্রশ্নে মার্কিন প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ ও সমন্বয় বজায় রাখতে চান তিনি৷

চীনের নেতৃত্ব প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রতি অভূতপূর্ব উষ্ণতা দেখাচ্ছে৷ গ্রেট হল অফ দ্য পিপল-এ তাঁর জন্য এক স্বাগতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়৷ রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সেটি সরাসরি সম্প্রচার করা হয়, যেমনটা এর আগে কোনো বিদেশি অতিথির ক্ষেত্রে দেখা যায়নি৷ ট্রাম্প-ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-কে ‘ভেরি স্পেশাল ম্যান' হিসেবে প্রশংসা করেছেন৷ এমনকি চীনের সঙ্গে অ্যামেরিকার বিপুল বাণিজ্য ঘাটতির জন্য তিনি নিজের পূর্বসূরিদের দায়ী করেছেন৷ প্রেসিডেন্ট শি-র সঙ্গে তিনি এই ঘাটতি কাটিয়ে ন্যায্য ভারসাম্য আনার অঙ্গীকার করেছেন৷ তাঁর মতে, এর ফলে দু'পক্ষেরই উপকার হবে৷

ব্যক্তিগত উষ্ণতা সত্ত্বেও দুই নেতার বর্তমান অবস্থান একেবারে ভিন্ন৷ চীনের প্রেসিডেন্ট সদ্য সমাপ্ত কমিউনিস্ট পার্টি কংগ্রেসে নিজের ক্ষমতা আরও পাকাপোক্ত করেছেন৷ অন্যদিকে নির্বাচনের এক বছর পর ট্রাম্প রাশিয়া কেলেঙ্কারিসহ একাধিক কারণে কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন৷ তাঁর প্রতি জনসমর্থনও তলানিতে ঠেকেছে৷

উত্তর কোরিয়াকে একঘরে করতে রাশিয়ারও সহযোগিতা চাইছেন ট্রাম্প৷ সপ্তাহান্তে ভিয়েতনামে অ্যাপেক শীর্ষ সম্মেলনে তিনি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিনের সঙ্গে আলোচনা করবেন৷ রাশিয়া তার প্রভাব খাটিয়ে উত্তর কোরিয়াকে বশে আনতে সাহায্য করতে পারে বলে মনে করেন ট্রাম্প৷

এসবি/ডিজি (রয়টার্স, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়