1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

কাল থেকে পাবনায় সুচিত্রা সেন চলচ্চিত্র উৎসব

সুচিত্রা সেন, বাংলা চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তী৷ সুচিত্রা এবং সুচিত্রা-উত্তম জুটির ছবি এখনও বাঙালিকে মন্ত্রমুগ্ধের মত টানে৷ সুচিত্রার জন্ম বাংলাদেশের পাবনায়৷ সেখানেই শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে সুচিত্রা সেন চলচ্চিত্র উৎসব৷

default

২৬ নভেম্বর থেকে আট দিনব্যাপী এই চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করেছে সুচিত্রা সেন স্মৃতি সংরক্ষণ পরিষদ বা এসএসএসএসপি৷ ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিসের খবরে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের চলচ্চিত্র অর্থাৎ ঢালিউডের সিনিয়র অভিনেতা রাজ্জাক এই উৎসবের উদ্বোধন করবেন৷ আর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন চলচ্চিত্র পরিচালক ও অভিনেতা আমজাদ হোসেন৷ এই আয়োজনে আরো উপস্থিত থাকবেন, শিল্পী সোহেল রানা, উজ্জ্বল, দিতিসহ আরো অনেকে৷

এসএসএসএসপি-র মোহাম্মদ সাদিকুল হক বলেছেন, দ্বিতীয়বারের মতো এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে৷ তিনি বলেন, ‘‘সুচিত্রা সেনের ছবি দর্শকরা খুবই পছন্দ করেন৷ এই কারণে তিনি রুপালি পর্দার কিংবদন্তীতে পরিণত হয়েছেন৷ গতবারের উৎসবে দর্শকদের অভাবনীয় সাড়া পাওয়ায় দ্বিতীয়বারের মতো উৎসবের পরিকল্পনা করেছি আমরা৷''এদিকে উৎসব আয়োজন কমিটির সেক্রেটারি রাম দুলাল ভৌমিক বলেছেন, উৎসবের একটি দিন রাখা হয়েছে শুধুমাত্র মহিলা দর্শকদের জন্যে৷

সুচিত্রা সেন চলচ্চিত্র উৎসবে যে ছবিগুলো প্রদর্শিত হবে তার মধ্যে রয়েছে, পথে হলো দেরি, ইন্দ্রানি, বিপাশা, কোমল-লতা, সূর্য তোরণ, দেবদাস, রাজলক্ষ্মী-শ্রীকান্ত এবং আলো আমার আলো৷

১৯৩১ সালে পাবনা শহরে জন্মগ্রহণ করেন সুচিত্রা সেন৷ এই শহরেই লেখাপড়া করেছেন এবং বড় হয়েছেন তিনি৷ তাঁর বাবা করুণাময় দাসগুপ্ত স্থানীয় একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষক ছিলেন৷ ১৯৪৭ সালে দিবানাথ সেনকে বিয়ে করেন সুচিত্রা৷ তাঁর একমাত্র কন্যা মুনমুন সেন এবং দুই নাতনি রাইমা ও রিয়া সেনও ভারতীয় চলচ্চিত্রের পরিচিত মুখ৷

প্রতিবেদক: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক