1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

কার্লোস দুঙ্গা রোম্যান্টিক ফুটবলের ধার ধারেন না

ব্রাজিলের কোচ এককালে শুধু স্বদেশে এবং স্বদেশের হয়েই নয়, ইটালি, জার্মানি এবং শেষমেষ জাপানেও সাফল্যের সঙ্গে পেশাদারী ফুটবল খেলেছেন৷ এবং কোচ হয়েও তিনি তাঁর স্বভাব-প্রকৃতি বদলাননি৷

default

দুঙ্গা

প্লেয়ার হিসেবেও দুঙ্গা যে পায়ের চারুকাজের জন্য বিখ্যাত ছিলেন, এমন নয়৷ লোকে তাঁকে চিনতো তাঁর একরোখামি আর নাছোড়বান্দা মনোভাবের জন্য৷ ব্রাজিল ২০০৬ সালে জার্মানিতে বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালেই বিদায় নেওয়ার পর দুঙ্গা'কে দেওয়া হয় ‘সেলেসাও'-এর দায়িত্ব৷ সে'যাবৎ দুঙ্গা এক পর্যায় নতুন খেলোয়াড় এনেছেন, এবং তাদের ওপর নিজের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করেছেন৷ ঝগড়া করেছেন মিডিয়া'র সঙ্গে, প্লেয়ারদের সঙ্গে, এমনকি ফুটবল সমিতির কর্মকর্তাদের সঙ্গে৷ কিন্তু শেষমেষ তিনি এমন একটা দল তৈরী করেছেন. যেখানে রোনাল্ডিনিও এবং কাকা'র মতো সুপারস্টাররাও তাদের জায়গা সম্পর্কে নিশ্চিন্ত থাকতে পারে না৷

এবারকার কোয়ালিফাইং অভিযানেই দুঙ্গা দেখিয়েছেন যে, তাঁর সিস্টেম সাফল্য এনে দিতে সক্ষম৷ ব্রাজিল শেষমেষ থাকে তালিকার শীর্ষে, প্যারাগুয়ে এবং চিলি'র এক পয়েন্ট আগে৷ মোট কথা, দুঙ্গা যেমন তাঁর ফুটবলার জীবনে নো-চ্যাংড়ামি, নো-ক্যারদানি প্লেয়ার ছিলেন, কোচ হিসেবেও তিনি ঠিক তাই৷ রোমান্টিক ফুটবলের দেশ ব্রাজিলের মানুষরা তাঁকে হয়তো ভালোবাসতে শেখেনি, কিন্তু ২০০৭-এ কোপা আমেরিকা এবং ২০০৯-এ কনফেডারেশনস কাপ জয়ের পর দেশবাসী দুঙ্গাকে - ইচ্ছা কি অনিচ্ছায় - শ্রদ্ধা করতে শিখেছে৷

১৯৯৪ সালে যে ব্রাজিল দল বিশ্বকাপ জয় করে, তার ক্যাপ্টেন ছিলেন দুঙ্গা৷ আজ ৪৬ বছরের কোচ কিন্তু জোহানেসবার্গ পৌঁছে বলেছেন: ‘‘আমি যে একটি জিনিষ নতুন করে প্রচলন করতে চেয়েছি, সেটা হল ব্রাজিলের জার্সির প্রতি ভালোবাসা এবং জাতীয় দলে খেলার লক্ষ্য৷ কিন্তু এখন আমরা জানি যে, আমরা এর আগে যা কিছু করেছি, তার সব কিছুর মাপকাঠি হবে এই প্রতিযোগিতা৷ আমরা যদি না জিতি, তা'হলে সকলে সেই এক কথাই বলবে: প্লেয়াররা এবং প্রস্তুতি ভালো ছিল না৷''

বিশেষ করে দুঙ্গাকে অণুবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে পর্যবেক্ষণ করবে ব্রাজিলের মিডিয়া৷ ইন্টার মিলানে রোনাল্ডিনিও'র ফর্ম ক্রমেই আরো ভালো হওয়া সত্বেও তাকে ডাক দেননি দুঙ্গা৷ সেই ভাবেই আদ্রিয়ানো'কে উপেক্ষা করেছেন৷ এবং অন্যান্যদেরও৷ বিশ্বকাপ না জিতে এবার পার নেই কার্লোস দুঙ্গার৷

প্রতিবেদন: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়