1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

কারণ খুঁজছে সরকারি দল, বিরোধী দল সতর্ক

সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে শাসক ১৮ দলের ৪ প্রার্থীরই ভরাডুবির কারণ খোঁজা হচ্ছে৷ আওয়ামী লীগ চায়, আগামী সংসদ নির্বাচনের আগেই কারণগুলো চিহ্নিত করে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে৷

বিএনপি মনে করে ৪ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তাদের ৪জন প্রার্থীই জয় পাওয়ায় দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে এক ধরনের চাঙ্গা ভাব ফিরে এসেছে৷ বিএনপিসহ বিরোধী ১৮ দলীয় জোটের প্রতি মানুষের সমর্থন যে বেড়েছে এবং বাড়ছে তা বোঝা যাচ্ছে৷ কিন্তু এটাই শেষ নয়৷ বিএনপি'র চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু ডয়চে ভেলেকে বলেন, তাঁরা চেষ্টা করবেন স্থানীয় সরকার নির্বাচনে জনগণ তাদের প্রতি যে সমর্থন প্রকাশ করেছে, তা ধরে রেখে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এর সুফল ঘরে তুলতে৷ যে সব কারণে মানুষ ৪ সিটি নির্বাচনে ১৮ দল সমর্থিত প্রার্থীদের ভোট দিয়েছে, সেই কারণগুলো তারা বের করে সামনে নিয়ে আসবেন৷ সংসদ নির্বাচনে সেই কারণগুলো তারা মাথায় রেখে কাজ করবেন৷

তবে বিএনপি মনে করে, এই সরকারের অধীনে স্থানীয় সরকার নির্বাচন সুষ্ঠু হলেও জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য প্রয়োজন তত্ত্বাবধায়ক সরকার৷ শামসুজ্জামান দুদু আরও বলেন, তারা কোন ফাঁদে পা দিতে চাননা৷ তিনি বলেন, ১৯৯৩ সালে ঢাকা এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনও বিএনপি-র অধীনে হয়েছিল৷ তাতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা মেয়র পদে জয়ী হয়েছিলেন৷ কিন্তু তারপরও আওয়ামী লীগ বিএনপি-র অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যায়নি৷ তখন তাদের দাবিতেই তত্ত্বাবধায়ক সরকার এসেছিল৷

Narayanganj City Corporation Wahlen Flash-Galerie

জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে মতপার্থক্য এখনো কাটছো না

শামসুজ্জামান দুদু জানান, বিএনপি এখন ভোট এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আন্দোলন এক সঙ্গে চালিয়ে যাবে৷ বিএনপির প্রতি মানুষের সমর্থন যাতে অব্যাহত থাকে তা যেমন বিবেচনা করা হবে, তেমনি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিও আদায় করা হবে৷

এদিকে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ ডয়চে ভেলেকে বলেন, ৪ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তাদের প্রার্থীদের পরাজয়ের কারণ তাঁরা অনুসন্ধান করছেন৷ তিনি আরও বলেন, ৪ সিটি কর্পোরেশনেই এই ৪ জন ২০০৮ সালের নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন৷ গত ৫ বছরে তারা ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজও করেছেন৷ তারপরও তাঁরা কেন হারলেন, তা আওয়ামী লীগের কাছেও বড় প্রশ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে৷ তাঁরা জানতে চাইছেন, এটা কি প্রার্থীর ব্যক্তিগত ত্রুটি, স্থানীয় সংগঠনের দুর্বলতা, না জাতীয় রাজনীতির কোনো প্রভাব ৷

মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, তাঁরা জানতে পেরেছেন উন্নয়নমূলক কাজ করলেও তাঁদের কোনো কোনো মেয়র প্রার্থী সংগঠন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন৷ তাঁদের বিরুদ্ধে দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে রূঢ় আচরণের অভিযোগও আছে৷ ফলে তারা দলের তৃণমূল নেতা-কর্মীদের সমর্থন পাননি৷ আবার স্থানীয়ভাবে জাতীয় কিছু ইস্যু নিয়ে অপপ্রচার ও মিথ্যা তথ্য ছড়ানো হয়েছে৷ তবে কার্যকরভাবে তার জবাব দিতে ব্যর্থ হয়েছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীরা৷ তিনি বলেন, স্থানীয় সরকারের নির্বাচন হলেও জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এর অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চায় আওয়ামী লীগ৷ সেসব ইস্যু পরাজয়ের পেছনে কাজ করেছে, তার ব্যাপারে আগে থেকেই তারা সতর্ক থাকতে চান৷

তিনি দাবি করেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনও এই সরকারের অধীনেই অবাধ, সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ হবে৷ বিরোধী দলের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিকে অসার প্রমাণ করেছে ৪ সিটি কর্পোরেশনে বিরোধী প্রার্থীদের বিজয়৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়