1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

কাবুলে ন্যাটো বাহিনীর উপর গাড়ি বোমা হামলা, নিহত কমপক্ষে ২০

কাবুলে ন্যাটো বাহিনীর উপর আত্মঘাতী গাড়ি বোমা হামলায় ছয় বিদেশী সৈন্য সহ কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে৷ তালেবান ইতিমধ্যে এই হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে৷

default

হামলার শিকার একটি গাড়ি

এ মাসের ১০ তারিখ থেকে দেশব্যাপী হামলা চালানো হবে৷ এই ছিল তালেবানের ঘোষণা৷ হামলার মূল লক্ষ্য হিসেবে যাদের ধরা হয়েছিল তাঁরা হলেন বিদেশী সৈন্য ও কূটনীতিক, আফগান সাংসদ এবং বিদেশী ঠিকাদার৷

মঙ্গলবার হামলা চালানো হলো বিদেশী সৈন্যদের উপর৷ অর্থাৎ ন্যাটোর আইসাফ বাহিনীর উপর৷ এতে মারা গেলেন ছয়জন৷ যার মধ্যে পাঁচজনই মার্কিন সেনা৷ এছাড়া প্রাণ দিতে হয়েছে কমপক্ষে ১৪ জন নিরীহ আফগান নাগরিককে৷ নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন দেশটির সেনাবাহিনীর প্রধান চিকিৎসক জেনারেল আহমেদ জিয়া ইয়াফতালি৷ আর হামলার মূল লক্ষ্য যে আইসাফ বাহিনীই ছিল সেটি নিশ্চিত করেছেন আফগানিস্তানের

Selbstmordanschlag in Kabul Afghanistan

নিহত একজনের মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেমারাই বাশারি৷ তিনি বলছেন, ‘‘আফগান পুলিশের কাছ থেকে যে তথ্য পাওয়া গেছে তাতে মনে হচ্ছে যে আইসাফ বাহিনীই ছিল হামলার মূল লক্ষ্য৷''

এদিকে হামলাটি যে স্থানে চালানো হয়েছে সেটি কাবুলের অন্যতম নিরাপত্তা পরিবেষ্টিত এলাকা বলে পরিচিত৷ কারণ সেখানে রয়েছে আফগানিস্তানের সংসদ ভবন, পানি ও জ্বালানী মন্ত্রণালয় এবং সেনা নিয়োগ কেন্দ্র৷

মঙ্গলবারের হামলাটিকে বলা হচ্ছে, গত এক বছরেরও বেশি সময় পর তালেবানের চালানো সবচেয়ে মারাত্মক হামলা৷ এর আগেরটি ছিল গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে৷ তখন কয়েকটি সরকারি ভবনে হামলা করেছিল তালেবান জঙ্গিরা৷ ঐ হামলায় কমপক্ষে ২৬ জন নিহত হয়েছিলেন৷ আর এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে তারা হামলা করে বিদেশীর উপর৷ কয়েকটি অতিথিশালায় চালানো ঐ হামলায় ভারতীয় নাগরিক সহ মোট ১৬ জন নিহত হন৷

এদিকে ন্যাটোর মহাসচিব আন্ডার্স ফগ রাসমুসেন এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন৷ তবে এরপরও আফগানিস্তানে ন্যাটোর মিশন বলবৎ থাকবে বলে তিনি জানান৷ আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাইও হামলার নিন্দা জানিয়েছেন৷

উল্লেখ্য, ২০০১ সালে আফগানিস্তান যুদ্ধের পর থেকে তালেবান জঙ্গিরা যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে থাকা ন্যাটো বাহিনী ও পশ্চিমা বিশ্বের সমর্থনপুষ্ট দেশীয় সরকারের বিরুদ্ধে জঙ্গি তৎপরতা চালিয়ে আসছে৷ এর ফলে গত বছর ৫২০ জন ন্যাটো সদস্য মারা গেছেন বলে বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে৷ এই হিসেব অনুযায়ী ২০০১ সালের পর গত বছরেই সবচেয়ে বেশি ন্যাটো সদস্য নিহত হয়েছেন৷ এদিকে চলতি বছরে এখন পর্যন্ত তালেবান হামলায় কমপক্ষে ২০২ ন্যাটো সদস্য মারা গেছেন৷ অন্যদিকে গত বছরে ঠিক এ সময় পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা গত বছরের চেয়ে ৮৩ জন কম ছিল৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়