1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

কাবুলের আকাশে ঘুড়ি যুদ্ধ

আফগানিস্তান বললেই চোখের সামনে যুদ্ধ বিধ্বস্ত এক দেশের চিত্র ভেসে ওঠে৷ যেখানে তালেবান জঙ্গিদের তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে সেনারা৷ প্রতিনিয়ত চলছে যুদ্ধ আর আত্মঘাতী হানা৷ এসবের মাঝেও, আফগানদের বিনোদন দিচ্ছে এক যুদ্ধ, নাম ঘুড়ি যুদ্ধ৷

default

আকাশে ওড়ার পথে একটি ঘুড়ি

আফগান রাজধানী কাবুলে বিনোদনের অবকাশ খুবই কম৷ বছরের পর বছর ধরে চলা যুদ্ধ আর বিদেশি সেনাদের ভারে এই শহর অনেকটাই ন্যুব্জ৷ তারপরও সান্ত্বনা যে কাবুলে নিউ ইয়র্ক, লন্ডন বা হংকংয়ের মতো শত শত সুরম্য অট্টালিকা নেই৷ তাই, আফগানরা এখনো কাবুলের খোলা আকাশটাকে বানাতে পারে ভিন্ন এক যুদ্ধের ক্ষেত্র৷

এই যুদ্ধের হাতিয়ার তৈরি হয় বাঁশ, কাগজ আর সুতা দিয়ে৷ কাবুলের অলিগলিতে রাত জেগে তৈরি হয় নানা রংয়ের নানা বর্ণের সব হাতিয়ার৷ এই হাতিয়ার দিনের বেলা হাতে হাতে উড়বে৷ যুদ্ধ করবে মাঝ আকাশে৷ কখনো কখনো তা ভূ-পৃষ্ঠ থেকে এক কিলোমিটার উপরে উঠে যাবে লড়তে লড়তে৷

ধরতে পারছেন, কী নিয়ে বলছি এত কথা? বলছি ঘুড়ির কথা৷ যুদ্ধ যাদের নিত্যসঙ্গী, সেই কাবুলবাসীদের এক অনন্য বিনোদন এই ঘুড়ি উৎসব৷

গত ২০ বছর ধরে ঘুড়ি তৈরি করছেন তামিম৷ কাবুলের এই বাসিন্দা ডয়চে ভেলেকে জানান, স্বাভাবিক দিনে গড়ে দু'শোর মতো ঘুড়ি বিক্রি করেন তিনি৷ ১৫ টাকা থেকে শুরু করে ৮ হাজার টাকা পর্যন্ত দামের ঘুড়ি আছে তামিমের কাছে৷ বিশেষ বিশেষ উৎসবের দিনে ২০,০০০ এর মতো ঘুড়ি বিক্রি করেছেন তিনি৷

আফগান রাজধানীতে তামিমের মতো এমন ঘুড়ি বিক্রেতার অভাব নেই৷ অনেকে আবার নানা রূপের ঘুড়ি বানাতেও রীতিমত ওস্তাদ৷ এরকমই এক ঘুড়ি বিশেষজ্ঞ ইতিহাসবিদ আব্দুল রহিম৷ ডয়চে ভেলেকে তিনি জানান, কাগজের ঘুড়ি হচ্ছে সবচেয়ে ভালো৷ কেননা, এগুলো বড় করা যায়৷ ফলে অনেক উপরে উঠে গেলেও দেখা যায়৷ প্লাস্টিক ঘুড়ি তেমন ভালো হয়না৷

ঘুড়ি উৎসবে একেকটি ঘুড়ির পেছনে থাকেন দু'জন৷ একজনের দায়িত্ব লাটাই ধরে রাখা৷ অন্যজনকে বলা হয় পাইলট৷ ঘুড়ির সুতা ধরে যুদ্ধে মত্ত থাকেন তিনি৷ কীভাবে কৌশলে অন্যের ঘুড়িটিকে কেটে দেয়া যায়, সেই কাজে বেশ পারদর্শী এই পাইলটরা৷

কাবুলের এই ঘুড়ি উৎসবও কিন্তু নিষিদ্ধ করেছিল তালেবান জঙ্গিরা৷ ১৯৯৬ সালে ধর্মের অজুহাতে ঘুড়ি উৎসবের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে তালেবান৷ আন্তর্জাতিক চাপে তালেবান এখন অনেকটাই কোণঠাসা৷ সেই সুযোগে ঘুড়ি উৎসবটা ফিরছে আফগান সমাজে৷ কাবুলের এই ঘুড়ির জগত সম্পর্কে আরও জানতে পড়ে নিতে পারেন খালেদ হোসেইনির লেখা বিখ্যাত বই ‘কাইট রানার' অথবা দেখে নিতে পারেন সেই বই অবলম্বনে তৈরি মার্ক ফর্স্টার পরিচালিত চলচ্চিত্রও৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়