1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

কান চলচ্চিত্র উৎসবে ডায়ানার মৃত্যু নিয়ে ছবি

১৯৯৭ সালে প্যারিসের এক সুড়ঙ্গে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় ব্রিটেনের প্রিন্সেস ডায়ানার মৃত্যুকে ঘিরে কম জল্পনা-কল্পনা হয় নি৷ এবার এক তথ্যচিত্রে সেই ঘটনা আবার তুলে ধরা হয়েছে৷

This is July 29, 1981 photo of Prince Charles and Princess Diana on the balcony of Buckingham Palace on their wedding day. (AP Photo/PA, File) (Photo für Kalenderblatt)

রাজপরিবারে বিয়ের পর ডায়ানা

ছবির নাম ‘আনলফুল কিলিং' – অর্থাৎ বেআইনি হত্যা৷ পরিচালক ব্রিটেনের অভিনেতা কিথ অ্যালেন৷ দুর্ঘটনায় মৃত ডায়ানার বন্ধু ডোডি আল ফায়েদের বাবা মহম্মদ এই তথ্যচিত্র নির্মাণে মদত করেছেন৷ তিনি শুরু থেকেই দাবি করে আসছেন, যে রানি এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপের নির্দেশেই তাঁর ছেলে ও ডায়ানাকে হত্যা করা হয়েছিল৷ কারণ ডায়ানা এক মুসলিম পুরুষকে বিয়ে করবেন, ব্রিটেনের রাজপরিবার এটা কখনোই মেনে নিতে প্রস্তুত ছিল না৷ এই দম্পতির মৃত্যুর আসল কারণ ঢাকার চেষ্টা করা হয়েছে বলে ছবিতেও অভিযোগ করা হয়েছে৷ উল্লেখ্য, ব্রিটেন ও ফ্রান্সের পুলিশের তদন্ত অনুযায়ী চালক মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালিয়ে দুর্ঘটনাটি ঘটিয়েছিলেন৷

দুর্ঘটনার পর ডায়ানা যখন মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছিলেন, পাপারাৎসিদের তোলা সেই অবস্থার বিতর্কিত ছবিও স্থান পেয়েছে এই তথ্যচিত্রে৷ এই ছবির ব্যবহারকে কেন্দ্র করে যে সমালোচনার ঝড় উঠেছে, তার জবাবে নির্মাতাদের এক মুখপাত্র বলেছেন, এর আগেও এই ছবি বিশ্বের অন্যান্য প্রান্তে প্রকাশিত হয়েছে৷ ইটালির এক পত্রিকা তথ্যচিত্রে ছবিটি ব্যবহার করতে দিয়েছে৷ শুধু ব্রিটেনের সংবাদ মাধ্যম এই ছবিতে ডায়ানার মুখের অভিব্যক্তি ঢাকতে কালো রঙ ব্যবহার করেছে৷ তথ্যচিত্রটি ব্রিটেনে দেখানোও হচ্ছে না৷ এমনকি ছবির ট্রেলারও শুধু ওয়েবসাইটেই রাখা রয়েছে৷ মহম্মদ আল ফায়েদ অবশ্য তথ্যচিত্রে এই ছবির ব্যবহারের বিপক্ষে৷ তাঁর এক মুখপাত্র বলেন, ছবিটি তথ্যচিত্র থেকে সরানোর সবরকম চেষ্টা করবেন তিনি৷ ডায়ানার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী রোসা মঙ্কটন বলেন, ডায়ানার মৃত্যু ভাঙিয়ে লোকে যে এখনো টাকা রোজগারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, এটা অত্যন্ত জঘন্য একটি ঘটনা৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

নির্বাচিত প্রতিবেদন