1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সাক্ষাৎকার

কর ব্যবস্থা নিয়ে যা বললেন এনবিআর-এর সাবেক চেয়ারম্যান

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড বা এনবিআর-এর সাবেক চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ আবদুল মজিদ৷ কর ব্যবস্থার সমস্যা ও এর সমাধানে কী করা হচ্ছে সে সম্পর্কে ডয়চে ভেলের সঙ্গে কথা বলেন তিনি৷

মজিদ বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে কর-জিডিপির অনুপাত ১০.৩ শতাংশ, অর্থাৎ মোট জিডিপি আয়ের ১০.৩ শতাংশ আশে কর খাত থেকে৷ অথচ এটি ১৫-১৬ শতাংশের মতো হওয়া উচিত ছিল৷ প্রত্যক্ষ করের আওতা ঠিকমতো না বাড়া এবং রাজস্ব বিভাগে পর্যাপ্ত জনবলের অভাবের কারণে সেটি সম্ভব হয়নি৷

তবে প্রত্যক্ষ কর বাড়াতে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি৷ এক্ষেত্রে চলতি অর্থবছরের বাজেটে চাকরিজীবীদের আয়কর বিবরণী ও কর দেওয়ার বিষয়ে বেশ কিছু নতুন উদ্যোগ নেয়ার কথা উল্লেখ করেন মজিদ৷ এর মধ্যে অন্যতম হলো – প্রতি মাসে বেতন থেকে অগ্রিম কর কাটা, সরকারি কর্মকর্তাদের নির্দিষ্ট সীমার আয়ের বেশি হলে আয়কর বিবরণী জমা এবং বেসরকারি চাকরিজীবীদের ই-টিআইএন বাধ্যতামূলক৷ ইতিমধ্যে এনবিআর এ সব নতুন উদ্যোগের কথা করদাতাদের জানাতে বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রচার শুরু করেছে৷

অডিও শুনুন 12:02

‘করদাতাদের সঙ্গে আদায়কারীদের ভালো আচরণ করতে হবে’

এছাড়া সহজ ভাষায় নতুন করে আয়কর আইন প্রণয়ন ও বাংলা ভাষায় আয়কর দেয়ার ফরম তৈরি হচ্ছে বলে জানান এনবিআর-এর সাবেক চেয়ারম্যান মজিদ৷ তিনি বলেন, বর্তমানে যে আয়কর অধ্যাদেশের আওতায় কর সংগৃহীত হচ্ছে সেটি ১৯৮৪ সালে প্রণীত৷ আইনটি ইংরেজি ভাষায় খুবই জটিলভাবে লিখিত৷ এছাড়া ঐ আইনে ঔপনিবেশিক দৃষ্টিভঙ্গীর সন্নিবেশ ঘটেছে৷ ফলে আইনটি সংস্কার করা জরুরি হয়ে পড়েছিল৷ ২০১৮ সালে নতুন কর আইন পাস হতে পারে বলে জানা গেছে৷

তবে কর আদায়কারী ও কর দাতাদের মনোভাবে যদি পরিবর্তন না আসে তাহলে আইন সহজ করে এবং কর প্রদানের কাজ সহজ করেও রাজস্ব আদায়ে উন্নতি হবে না বলে মনে করেন তিনি৷ মজিদ বলেন, ‘‘সম্প্রতি কর্তৃপক্ষ কর প্রদানে সবাইকে উৎসাহিত করতে উদ্যোগ নিয়েছে৷ সেটা একটি ভালো পদক্ষেপ৷ তবে করদাতারা যখন কর দিতে যাবেন তখনও তাদের সঙ্গে কর আদায়কারীদের ভালো আচরণ করতে হবে৷''

এনবিআর এর বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান সরকারি বার্তা সংস্থা বাসসকে সম্প্রতি জানিয়েছেন, ‘‘অনলাইনে আয়কর বিবরণী জমা দেয়া সংক্রান্ত প্রকল্পের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে৷ আগামী মাস (অক্টোবর) থেকে অনলাইনে করদাতারা রিটার্ন দাখিল করতে পারবেন৷'' সরকারের এই উদ্যোগকেও স্বাগত জানিয়েছেন মজিদ৷ তবে সবার পক্ষে এখনই অনলাইনে আয়কর দাখিল সম্ভব নয় বলে কর আদায়কারীদের ভালো আচরণের বিষয়টি সাক্ষাৎকারে আবারও উল্লেখ করেন তিনি৷

বন্ধু, সাক্ষাৎকারটি আপনার কেমন লাগলো? জানান আমাদের, লিখুন নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়