1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

কমনওয়েলথ গেমসের থিম সং এ আর রহমানের

অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে নতুন দিল্লিতে শুরু হচ্ছে কমনওয়েলথ গেমস৷ ৩ থেকে ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে এই আসর৷ দুই মাসেরও কম সময় বাকি৷ আর এই সময়ের আগেই শেষ করে ফলতে হবে সকল আয়োজনের খুঁটিনাটি৷

default

এ আর রহমান

খুব স্বাভাবিকভাবেই, দারুণ একটি খেলার আসর উপহার দিতে চান ভারতের ক্রীড়া মন্ত্রণালয়৷ কিন্তু এতে অনেক বাধা৷ এই পরিস্থিতিতে ক্রীড়ামন্ত্রী এমএসগিল জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহ দু'য়েকের মধ্যে সকল কাজ বিশেষ করে ভেন্যুর নির্মান কাজ চূড়ান্ত করে ফেলতে পারবেন তাঁরা৷ তিনি জানিয়েছেন, সবগুলো ভেন্যুর কাজ প্রায় শেষ হয়ে গেছে৷ এই কয়েকদিনে রঙের শেষ আচড়টা দিতে হবে মাত্র৷

গেমসের থিম সং কোনটা হবে, তা নিয়ে বেশ হিসাব কষতে হয়েছে আয়োজকদের৷ পরে অস্কার বিজয়ী গায়ক এ আর রহমানের ‘স্বাগতম' গানটিকেই নির্বাচন করা হয়েছে থিম সং হিসাবে৷ কমনওয়লেথ গেমস'কে সফল করে তোলার জন্য যে মন্ত্রিসভা কমিটি রয়েছে, সেই কমিটির সদস্যরাই গত ১৫ আগস্ট বসে এই গানটি নির্বাচন করেন৷

ইতিমধ্যে গতকালই গেমসের সমস্ত দায়িত্ব নিয়ে নেন প্রধানমন্ত্রী ড. মনমোহন সিং৷ অবশ্য নেবেনই বা না কেন? গত বেশ কিছুদিন ধরে এই কমিটির সদস্যদের মধ্যে মতবিরোধ চলছে৷ আর সম্প্রতিতে ফেডারেশনগুলোর নেতারা যে আচরণ করছেন, তাতে গেমসের আয়োজনে যে কি রকম হবে - তা নিয়ে সকলের মধ্যে রয়েছে দুঃশ্চিন্তা৷ এ ধরণের কাজে সাধারনত মাথা ঘামাননা সরকার প্রধানরা৷ মন্ত্রী সামন্তরাই কাজটি করেন৷ কিন্তু গেমস আয়োজন নিয়ে সংশ্লিষ্ট মহলের কর্মকাণ্ডের পর মাথা ঘামানো ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কোন উপায়ই ছিল না৷ আর দায়িত্ব নিয়েই তিনি নির্দেশ দিয়েছেন, ‘‘কাজে গাফিলতি নয়, সঠিকভাবে এবং সময় মেনে কাজ করুন৷ আমি দ্রুত সব কিছু প্রস্তুত দেখতে চাই৷''

গেমসের অবকাঠামো নির্মাণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে ইতোমধ্যেই৷ কয়েকদিন আগে দুর্নীতিবিরোধী বিশেষজ্ঞ দল স্টেডিয়াম নির্মাণসহ নানা কাজে বিভিন্ন অনিয়ম দেখতে পেয়েছেন৷ নিম্নমানের সরঞ্জাম দিয়ে তৈরি হচ্ছে বিভিন্ন ভেন্যুর কাজ৷ আর এসব অভিযোগ নিয়ে সংসদে কথা বলেন সেদেশের ক্রীড়ামন্ত্রী এমএস গিল৷ ফলে অনেকটা দায় মাথায় নিয়ে গেমস কমিটির কোষাধ্যক্ষ পদ থেকে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ান অনিল খান্না৷

এদিকে, প্রধানমন্ত্রীর কথার সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী শীলা দিক্ষিত৷ তিনি বলেন, গেমস আয়োজনে কারও দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া গেলে, তাকে শাস্তি পেতেই হবে, কোন ছাড় দেয়া হবে না৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

ইন্টারনেট লিংক