1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

কনফেড কাপে যাবার মুখে স্পেনের দুশ্চিন্তা

৫ বছর আগে এই কনফেড কাপেরই সেমিফাইনালে স্পেন হেরেছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ২-০ গোলে৷ সেটা ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার ব্লুমফন্টেইনে৷ ব্রাজিলেও ফিটনেসের সমস্যা আর ক্লান্তি মিলিয়ে স্পেনের ভরাডুবি ঘটতে পারে, বলছেন বিশেষজ্ঞরা৷

চ্যাম্পিয়নস লিগে স্পেনের রেয়াল মাদ্রিদ আর বার্সেলোনা জার্মানির ডর্টমুন্ড আর বায়ার্নের কাছে চরম মার খাওয়ার পর থেকেই মানুষজন যেন স্পেনকে খরচার খাতায় ফেলে দিয়েছে৷ সবার মুখে জার্মান ফুটবলের নাম৷

কিন্তু এবার ইসরায়েলে আন্ডার-টোয়েন্টিওয়ান ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে জার্মান দল যেভাবে বিদায় নিল, তা-তে নতুন করে প্রমাণ হলো যে, ফুটবলে নিশ্চয়তা বলে কিছু নেই৷ গোটা কয়েক এ-লেভেল খেলোয়াড়কে সাথে না নিয়ে যাওয়ার যে দাম জার্মান দলকে দিতে হলো, তা-তে প্রশ্ন উঠতে পারে: তাহলে কি শেষমেষ সেই একক তারকাদের দিয়েই খেলায় হারজিত নির্ধারিত হয়?

Brasilien Fußball Confed Cup Stadion Mané-Garrincha-Stadion in Brasilia

ব্রাজিলে কনফেডারেশনস কাপের স্টেডিয়াম

স্পেন জার্মানির মতো সে ভুল করেনি৷ ইসকো কি থিয়াগো আলকান্তারার মতো উঠতি তারকাদের ঠিকই ইসরায়েল পাঠিয়েছে এবং তার ফলও লাভ করেছে৷ কিন্তু তার দাম হয়ত দিতে হতে পারে ব্রাজিলে কনফেডারেশনস কাপে৷ ওদিকে একমাত্র কোচ ভিসেন্তে দেল বস্কে ছাড়া স্পেনে বাকি সব পণ্ডিতদেরই সন্দেহ যে, জাতীয় দলের তারকারা এখন পড়তিদের মধ্যেই ধর্তব্য৷

সাভি হের্নান্দেজ আর সের্জিও বুসকেটস-এর হ্যামস্ট্রিং আর পিঠের ইনজুরি নিয়ে চিন্তা তো রয়েছেই৷ এর মধ্যে আবার সাবি আলন্সো কুঁচকির সমস্যা নিয়ে কনফেড কাপ থেকে বাদ পড়ছেন৷ ওদিকে আলন্সোর ইনজুরি সত্ত্বেও দেল বস্কে এচ্চেবারিয়া আর জাভি গার্সিয়ার মতো দু'জন মিডফিল্ডারকে তাঁর ২৬ সদস্যের দল থেকে বাদ দিয়েছেন৷ অবশ্য আলন্সো না থাকায় জাভি মার্তিনেজ তাঁর কেরামতি দেখানোর সুযোগ পাবেন৷

দেল বস্কে ক্যাপ্টেন ইকার কাসিয়াসকে দলে ফিরিয়েছেন বটে, কিন্তু ক্যাসিয়াস গত জানুয়ারি যাবৎ কোনো প্রতিযোগিতামূলক খেলায় খেলেননি৷ রাইট-ব্যাক আলভারো আরবেলোয়াকেও শেষমেষ রেয়ালে বেঞ্চে বসেই কাটাতে হয়েছে, কাজেই তাঁর জায়গায় চেলসির আজপিলিকুয়েতা মাঠে নামতে পারেন৷

সামনে চেস্ক ফাব্রেগাসকে ‘‘মেকি ন'নম্বর'' করে খেলানোর চেয়ে অন্য কাউকে সে ভূমিকা দেবার কথা ভাবতে পারেন দেল বস্কে৷ তবে ফরোয়ার্ড হিসেবে তাঁর হাতে রবের্তো সোলদাদো, ফের্নান্দো টরেস আর দাভিদ ভিইয়া, তিনজনেই থাকছেন৷ সব মিলিয়ে দেল বস্কে অতীতের রথী-মহারথীদের উপরেই নির্ভর করছেন বলে মনে হচ্ছে৷

এস্পার হোক আর ওস্পার, এই কনফেড কাপে স্পেনীয় ফুটবলের ভবিষ্যৎ ধারাটা যে ছকা' হয়ে যাবে, তা-তে কোনো সন্দেহ নেই৷

এসি/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়