1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

কংগ্রেস ও ডিএমকে শরিক দলের জট কাটেনি

আগামী মাসে তামিলনাড়ু বিধানসভা নির্বাচনের মুখে রাজ্যে আসন ভাগাভাগি নিয়ে কেন্দ্রের জোট সরকারের শরিক দল কংগ্রেস ও ডিএমকের অচলাবস্থা কাটেনি৷ আলোচনা চলছে৷

default

কংগ্রেসের পক্ষ আলোচনায় অংশ নেন অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায়

আজ দিনভর চলেছে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে কেন্দ্রের ডিএমকে মন্ত্রী আলাগিরি ও দয়ানিধি মারানের বৈঠক৷ সমাধান সূত্র খুঁজে পাওয়া না গেলে ডিএমকে কেন্দ্রের কংগ্রেস জোট সরকার থেকে বেরিয়ে যাবে এবং বলাই বাহুল্য, ডিএমকের ৬জন মন্ত্রী কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দেবেন এমনটাই কথা৷ জটটা কোথায় ? তামিলনাড়ু বিধানসভার ২৩৪টি আসনের মধ্যে কংগ্রেস চেয়েছে ৬৩টি আসন আর রাজ্যের শাসক দল ডিএমকে দিতে চেয়েছে ৬০টি আসন৷

মাত্র ৩টি আসনের জন্য সরকার থেকে বেরিয়ে যাবার সিদ্ধান্তে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীসহ দলের একাংশ ক্ষুব্ধ৷ সংসদের বাজেট অধিবেশন চলাকালে আচমকা এইভাবে বেরিয়ে যাওয়াটা ব্ল্যাকমেল ছাড়া আর কী?৷ এটা জোটধর্মের খেলাপ৷ কংগ্রেসের এক শীর্ষ নেতার মতে, ‘‘ওঁরা জোট ভাঙলে কেন্দ্রে ক্ষমতা তো হারাবেই রাজ্যের ভোটেও খেসারত দিতে হবে৷'' কংগ্রেসের কিছু শীর্ষ নেতা মনে করেন, ডিএমকে সঙ্গ ছাড়লে দুর্নীতি প্রশ্নে ইতিবাচক বার্তা গেলেও অন্য শরিকদের মনে নেতিবাচক ধারণা উস্কে দেবে৷ তারাও অন্যায় চাপ দিতে শুরু করবে৷ এমনিতেই মনমোহন সিং সরকার চলেছে এক কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে৷ তাই শরিক সম্পর্ক বজায় রাখাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ৷ অন্যদিকে, আসন রফা না হলে তামিলনাড়ুর ভোটে ডিএমকের অবস্থা হবে শোচনীয়৷ একার পক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া ডিএমকের পক্ষে সম্ভব হবেনা৷

পর্যবেক্ষকদের মতে, কংগ্রেস-ডিএমকে বিরোধ যতটা না আসন নিয়ে, তার থেকে বেশি অন্য কারণে৷ তা নাহলে মাত্র তিনটি আসনের জন্য জল এতটা গড়াতে পারেনা৷ কারণটা অন্য৷ টু-জি স্পেকট্রাম নিয়ে ডিএমকে মন্ত্রী এ.রাজা এখন জেলে যাবার পর তদন্তকারী সংস্থার নিশানা এখন ডিএমকে মুখ্যমন্ত্রী করুণানিধির মেয়ে কানিমোড়ির দিকে, যিনি একটি তামিল টিভি চ্যানেলের অন্যতম মালিক৷ সেখানেও টু-জি স্পেকট্রামের দুর্নীতির গন্ধ৷

ডিএমকের সঙ্গে টানাপোড়েনের পরিস্থিতিতে এমন কথা শোনা যাচ্ছে ডিএমকে জোট ছাড়লে সরকারের স্থায়িত্ব রাখতে কংগ্রেস কী করবে ? মুলায়ম সিং-এর সমাজবাদী পার্টি আগ বাড়িয়ে অভয় দিয়েছে৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়