1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

কংগ্রেসে ওবামার পরাজয় ও ভারত-মার্কিন সম্পর্ক

ওবামার আসন্ন ভারত সফরের তিনদিন আগে, মার্কিন প্রতিনিধিসভায় ডেমোক্র্র্যাটিক দল সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোর ফলে ভারত-মার্কিন সম্পর্কের ওপর তার ছায়া পড়বে কিনা, তা নিয়ে নতুন দিল্লির রাজনৈতিক অলিন্দে জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়ে গেছে৷

default

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা

মার্কিন কংগ্রেসের প্রতিনিধিসভায় ডেমোক্র্র্যাটিক দলের পরাজয়কে ওবামার আর্থিক নীতির ওপর গণভোট বলে মনে করছে ভারত৷ মন্দা জর্জরিত মার্কিন অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার যে অঙ্গীকার করেছিলেন ওবামা, তা ঠিকমত পালিত না হওয়ায় জনগণ যে হতাশ, এটা তারই প্রতিফলন৷ ওবামা সরকারের আর্থিক নীতির কয়েকটি বিষয় ভারতের কাছে উদ্বেগের কারণ হয়ে উঠেছে৷ যেমন, আউটসোর্সিং-এর রাস্তা বন্ধ করা, এইচ-ওয়ান ভিসা ফি বাড়ানো ইত্যাদি৷

এই প্রসঙ্গে রাজনৈতিক বিশ্লেষক পরাঞ্জয় গুহঠাকুরতা ডয়চে ভেলেকে বলেন, ওবামার ডেমোক্র্র্যাটরা যে দুর্বল হবে, সেটা অনেকেই ধরে নিয়েছিল৷ ফলাফলে সেটা পরিষ্কার হলো৷ তবে তিনি মনে করেন না, এতে ভারত-মার্কিন আর্থিক সম্পর্কে কোন ইতরবিশেষ হবে৷ওবামা আসার আগে যা ছিল, তাই থাকবে৷ হয়ত উনিশ-বিশ হতে পারে৷ উন্নতি বা অবনতি কোনটাই তেমন দেখছিনা বলে মন্তব্য করেন তিনি৷

US-Wahlen 2008 Barack und seine Familie auf der Wahlparty in Chicago

২০০৮’এ নির্বাচন জিতে সপরিবারে বারাক ওবামা

তাঁর মতে,মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মনে করে, চীন যেভাবে আর্থিক উন্নতি করছে তার পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে ভারতকেও আর্থিক দিক থেকে চীনের সমকক্ষ শক্তি করে তুলতে হবে৷ সেজন্য ভারতের বাজার আরো খুলে দেবার জন্য চাপ দিচ্ছে ওবামা প্রশাসন৷ যুক্তরাষ্ট্র চায় ভারত ও চীন একে অপরের প্রতিদ্বন্দ্বী হোক, সহযোগী নয়৷এক কথায়, সেই পুরানো নীতি, ডিভাইড এন্ড রুল৷ শাসন করো ভাগ করে শাসন করো৷ তবে সেটা কতদূর করা যাবে সেটা অন্যকথা৷

আউটসোর্সিং-এ ভারতের ছেলেমেয়েরা যুক্তরাষ্ট্রের চাকরির বাজার দখল করছে, এটা বাস্তব হলেও বেশ জটিল৷মার্কিন কোম্পানিগুলির মুনাফা কিন্তু এতে বাড়ছে৷ যেসব কাজ অ্যামেরিকানরা সাধারণত করতে চায়না সম্মানজনক নয় বলে সেগুলো ভারত থেকে করিয়ে নিচ্ছে কম খরচে, বলেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক পরাঞ্জয় গুহঠাকুরতা৷

ওবামার ডেমোক্র্র্যাটদের পাকিস্তান-আফগান নীতিও ভারতের অস্বস্তির আরেকটা কারণ৷ হালে পাক-মার্কিন কৌশলগত সংলাপ, ২০০ কোটি ডলার আর্থিক সাহায্য দেয়া,পাকিস্তানী সেনাদের ওপর ক্রমবর্ধমান নির্ভরতা তারই অঙ্গ৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক