1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘ওয়ার্ল্ড ডক্টর্স অর্কেস্ট্রা' – একটি প্রশংসনীয় দৃষ্টান্ত

সংগীত শুধু মানুষের মনোরঞ্জনই করে না, করতে পারে আরো অনেক কিছু৷ ‘ওয়ার্ল্ড ডক্টর্স অর্কেস্ট্রা' সেটাই প্রমাণ করেছে৷ বছরে দুইবার এই শিল্পীগোষ্ঠীর ১০০ সদস্য তাদের অ্যাপ্রোন খুলে পরেন অনুষ্ঠানের পোশাক৷

ইন্টারনিস্ট ও সংগীত নির্দেশক স্টেফান ভিলিশের পরিচালনায় প্রতিবছর সারা বিশ্বের সংগীতপ্রেমী ডাক্তাররা মিলিত হন৷ পরিবেশন করেন কনসার্ট৷ অনুষ্ঠান থেকে যে অর্থ পাওয়া যায় তা চিকিত্সকরা নিজের পকেটে ভরেন না৷ চিকিত্সা প্রকল্পগুলির কাজে লাগান৷

একটি অসাধারণ উদ্যোগ

এই অসাধারণ উদ্যোগটি গড়ে তোলেন বার্লিনের ডাক্তার স্টেফান ভিলিশ৷ সংগীতের প্রতি তাঁর ভালোবাসা অনেক আগে থেকেই৷ ছেলেবেলাতেই বেহালা বাজানো শেখেন তিনি৷ এরপর শেখেন পিয়ানো ও সংগীত নিরদেশনা৷ স্কুল শেষ করে সংগীত নিয়ে পড়াশোনা করেন স্টেফান ভিলিশ৷ সেই সময় হঠাৎ তাঁর মনে হয়, ‘‘আমি যদি সংগীতকে পেশা হিসাবে নেই, তাহলে এই শিল্পের প্রতি আবেগটা হারিয়ে ফেলবো৷''

ভিলিশ তাই দ্রুত সিদ্ধান্ত নেন, শুরু করেন ডাক্তারি পড়া৷ এরপর গড়িয়ে গেছে বেশ কয়েক বছর৷ এখন তিনি বার্লিনের শারিটে ক্লিনিকে ইন্টারনিস্ট হিসাবে কাজ করছেন৷ অবসরে চালিয়ে যাচ্ছেন সংগীত চর্চা৷ একদিন লক্ষ্য করেন, অনেক সহকর্মীও অবসরে সংগীত সাধনা করেন৷ আর তাই মাথায় খেলে যায় এক আইডিয়া৷ ২০০৭ সালে গড়ে তোলেন ‘ওয়ার্ল্ড ডক্টর্স অর্কেস্ট্রা'৷ এতে সম্পৃক্ত করেন সারা বিশ্বের আগ্রহী সংগীতপ্রেমী ডাক্তারদের৷ ২০০৮ সালে বার্লিন ফিলহারমোনিকে প্রথম কনসার্টটি পরিবেশন করা হয়৷

World Doctors Orchestra

কনসার্টে পাওয়া অর্থ দিয়ে একটি আঞ্চলিক ও একটি আন্তর্জাতিক প্রকল্পকে সহায়তা করা হয়

২০০৯ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত শিল্পীদের এই দলটি অ্যামেরিকা, আর্মেনিয়া, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকায় সংগীত পরিবেশন করে৷ এছাড়া বার্লিনে তো প্রতিবছরই একটি চ্যারিটি কনসার্ট করছে এই ঐকতান বাদকদল৷

জনকল্যানটা মুখ্য বিষয়

স্টেফান ভিরিশের কাছে এক্ষেত্রে জনকল্যানটা মুখ্য বিষয়৷ কনসার্টে পাওয়া অর্থ দিয়ে একটি আঞ্চলিক ও একটি আন্তর্জাতিক প্রকল্পকে সহায়তা করা হয়৷ এছাড়া ‘ওয়ার্ল্ড ডক্টর্স অর্কেস্ট্রা' উন্নয়নশীল দেশগুলির চিকিত্সা ব্যবস্থার ব্যাপারে জনসাধারণকে সচেতন করতে চায়৷ তাদের দানের হাত প্রসারিত করাতে চায়৷ আজ ডাক্তার-শিল্পীদের এই দলটিতে ৪০টি দেশের ৭০০ সদস্য রয়েছেন৷ পাঁচ ভাগের এক ভাগই জার্মান সদস্য৷

অনুষ্ঠানে সারা বিশ্ব থেকে ডাক্তাররা অংশগ্রহণ করেন বলে পরিকল্পনা ও প্রস্তুতির জন্য বেশ সময় লাগে৷ ‘‘কোথায়, কখন এবং কোন সংগীত পরিবেশন করা হবে সে ব্যাপারে ‘চিকিত্সক-শিল্পী'-দের অনেক আগে থেকেই জানানো হয়৷ কয়েক সপ্তাহ কখনও বা কয়েক মাস আগে থেকেই আমরা এশিয়া, আফ্রিকা কিংবা অ্যামেরিকার অংশগ্রহণকারীদের সংগীতের স্বরগ্রাম পাঠিয়ে থাকি৷ যাতে তাঁরা চর্চা করতে পারে'', বলেন স্টেফান ভিরিশ৷

অনুশীলনের জন্য কম সময়

অবশেষে যে শহরে কনসার্ট পরিবেশন করা হবে, সেখানে শিল্পী ডাক্তাররা একত্রিত হন৷ একসাথে অনুশীলনের জন্য সময় বেশি থাকে না৷ তবে এটা কোনো সমস্যা নয়৷ বলেন সংগীত নির্দেশক স্টেফান ভিরিশ৷ ‘‘ডাক্তাররা কঠোর পরিশ্রম করতে অভ্যস্ত৷ আর আমরা সংগীত ভালোবাসি বলে বিষয়টিকে কোনো কাজ মনে হয় না৷''

Zwei Frauen machen eine Musiktherapie

২০০৯ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত শিল্পীদের এই দলটি অ্যামেরিকা, আর্মেনিয়া, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকায় সংগীত পরিবেশন করে

স্টেফান ভিরিশ ব্যাখ্যা করে জানান, কেন অনেক ডাক্তার সংগীত চর্চা করেন৷ চিকিৎসা ও সংগীত এই দুটি ক্ষেত্রই সূক্ষ্ম কাঠামোর ওপর গড়ে ওঠে৷ দুই জায়গাতেই কাজ করতে হয় আবেগ, আত্মনিষ্ঠা ও দরদ দিয়ে৷ এছাড়া পেশাগত জীবনে রোগ ও মৃত্যু নিয়ে কাজ করতে হয় বলে অনেক চিকিত্সক সংগীতের মাঝে প্রশান্তি খুঁজে পান৷

চিকিত্সা ক্ষেত্রেও সংগীতের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে৷ স্টেফান ভিরিশের মতে মিউজিক থেরাপি আবার পুনরুজ্জীবিত হচ্ছে৷ এই থেরাপির মাধ্যমে কোনো কোনো অসুখকে আয়ত্তে আনা যায়৷ যেমন ক্লাসিকাল সংগীত উচ্চরক্তচাপ কমায়৷ ডিমেনশিয়ায় আক্রান্ত মানুষরা ভাষা হারিয়ে গেলেও সংগীতের মাধ্যমে বহুদিন বাইরের বিশ্বের সঙ্গে যোগাযোগটা রাখতে পারেন৷ ভিরিশের বিশ্বাস ভবিষ্যতে সংগীত থেরাপিকে আধুনিক চিকিত্সায় সম্পৃক্ত করা যাবে৷

এই বছরের বেটোফেন উৎসব উপলক্ষ্যে ‘ওয়ার্ল্ড ডক্টর্স অর্কেস্ট্রা' একটি চ্যারিটি শো করেছে৷ টিকিট বিক্রির অর্থ জার্মান দন্ত চিকিত্সকদের উদ্যোগ ‘ডেন্টিস্টস ফর আফ্রিকা' প্রকল্পে কাজে লাগানো হবে৷ এছাড়া সহায়তা করা হবে বন ইউনিভার্সিটি ক্লিনিকের শিশু বিভাগকে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন