1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

‘ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ’ বিষয়ক গবেষণায় মডেল জার্মানি

‘ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ’ শুনলেই মনে হয় কোন অদ্ভুত জায়গায় প্রাচীন কোন স্থাপনা হবে নিশ্চয়৷ তবে এখন এই ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ বিষয়েই মাস্টার্স এবং ডক্টরেট করার সুযোগ রয়েছে৷ এই সুযোগ করে দিচ্ছে জার্মানির একটি বিশ্ববিদ্যালয়৷

বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যসব শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা যখন গ্রীষ্মের ছুটি কাটাচ্ছেন, অধ্যাপক মারি-থেরেস আলবার্ট এর ছোট্ট দপ্তরটি তখনও মানুষজনে গমগম করছে৷ তিনি ব্যস্ত একটি ‘সামার একাডেমী' মানে গ্রীষ্মকালীন কোর্স আয়োজনের প্রস্তুতি নিয়ে৷ বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে শিক্ষার্থীরা এই কোর্সে অংশ নিতে আসার পরিকল্পনা করছেন৷

জার্মানির পূর্বাঞ্চলের ছোট্ট শহর কোটবুস, পোলিশ সীমান্তের খুব কাছেই৷ সেখানে কালচারাল ও ন্যাচারাল হেরিটেজ বিষয়ে মাস্টার্স করছে ১১৩ জন এবং ডক্টরেট করছে আরও ১৩ জন শিক্ষার্থী৷ তাদেরই একজন চীনা ছাত্র চি মেং ওং৷ কিছুদিন আগে তিনি তাঁর পিএইচডি থিসিস আলবার্ট এর দপ্তরে জমা দিয়েছেন৷ তাঁর গবেষণার বিষয় ‘'সিঙ্গাপুরে ভারতীয় নাচের গুরুত্ব৷' ভারতীয় নাচের উপর ওং এর এই গবেষণা ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ স্টাডিজ বিভাগের মৌলিক কাজগুলোর একটি দৃষ্টান্ত৷ কোটবুসে আসার আগে সিঙ্গাপুরে নৃত্যশিল্পী হিসেবে কাজ করছিলেন ওং৷ তিনি বলেন, ‘‘একজন নৃত্যশিল্পী শুধুমাত্র তাঁর নিজের সংস্কৃতির প্রতিনিধিত্ব করেন না, বরং নাচের মধ্য দিয়ে তিনি সাংস্কৃতিক, জাতীয় এবং জেন্ডার এর গণ্ডিকেও ছাড়িয়ে যান৷''

Studium am UNESCO-Lehrstuhl World Heritage der BTU Cottbus-Senftenberg Student Chee Meng Wong zugeliefert von: Claudia Unseld copyright: BTU Cottbus-Senftenberg

চীনা ছাত্র চি মেং ওং

অর্থায়ন একটি বড় বিষয়

সিঙ্গাপুর থেকে কোটবুসের মতো ছোট্ট শহরে আসার ব্যাপারটা হয়তো একটু অস্বাভাবিক মনে হতে পারে৷ তবে ওং একা নন, বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে সংস্কৃতি বিশেষজ্ঞ ও সংস্কৃতিপ্রেমীরা বেশ কয়েক বছর ধরে কোটবুসে পাড়ি জমাচ্ছেন৷ কারণ ১৯৯৯ সালে ব্রান্ডেনবুর্গ টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ ডিগ্রি প্রোগ্রাম চালু করেছে৷ আর ২০০৩ সাল থেকে এই প্রোগ্রাম এর পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন অধ্যাপক মারি-থেরেস আলবার্ট৷ জার্মানিতে ইউনেস্কো'র ১০টি অফিসিয়াল বিভাগের মধ্যে এটি একটি৷

আলবার্ট তাঁর এই বিভাগটির জন্য ইউনেস্কো'র স্বীকৃতি পেতে কঠিন পরিশ্রম করেছেন৷ এক্ষেত্রে অর্থনৈতিক সহায়তার বিষয়টিও কম গুরুত্বপূর্ণ ছিল না৷ তিনি এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘ইউনেস্কো প্রফেসরশিপ-এর জন্য অর্থ সংস্থানের ব্যবস্থা নিজেকেই করতে হয়৷ প্রকল্প শুরু করতে হলে তৃতীয় কোনো উৎস থেকে অর্থ পাওয়ার প্রমাণটাও দিতে হয়৷''

অগ্রণী থেকে মডেল

জার্মানির এই টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে এই ধরনের একটি বিষয়ে উচ্চ গবেষণা ও ডিগ্রি প্রোগ্রাম চালু করতে মারি-থেরেস আলবার্টকে বহু বছর অক্লান্ত প্রচেষ্টা চালাতে হয়েছে৷ তিনি জানান, প্রায়ই তাঁকে সমালোচনা শুনতে হয়েছে তাঁর এই ‘ক্রেজি' বা উদ্ভট আইডিয়া'র জন্য৷

তবে এখন এই প্রোগ্রামকে মডেল হিসেবে দেখা হচ্ছে৷ আর কোটবুস এই ক্ষেত্রে অগ্রদূতে পরিণত হয়েছে৷ আলবার্ট এর ভাষায়, ‘‘এখন আমি যেখানেই যাই না কেন, আমাকে সবসময় শুনতে হয়, ওহ, তুমি কোটবুস থেকে এসেছ৷'' তিনি আরও বলেন, ‘‘আমরাই প্রথম ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ বিষয়ে প্রথম মাস্টার্স প্রোগ্রাম চালু করেছিলাম৷ এবার আমরাই প্রথম এই বিষয়ে ডক্টরেট প্রোগ্রাম চালু করেছি৷''

সাংস্কৃতিক ঐশ্বর্য

আইকে শ্মেট এই প্রোগ্রামের কয়েকজন জার্মান শিক্ষার্থীদের একজন৷ ২৬ বছর বয়সি এই ছাত্র ছোট্ট শহর গসলার থেকে এসেছেন৷ তিনি ইতিমধ্যে তাঁর প্রথম কলেজ ডিগ্রি শেষ করেছেন৷ চার সেমিস্টার-এর এই মাস্টার্স প্রোগ্রাম-এর জন্য এটি একটি শর্ত৷ উল্লেখ্য, কোটবুসের সব কোর্সই ইংরেজি ভাষায়৷

ARCHIV - Die Wasserspiele unterhalb des Herkules im Bergpark Wilhelmshöhe in Kassel (Hessen), Aufnahme vom 05.06.2013. Der Bergpark mit der Herkulesfigur und den Wasserspielen ist Teil des Antrags zum Unesco-Weltkulturerbe. Foto: Uwe Zucchi/dpa (Zu dpa: «Welterbetagung in Kambodscha - Kassels Herkules auf Tagesordnung» vom 16.06.2013) +++(c) dpa - Bildfunk+++

জার্মানির ভিলহেল্মসহ্যোয়ের ‘ব্যার্গ পার্ক’ বা পাহাড়ি পার্ক

শ্মেট এর কাছে সবচেয়ে মজার বিষয় হল বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ধারা থেকে আসা সহপাঠীদের সাথে নিজের মত ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করা৷

এই বিষয়ের অন্যতম প্রধান অংশ হল - অন্য শিক্ষার্থীদের বুঝতে শেখা - এবং ভিন্নমতকে কোন হুমকি নয়, বরং সুযোগ হিসাবে দেখা৷ মারি-থেরেস আলবার্ট তাঁর ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে আলোচনা চালিয়ে যেতে কখনও ক্লান্ত হন না৷ তিনি বলেন, ‘‘ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ হল ঐশ্বর্য, এবং ঐশ্বর্যই হলো বৈচিত্র্য৷ আমরা এই শিক্ষা কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে সেটিই অর্জন করতে চাই৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন