1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ওবামার প্রতি ‘রোহিঙ্গা' নামটি উচ্চারণের আহ্বান

রোহিঙ্গা শব্দটি অনেকের কাছেই পরিচিত৷ মিয়ানমারে নির্যাতন, নিপীড়নের শিকার অনেক রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছেন বাংলাদেশে৷ এবার তাদের জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রতি এক বিশেষ অনুরোধ এসেছে টুইটারে৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা আগামী ১২ নভেম্বর বুধবার মিয়ানমার সফর করবেন৷ এসময় সেদেশের প্রেসিডেন্ট থেইন সেইনের সঙ্গে সাক্ষাতের কথা রয়েছে তাঁর৷ ওবামার এই সফরকে কেন্দ্র করে টুইটারে ইংরেজিতে #রোহিঙ্গা এবং #জাস্টসেদেয়ারনেম হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে শুরু হয়েছে এক ব্যতিক্রমী প্রচারণা৷

টুইটারে একাধিক ব্যক্তি দাবি করেছেন, রোহিঙ্গাদের স্বীকৃতি দিতে অনিচ্ছুক মিয়ানমার সরকার৷ এমনকি ‘রোহিঙ্গা' নামটি যাতে আন্তর্জাতিক স্তরে উচ্চারিত না হয় সেই চেষ্টাও করছে সেদেশ৷ তাই টুইটারে প্রচারণায় অংশ নেয়াদের দাবি হচ্ছে, প্রেসিডেন্ট ওবামা যাতে সেইনের সঙ্গে আলাপকালে রোহিঙ্গা নামটি উচ্চারণ করেন৷

টুইটারভিত্তিক অনলাইন ক্যাম্পেইনে দাবি করা হয়েছে, দশকের পর দশক ধরে মিয়ানমারে বসবাস করলেও এক দশমিক তিন মিলিয়ন রোহিঙ্গাকে এখনো ‘বিদেশি' হিসেবে বিবেচনা করছে মিয়ানমার সরকার৷ তাদেরকে অবৈধ ‘বাঙালি' অভিবাসী মনে করছে সেদেশ ৷ ফলে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগিরকত্ব পাচ্ছেন না৷ এমনকি কাজ করতে চাইলে, নির্দিষ্ট গণ্ডির বাইরে যেতে চাইলে কিংবা বিয়ে ও সন্তান ধারণ করতে চাইলেও তাদের সরকারের অনুমতির প্রয়োজন হয়৷

দোহাভিত্তিক আল-জাজিরার কলাম লেখক খালেদ বে টুইটারে জানিয়েছেন, প্রতিদিন গড়ে নয়শো রোহিঙ্গা মুসলিম নির্যাতনের শিকার হয়ে দেশ ছাড়তে বাধ্য হচ্ছেন৷ অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তারা আশ্রয় নিচ্ছে বাংলাদেশে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়