1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘ওবামার নোবেল পুরস্কার ও মধ্যপ্রাচ্যে তার প্রতিচ্ছবি’

গাজায় হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েল৷ নিহতের সংখ্যা পাঁচশ ছাড়িয়েছে৷ এই হামলা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দার ঝড় উঠেছে৷ সেই সাথে চলছে প্রতিবাদ৷

সামহয়্যারইন ব্লগে এএমএম নিজাম লিখেছেন মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি স্থাপনে ওবামার ভূমিকা নিয়ে৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘আল কায়দা, ওসামা বিন লাদেন, ইরাক ইত্যাদি ইস্যুতে জড়িয়ে যুক্তরাষ্ট্র তথা পুরো বিশ্বে বুশ যখন একজন ঘৃণার পাত্র হয়ে দাঁড়ালেন ঠিক তখনই প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশের মানুষ নির্বাচিত করলো যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে৷ বারাক হোসেন ওবামা নির্বাচিত হওয়ায় সত্যি তখন মুসলিম বিশ্ব একটু সস্তির নিশ্বাস ফেলেছিল৷''

নিজাম লিখেছেন, ‘‘মুসলমানদের সবচেয়ে বড় আশা ছিল যে, বারাক ওবামা হয়তো ১৯৪৮ সালে জাতিসংঘ যে বানরের রুটি ভাগ করার মতো ফিলিস্তিনের ভূখণ্ড থেকে ৫৫ শতাংশ ইসরায়েলকে দিয়েছে, বাকিটা ফিলিস্তিনের জন্য রেখেছে, তার ব্যাপারে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন৷ সেই আশায় ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস নিরাপত্তা পরিষদে ও সাধারণ অধিবেশনে তাদের স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার আবেদন করেছিল৷ কিন্তু সেখানে আমাদের শান্তিপ্রিয় ওবামা মহোদয় ভেটো প্রদান করলেন৷ এখন আবার যখন ইসরায়েল ফিলিস্তিনের নিরপরাধ জনগণের উপর নির্বিচারের গোলাবর্ষণ করে প্রায় ৫০০ জনকে হত্যা করলো, যার ৫০ ভাগই শিশু ও মহিলা, ঠিক তখন আমাদের শান্তিতে নোবেল পাওয়া ওবামা বললো, ইসরায়েলের অধিকার রয়েছে তাদের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার এবং হামাসকে জবাব দেওয়ার৷''

একই ব্লগে আব্দুর রব প্রান্ত লিখেছেন, গাজা ইস্যুতে ফেসবুক এখনো সরগরম৷ চলছে তর্ক বিতর্ক, চায়ের টেবিলে ঝড়৷ অনেকেই আবার ইসরায়েলি পণ্য বর্জনের ডাক দিচ্ছেন! ইসরায়েলি পণ্য বর্জনের জন্য আবার মানববন্ধনও হচ্ছে!৷ তাঁর প্রশ্ন, ‘‘এসব করে লাভটা কি?'' তিনি লিখেছেন, ‘‘আপনি ইসরায়েলি পণ্য বর্জনের ডাক দিচ্ছেন, ওদিকে আপনার সন্তান লেইস চিপ্স খাচ্ছে, কোকাকোলা কিংবা পেপসি খাচ্ছে৷ আপনার স্ত্রী হয়তো বাজার থেকে ইসরায়েলি নুডুলস কিনে আনছেন৷'' তাঁর মতে, ‘‘আমরা মুখে যতই বড় বড় বুলি ছাড়ি না কেনো আমরা তা কাজে লাগাতে পারিনা৷''

প্রান্ত লিখেছেন, ‘‘এই গ্লোবালাইজেশনের যুগে কোনো বিদেশি পণ্য ত্যাগ করে যেমন আমরা চলতে পারবো না, তেমনি আমদের পণ্যও বিশ্ববাজারে না গিয়ে চলতে পারবে না৷... মুসলিম দেশগুলোর আজ একতার অভাব৷ আজ যদি বিশ্বের সকল মুসলিম দেশ এক হয়ে ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়ায় তাহলে ইসরায়েলের কোনো ক্ষমতা নেই কিছু করার৷''

সংকলন: অমৃতা পারভেজ

সম্পাদনা: জাহিদুল হক

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়