1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ওবামাকে নিয়ে ইন্দোনেশিয়ায় ছবি

ইন্দোনেশিয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ছেলেবেলা নিয়ে একটি ছবির প্রথম প্রদর্শন হল বুধবার জাকার্তায়৷ বৃহস্পতিবার ছবিটি সাধারণ দর্শকদের জন্য মুক্তি পাচ্ছে সারা ইন্দোনেশিয়ায়৷

Obama in Childhood

শিশুকালে ওবামা

ছবির নাম ‘ওবামা আনাক মেনটেং' অর্থাৎ মেনটেঙের শিশু ওবামা৷ রাজধানী জাকার্তার উপকন্ঠে মেনটেং এলাকায় ১৯৬৭ সাল থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত বারাক ওবামার ছেলেবেলা কেটেছে মা ও তাঁর ইন্দোনেশিয় সৎ বাবার সঙ্গে৷

ছবির সহপরিচালক ডেমিয়েন ডেমাত্রা বলেন, এই ছবিতে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে যেভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, তা হয়তো অ্যামেরিকার জনগণের কাছে অন্যরকম মনে হবে৷ দর্শকরা দেখবেন সম্পূর্ণ ভিন্ন একটি জগতে বসবাস করছেন বারাক ওবামা৷ সেই জগতে তিনি চিকেন সাতে খাচ্ছেন, কোন হ্যামবার্গার নয়৷

ছবিটি মূলত তৈরি করা হয়েছে সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে৷ সাক্ষাৎকার নেয়া হয়েছে সেই সময়কার প্রতিবেশীদের যারা বারাক ওবামাকে খুব কাছ থেকে দেখেছেন৷ ডেমিয়েন-এর দাবি, ছবির শতকরা ৬০ শতাংশ সত্য ঘটনার ওপর ভিত্তি করে তৈরি আর মাত্র ৪০ শতাংশ কল্পনা৷

obama was in this school

জাকার্তার এই স্কুলেই ওবামা কাটিয়েছেন তাঁর শৈশব

দর্শকদের মন্তব্য

ছবির প্রিমিয়ার শো-তে দর্শকের সারিতে উপস্থিত ছিলেন ফিতরিয়াহ সারি৷ তিনি জানান, বেশ আন্তরিকভাবেই বারাক ওবামাকে তুলে ধরা হয়েছে৷ ছবিতে দেখানো হয়েছে, অনেক সময় শুধু ‘দুঃখিত' বললেই অনেক সমস্যার সহজ সমাধান বের হয়ে যায়৷ হাত পাকিয়ে, চোখ লাল করে শুধু সংঘাত আর সংঘর্ষই বাড়ে৷

আরেক দর্শক আসমুল খায়রি, ছবিটিকে ‘খুবই ইন্টারেস্টিং' বলে আখ্যায়িত করেন৷ তিনি বলেন, ছবিতে দেখানো হয়েছে খুব সহজ, সরল বারাক ওবামাকে৷ যিনি ধনী-দরিদ্র নির্বিশেষে সবার সঙ্গে মিশছেন৷ ধর্ম কোন বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে না৷ সবার সঙ্গেই তিনি সহজভাবে মিশছেন, বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন সবার প্রতি৷

শিশু ওবামার ভূমিকায় যে বালক

কে ওবামার মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন ? ১২ বছর বয়সি মার্কিন নাগরিক হাসান ফারূক আলী৷ ছবিতে তাঁকে সবসময়ই ডাকা হয়েছে ‘ব্যারি' বলে৷ কারণ, বারাক ওবামাকে তাঁর স্কুলের সহপাঠিরা এই নামেই ডাকতো৷

আলীর জীবনও শুরু হয়েছে ওবামার মতই৷ জন্ম অ্যামেরিকায়৷ বাবা-মা ভিন্ন দু'টি দেশের৷ অ্যামেরিকা থেকে তারা এসেছেন ইন্দোনেশিয়ায়৷ সেখানেই তারা বসবাস করছেন৷ ওবামা ছেলেবেলায় ইন্দোনেশিয়ার ভাষা এবং ইংরেজি – দুটি ভাষাতেই অনর্গল কথা বলতে পারতেন৷ আলীও এর ব্যতিক্রম নয়৷

ছবিটির দৈর্ঘ্য ১০০ মিনিট৷ তৈরি করতে খরচ হয়েছে এক মিলিয়ন ডলার৷ আগামী নভেম্বর মাসে বারাক ওবামা ইন্দোনেশিয়া সফরে আসবেন৷ সহপরিচালক, ডেমিয়েন বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট ওবামা যদি এই ছবিটি দেখেন তাহলে, কিছুক্ষণের জন্য হলেও তিনি হারিয়ে যাবেন তাঁর শৈশবে৷' আন্তর্জাতিকভাবে ছবিটি সেপ্টেম্বর মাসে মুক্তি পাওয়ার কথা৷

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: আবদুল্লাহ আল-ফারূক