1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানিতে উচ্চশিক্ষা

ওপেন ইউনিভার্সিটি পছন্দের তালিকায় প্রথম

গত বছর থেকে ব্রিটেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিউশন ফি বাড়ানো হয়েছে৷ প্রায় ১১ হাজার ইউরো দিতে হবে দেশি ছাত্র-ছাত্রীদের৷ আর বিদেশী ছাত্র-ছাত্রীদের দিতে হবে ৩০ হাজার ইউরো৷

Mother and baby in home office with laptop and telephone © Monkey Business - Fotolia.com, Undatierte Aufnahme, Eingestellt 17.02.2011

ওপেন ইউনিভার্সিটির দূর শিক্ষণ শিক্ষা কার্যক্রম অনেকের প্রথম পছন্দ

বর্তমানে যা খরচ তার তিনগুন বেশি খরচ বাড়বে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়াদের জন্য৷ আর আর্থিক সঙ্কট এড়াতে অনেক ছাত্র-ছাত্রী ওপেন ইউনিভার্সিটিতে পড়াশোনার প্রতি ঝুঁকে পড়েছে৷

ব্রিটেনে শিক্ষাঋণ নিয়ে পড়াশোনা করার সুযোগ রয়েছে৷ যে কোন ছাত্র-ছাত্রী ঋণ নিয়ে পুরো টিউশন ফি জমা দিতে পারে৷ পড়াশোনা শেষে চাকরি পেলে ধীরে ধীরে তা শোধ করা হয়৷ তবে ১১ হাজার ইউরোর ঋণে কেউ পড়তে চাচ্ছে না৷ তাই বিকল্প পতে পড়াশোনা শেষ করতে আগ্রহী তরুণ-তরুণীরা৷ ওপেন ইউনিভার্সিটির দূর শিক্ষণ শিক্ষা কার্যক্রম এক্ষেত্রে সবার প্রথম পছন্দ৷

ছাত্রী জুলিয়েট রবার্টস জানাল,‘‘আমি চেষ্টা করছি আমার শিক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে কারণ আমি একটি বিষয় নিয়ে চিন্তিত৷ আমার স্টাডি ম্যানুয়ালের নতুন একটি চ্যাপটার নিয়ে আমি ব্যস্ত আছি৷''

ইন্টারনেটে বসে ক্লাশ করা

২৩ বছর বয়স্ক দূর শিক্ষণের ছাত্রী জুলিয়েট রবার্টস জানাল, কীভাবে তিনি শিক্ষক এবং অন্যান্য ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন৷ জুলিয়া পড়াশোনা করছেন ওপেন ইউনিভার্সিটিতে৷ জুলিয়েট বলল,‘‘আমি ইন্টারনেটের সাহায্যে স্টুডেন্ট ফোরামে অংশগ্রহণ করতে চাচ্ছি৷ একটি ইমেলের মাধ্যমে আমাকে তা জানাতে হবে৷ আমি দেখতে পাবো ফোরামে পরিচিত কেউ আছে কি না৷ থাকলে সেথানেই পড়াশোনার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো৷''

ওপেন ইউনিভার্সিটিতে যারা ভর্তি হয়েছে তাদের সবার বয়স ২৫-এর নিচে৷ জুলিয়া জানালো, অনেকেই পড়াশোনার পাশাপাশি কাজও করছে৷ অন্য কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে এত পয়সা খরচ করে কেউই পড়াশোনা করতে আগ্রহী নয়৷ বিশেষ করে যেভাবে টিউশন ফি বাড়ছে তাতে পড়াশোনা অনেকের ধরা-ছোঁয়ার বাইরে চলে যাচ্ছে৷

যখন এই বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রথম খোলা হয় তখন ধরে নেয়া হয়েছিল যারা ভর্তি হবে তাদের বয়স ৩০-এর নীচে হবে না৷ অথচ বাস্তবে দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র৷ কোর্সের সব প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র ডাকযোগে ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হবে৷ আর বাকি কাগজগুলো ইমেলের মাধ্যমে পৌঁছে যাবে ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে৷

একা একা পড়াশোনা কি বিরক্তিকর?

জুলিয়েট পড়াশোনা করছে মনোবিজ্ঞান নিয়ে৷ সে জানাল, ইন্টারনেটের কারণে তরুণ প্রজন্মের কাছে পড়াশোনা অনেক সহজ হয়ে উঠেছে৷ জুলিয়েট বলল,‘‘আমি প্রথমে মনে করেছিলাম বাড়িতে একা একা পড়াশোনা করবো৷ কিন্তু কেমন লাগবে? কিন্তু অনলাইনে এত ফোরাম, পড়াশোনার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার অনেক সুযোগ৷ আর সারা সপ্তাহেই কোন না কোন বিষয় নিয়ে টিউটোরিয়াল ওয়ার্ক হচ্ছে৷ আসলে অনেক ছাত্র-ছাত্রীর সঙ্গে এভাবে যোগাযোগ করা সম্ভব৷ নিজের স্টাডি গ্রুপের বাইরে ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে পরিচিত হওয়া যায়৷ আর তাছাড়া যারা টিউটোরিয়াল ওয়ার্ক করায় তারা অত্যন্ত বন্ধুসুলভ, তারা সাহায্যের জন্য সবসময় প্রস্তুত৷ তাদের সঙ্গে সহজে যোগাযোগ করা যায়, যে কোন বিষয় নিয়ে নির্দ্বিধায় কথা বলা যায়৷''

ওপেন ইউনিভার্সিটির প্রাঙ্গন যে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের মতই৷ এখানে একটি ক্যাম্পাস রয়েছে৷ প্রায় ৩৮ হেক্টর জমি নিয়ে এই বিশ্ববিদ্যালয়৷ তবে পার্থক্য হল এখানে ছাত্র-ছাত্রীদের দেখা যাচ্ছে না৷ তারা পুরোপুরি অনুপস্থিত৷ প্যাট্রিক কাজ করছেন ওপেন ইউনিভার্সিটিতে৷ তিনি বললেন,‘‘এই বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় দশ লক্ষ ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনা করছে৷ অনেক ছাত্র-ছাত্রীই হয়তো একসময় সহকর্মী হবে, পরিবারের একজন সদস্য হবে, কেউ হয়তো ভবিষ্যতে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের হাল ধরবে, শিক্ষকতার সঙ্গে সম্পৃক্ত হবে৷ আমাদের এখানে বিভিন্ন বয়সের ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে৷ ইদানিং অনেকেই যে বিষয়টি স্বীকার করে তাহল, শুধু একটি ড্রিগ্রি থাকেলই চলবে না, পাশাপাশি কাজের অভিজ্ঞতা থাকা চাই৷ আর এই বিশ্ববিদ্যালয় সেই সুযোগটি দিচ্ছে৷ পড়াশোনার পাশাপাশি চাকরি৷''

১১ হাজার ইউরো বনাম ২ হাজার ইউরো

চাকরির সুবাদে অনেকের টিউশন ফি উঠে আসছে৷ ব্রিটেনে টিউশ ফি বেড়েছে৷ ওপেন ইউনিভার্সিটি ছাত্র-ছাত্রীদের কাজের পাশাপাশি পড়ার সুযোগ দিচ্ছে৷ তারা বাবা মায়ের সঙ্গে বাড়িতেই থাকছে৷

তবে অনেকের কাছে প্রতিদিন ক্যাম্পাসে যাওয়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের করিডোরে আড্ডা মারার এক ধরনের আকর্ষণ আছে৷ তবে যেভাবে টিউশন ফি বাড়ছে তাতে প্রতিটি ছাত্র-ছাত্রীকে আগামী বছর থেকে ১১ হাজার ইউরো গুনতে হবে৷ যারা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আগ্রহী তারা অনেকেই এখনই ওপেন ইউনিভার্সিটির সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেয়া শুরু করেছে৷ কারণ ওপেন ইউনিভার্সিটিতে পড়ার খরচ বছরে দুই হাজার ইউরোর চেয়েও কম৷

প্রতিবেদন: মারিন জোয়ারদার

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

নির্বাচিত প্রতিবেদন