1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ওইদিকে এক একাকী মেয়ে

রোহিত শর্মার জন্যও নগ্ন হলেন একজন৷ যা চেয়েছিলেন, নগ্ন হয়ে তা তিনি পাচ্ছেন৷ প্রচারে বেশ ‘প্রসার' হচ্ছে৷ ওদিকে পুরুষদের ভলিবল খেলা দেখতে যাওয়ায় পাঁচ মাস ধরে কারাবন্দী একটি মেয়ে৷ এ খবরের তেমন প্রচারই নেই৷

Ghoncheh Ghavami

ভলিবল ম্যাচ দেখতে যাওয়ার অপরাধে কারাবন্দী গনচে গাভামি

নগ্ন হওয়ার জন্য কিছু মডেল বা অভিনেত্রী যেন মুখিযে থাকেন৷ হতে হয়না, তার আগে, অর্থাৎ নগ্ন হবার ঘোষণা দিলেই তো অর্ধেক কাজ সারা৷ ভালো একটা ছবি, ভালো কবিতা, কিংবা অসাধারণ কোনো গানের একটুখানি প্রচারের আশায় কত লোক ঘুরে মরে, অথচ ঘরে বসে পুনম পাণ্ডে শুধু বলেন, ‘‘ভারত বিশ্বকাপ জিতলে আমি নগ্ন হবো'', অমনি হামলে পড়ে সবাই৷ নির্বাচনে মোদিকে জেতানোর জন্য অভিনেত্রী মেঘনা প্যাটেল পায়ে এক বিন্দু ধুলো লাগিয়েছেন কিনা কে জানে, তবে গায়ের কাপড় ছুড়ে ফেলে ছবি তুলেছিলেন৷ কংগ্রেস সমর্থক অভিনেত্রী, মডেল তানিশা সিংই বা পিছিয়ে থাকবেন কেন? রাহুল গান্ধীকে জেতাতে তিনিও নগ্ন হলেন৷ নির্বাচনে কংগ্রেস ডুবল৷ কিন্তু তানিশার আশা পূরণ হলো ওই এক ছবিতেই৷

পুনম, মেঘনা, তানিশাদের মিছিলে নতুন নাম সোফিয়া হায়াত৷ ওয়ানডে ক্রিকেটে রোহিত শর্মার ২৬৪ রানের রেকর্ড গড়তে লেগেছে ২২৫ মিনিট, সেই খুশিতে মডেল-অভিনেত্রী সোফিয়া্ হায়াতের নগ্ন হয়ে টুইটারে আগমনে বোধহয় পাঁচ মিনিটও লাগেনি৷

সংবাদমাধ্যম ঘেঁটে দেখুন, রোহিতের অসাধারণ ব্যাটিংয়ের খবরের সঙ্গে প্রায় মিলেমিশে গেছে সোফিয়ার নগ্নতা৷ ৩৩টি চার আর নয়টি ছক্কার প্রায় সমান্তরালে দাঁড়িয়ে সোফিয়ার ওই পাঁচ মিনিট৷

ওদিকে ইরানে পাঁচ মাস ধরে কারাবন্দী গনচে গাভামি৷ লন্ডনে আইনশাস্ত্র নিয়ে পড়াশোনা করা মেয়েটি গিয়েছিল ভলিবল ম্যাচ দেখতে৷ সরকার আগেই জানিয়ে দিয়েছিল, মেয়েরা পুরুষদের খেলা দেখতে তেহরানের আজাদ স্টেডিয়ামে যেতে পারবেনা৷ নারী সাংবাদিকরাও স্টেডিয়ামে ঢুকতে পারবেন না৷ কিছু মেয়ে তবু গিয়েছিল৷ গাভামিও ছিলেন সেখানে৷ গ্রেপ্তার করা হলো তাদের৷ কিছুক্ষণ পর কিছু না বলে ছেড়েও দেয়া হলো৷ গাভামি ভেবেছিলেন, বিপদ কেটে গেছে৷ তিন-চার দিন পর পুলিশ স্টেশনে গেলেন গ্রেপ্তারের সময় বাজেয়াপ্ত করা দরকারি জিনিসগুলো ফেরত নিতে৷ পুলিশ যেন সেই অপেক্ষাতেই ছিল৷ গাভামিকে আর বাড়ি ফিরতে দেয়া হয়নি৷ সেই ২০ জুন থেকে তাই তিনি কারাবন্দী৷ তাঁর অপরাধ? মেয়ে হয়েও ইটালি আর ইরানের পুরুষ দলের ভলিবল ম্যাচ দেখতে যাওয়া৷

প্রশাসন অবশ্য তা স্বীকার করছেনা৷ সরকারি আইনবিদ বলছেন, গাভানির বিরুদ্ধে ‘বিদেশি সংশ্লিষ্টতা'র অভিযোগ আছে৷ অভিযোগের তদন্ত চলছে৷ কিন্তু গাভানিকে নাকি কারাদণ্ড দেয়া হয়নি৷ তাহলে পাঁচ মাস ধরে কেন আটকে রাখা হয়েছে?আইনবিদের জবাব, ইরানে তদন্তের স্বার্থে যে কোনো ব্যাক্তিকে আটক করা এবং আটকে রাখার সময়সীমা প্রয়োজন অনুযায়ী বাড়ানো আইনসিদ্ধ৷

যে দেশে ধর্ষণে উদ্যত ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগে কোনো নারীকে সাত বছর আটকে রেখে ফাঁসি দেয়া হয় সে দেশে ভলিবল খেলা দেখার অপরাধে গাভামির পাঁচমাস ‘অঘোষিত কারাদণ্ড' আর এমন কি!

খবরের শিরোনামে পুনম, মেঘনা, তানিশাদের মিছিল, অনেক দূরে রিহানি, গাভানিদের বিষণ্ণ মুখ- এ-ও বা এমন কী!

নির্বাচিত প্রতিবেদন