1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

এশিয়ায় কমেছে দারিদ্র্যের হার, বেড়েছে ক্ষুধা, পুষ্টিহীনতা

বিশ্বের ক্ষুধা ও দারিদ্র্য কমানোসহ সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য বা এমডিজির অগ্রগতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে চলছে তিনদিনের অধিবেশন৷ ২০১৫ সালের মধ্যে এমডিজি বাস্তবায়নে করণীয় নিয়ে সেখানে আলোচনায় ব্যস্ত ১৪০টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা৷

default

এশিয়ার তিন কোটি শিশু শিক্ষাবঞ্চিত (ফাইল ফটো)

দারিদ্রতা কমছে, বাড়ছে পুষ্টিহীনতা

এশিয়ার অনেক মানুষ একেবারে চরম দরিদ্র অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে পেরেছে৷ সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য বা এমডিজি এক্ষেত্রে খানিকটা সফল বলা যায়৷ তবে, পুষ্টিহীনতা রোধে এশিয়ার অবস্থা সন্তোষজনক নয়৷ জাতিসংঘের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এসব তথ্য৷ সেখানে বলা হয়েছে, ১৯৯০ সালে এশিয়ার ১.৫ বিলিয়ন মানুষের প্রত্যেকের প্রতিদিনের গড় আয় ছিল ১.২৫ ডলারের নিচে৷ ২০০৫ সাল নাগাদ এই সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে প্রায় ৯৫ কোটিতে৷ এমডিজি বাস্তবায়নে এই সাফল্য উল্লেখযোগ্য হলেও এখনো বিশ্বের দুই-তৃতীয়াংশ দরিদ্র আর ক্ষুধার্ত মানুষের বাস এশিয়াতে৷ সেখানকার প্রতি ছয়জনে একজন অপুষ্টির শিকার৷ মোটের ওপর শিশুমৃত্যুর হারও বেশি আর গর্ভকালীন স্বাস্থ্য সুরক্ষায়ও এশিয়ার দেশগুলো বিশেষ সাফল্য দেখাতে পারছেনা৷

MDG Flash-Galerie

গর্ভকালীন স্বাস্থ্য সুরক্ষায়ও এশিয়ার দেশগুলো বিশেষ সাফল্য দেখাতে পারছেনা

বিশুদ্ধ পানি নেই, শিক্ষার অভাব

জাতিসংঘের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বর্তমানে যে ধারা চলছে তাতে ২০১৫ সাল নাগাদ এশিয়ায় আরো সাড়ে তিন কোটি মানুষ চরম দারিদ্র্যসীমার নিচে চলে যাবে৷ আরো নব্বই লাখ শিশু অপুষ্টির শিকার হবে৷ দক্ষ চিকিৎসক ছাড়াই জন্ম নেবে সতের লাখ শিশু৷ পর্যাপ্ত পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থার সুবিধা না পাওয়ার দলে যোগ হবে আরো সাত কোটি মানুষ৷

শুধু তাই নয়, এশিয়ায় বর্তমানে প্রায় ৪৭ কোটি মানুষ বিশুদ্ধ পানি পাচ্ছে না৷ তিন কোটি শিশু প্রাথমিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে৷ সত্তর লাখ মানুষের রয়েছে যক্ষ্মা রোগ৷

লক্ষ্য ২০১৫

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে আশার কথাও শোনানো হচ্ছে৷ বর্তমান অবস্থার উন্নতিতে আঞ্চলিক বাণিজ্য বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে৷ সেইসঙ্গে লিঙ্গবৈষম্য কমাতে হবে৷ পরিকাঠামোগত উন্নয়ন এবং সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতেও এগিয়ে আসতে হবে এশিয়ার দেশগুলোকে৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়