1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

এশিয়ার বাজারের অর্ধেকের বেশি দখল করছে স্মার্টফোন

এবার খবর এসেছে যে এশিয়ার বাজারের অর্ধেকেরও বেশি বাজার দখল করে নিচ্ছে স্মার্টফোন৷ কী করে? আসুন, সেই বিষয়টিই জেনে নেয়া যাক৷

Smartphone, E-Mail, Mobile, World, এশিয়া, স্মার্টফোন,

নানা সুযোগ সুবিধা সম্বলিত স্মার্টফোনের জনপ্রিয়তা যে দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে, তা কিন্তু বুঝে নেয়াটা আর মোটেই কষ্টকর নয়৷ বর্তমানের স্মার্টফোন সেটগুলো পারসোনাল কম্পিউটারের প্রায় অধিকাংশ অ্যাপ্লিকেশনসই রান করতে সক্ষম হচ্ছে৷ হিসাবে যদি বলা হয়, বর্তমানে ব্যবহৃত সেটগুলোর মধ্যে ছয় ভাগের মাত্র এক ভাগ ফোন সেট স্মার্টফোন, তা মোটেই ভুল হবে না – বিশেষ করে অ্যামেরিকাতে৷

বাজার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্মার্টফোন এবার দখল করে নিচ্ছে এশিয়ার বাজারের অর্ধেকেরও বেশি৷ হিসাবে দেখানো হচ্ছে, ২০১৫ সাল – অর্থাৎ মাত্র ৪ বছরের মধ্যে এ ধরণের ৪৭ কোটি ৭০ লাখ ফোন বিক্রি হবে এই বাজারে৷ আর কেবল কি মুঠোফোন সেটের উৎপাদকরাই এর ফলে লাভবান হবেন? অন্য কেউ নন? এমন প্রশ্নের উত্তরে মোবাইল ফোন সংযোগ প্রদানকারীদের প্রতি এক চিলতে হাসি হেসে বলেই দেয়া যায়, তাদেরও বিক্রিবাট্টা এর ফলে বাড়বে৷ বাজার বিশ্লেষক কোম্পানি ‘ফর্স্ট অ্যান্ড সুলিভান' জানাচ্ছে, স্মার্ট ফোন দিচ্ছে ইন্টারনেট ব্রাউজ করার এক অনবদ্য সুযোগ৷ আর এই সুযোগ যারা ব্যবহার করবেন, তাঁদের কল্যাণে ২০১৫ সাল নাগাদ মোবাইল ফোন সংযোগ প্রদান কোম্পানিগুলোর এখাতে আয় এক সঙ্গে যোগ করলে দাঁড়াবে ৩৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার৷

কেন স্মার্ট ফোন দিন দিন এতো জনপ্রিয় হচ্ছে? কারণ স্মার্টফোনে অ্যাপ্লিকেশন প্রসেসর ছাড়াও থাকে থ্রিজি নেটওয়ার্কে যুক্ত হওয়ার জন্য বিশেষ প্রযুক্তি৷ এর মধ্যে রয়েছে ব্লুটুথ, জিপিএস ফাংশন, ওয়াইফাই, হাই-মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, গ্রাফিক্স প্রসেসর, মেমোরিসহ আরও অনেক কিছু৷

এশিয়ার বাজার ধরার জন্য মোবাইল সেট নির্মাণকারী কোম্পানিগুলোকে লক্ষ্য রাখতে হচ্ছে বিভিন্ন বিষয়ের উপর – বিশেষ করে মূল্য৷ আর সব সুবিধা দিয়ে যে কোম্পানি বাজারে সস্তা অথচ টেকসই সেট বাজারে ছাড়তে পারবে, সেই নাকি লাভের খাতার পাতাগুলো দ্রুত উল্টোতে পারবে – এমনটাই বলছেন বাজার বিশ্লেষকরা৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন