1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

এশিয়ান কাপ চললেও শিরোনামে রোনালদিনিয়ো

এখনও শিরোনামে জনপ্রিয় ফুটবল তারকা রোনালদিনিয়ো৷ ফ্ল্যামেঙ্গোতে ফিরেই পেলেন বীরোচিত সংবর্ধনা৷ বুধবার ফ্ল্যামেঙ্গো স্টেডিয়ামে তাঁকে স্বাগত জানাতে ভিড় করেছিলেন প্রায় ২০ হাজার ভক্ত৷

Interview, Ronaldinho, Barcelona, Football, Sports, Qatar, Doha, Asian Cup, এশিয়ান কাপ, শিরোনাম, রোনালদিনিয়ো, কাতার, দোহা, ব্রাজিল, ফুটবল,

রোনালদিনিয়ো

বয়স এখন ৩০ এর ঘরে৷ ব্রাজিলীয় এই তারকা স্ট্রাইকার এবার ফিরে আসলেন স্বদেশের ক্লাব রিও ডি জানিরো'তে৷ মাত্র দু'দিন আগেই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে৷ ব্রাজিলের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই দলটি রোনালদিনিয়োর সাথে তাদের চুক্তির জন্য কত গুণেছে তা প্রকাশ না করলেও জানা গেছে ব্রাজিলীয় ফুটবলের ইতিহাসে এটিই নাকি সবচেয়ে ব্যয়বহুল চুক্তি৷

এছাড়া ব্রাজিলীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, রোনালদিনিয়োকে পেতে নাকি এসি মিলানকে গুণে দিতে হয়েছে ৩০ লাখ ডলার৷ বিনিময়ে ২০১৪ সালের জুন পর্যন্ত রিও ডি জানিরো ঘরে পাবে রোনালদিনিয়োকে৷ আর এসময় রোনালদিনিয়োর আয় হবে মাসে ছয় লাখ ডলার করে৷ তবে আরেকটি অঙ্ক বেশ চমকে দেওয়ার মতো৷ এমনকি ফুটবল বোদ্ধারাও চোখ কপালে তুলে বলছেন, ‘‘এই বুঝি আধুনিক ফুটবলের সব রেকর্ড!'' যাহোক একাধিক সূত্রের খবরে জানা গেল, রোনালদিনিয়ো যদি নির্ধারিত সময়ের আগে একতরফাভাবে চুক্তি ভঙ্গ করেন, তবে তাঁর জরিমানা দিতে হবে সাড়ে তেইশ কোটি ডলার৷

২০০৪ এবং ২০০৫ সালে ফিফার দৃষ্টিতে বর্ষসেরা খেতাব পান রোনালদিনিয়ো৷ গত ১০ বছর ইউরোপে কাটিয়ে এবার ফিরলেন স্বদেশে৷ তাই রোনালদিনিয়োর প্রতি ভক্তদের আগ্রহের কমতি ছিল না৷ বুধবার সকাল থেকেই স্টেডিয়ামে জড়ো হতে থাকেন ভক্তরা৷ অবশেষে মঞ্চে এসে হাজির হন প্রিয় তারকা৷ সাথে সাথে ফ্ল্যামেঙ্গো প্রেসিডেন্ট প্যাট্রিসিয়া অ্যামোরিম ঘোষণা দেন, ‘‘আমাদের রোনালদিনিয়ো৷'' তারকার জবাবও ছিল আবেগভরা৷ বললেন, ‘‘এতোটা ভালোবাসার জন্য ধন্যবাদ৷ আমি আশা করি, তার প্রতিদান দিতে পারবো৷ আমি এখন থেকে তোমাদের হয়ে থাকবো৷ আমি মেঙ্গাও৷'' উল্লেখ্য, ফ্ল্যামেঙ্গো ভক্তদের আদুরে নাম মেঙ্গাও৷ সেই শব্দটিই ব্যবহার করেন রোনালদিনিয়ো৷ আবেগে উদ্বেলিত হয়ে ওঠে গোটা স্টেডিয়াম৷

এদিকে, কাতারে চলছে এশিয়ান কাপ৷ উদ্বোধনী খেলায় উজবেকিস্তানের কাছে ২-০ গোলে হেরে হতাশায় ডুবেছিল স্বাগতিকরা৷ তবে বুধবার চীনের বিরুদ্ধে ২-০ গোলে জিতে সেই হতাশা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়েছে তারা৷ এই ঘুরে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে পুরো কৃতিত্বের দাবিদার ইউসেফ আহমেদ৷ ২২ বছর বয়সি এই স্ট্রাইকার প্রথম গোলটি করেন ২৬ মিনিটে৷ আর প্রথমার্ধের একেবারে শেষ মুহূর্তে দ্বিতীয় গোল করে বিজয়ের সম্ভাবনা আরো বাড়িয়ে দেন আহমেদ৷ ফলে এখন কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার স্বপ্ন দেখছে স্বাগতিকরা৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

ইন্টারনেট লিংক