1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘এরশাদ সবকিছু মেনে নিয়েছেন’

জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক এবং নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য ইয়াহিয়া চৌধুরী ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, নির্বাচন নিয়ে দলে মতবিরোধ থাকলেও দলের চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ এখন সবকিছু মেনে নিয়েছেন৷

দলের মধ্যে এখন আর কোনো মতবিরোধ নেই৷ জাতীয় পার্টিকে আরো শক্তিশালী করতে সাংগঠনিক তৎপরতা আরো বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি৷ ইয়াহিয়া চৌধুরী মনে করেন তাঁরা ৫ বছরের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন, তাই তাঁরা পুরো মেয়াদই দায়িত্ব পালন করতে চান৷

সিলেট-২ আসন থেকে এবারই প্রথম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন ইয়াহিয়া চৌধুরী৷ এরশাদ এবং রওশন এরশাদের খুবই কাছের বলে পরিচিতি আছে তাঁর৷ দলের যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি৷ তাই বর্তমান অবস্থায় জাতীয় পার্টির ভেতরের খবর জানতে তাঁর সাথে কথা বলে ডয়চে ভেলে৷

৫ জানুয়ারির নির্বাচন নিয়ে এরশাদ এবং রওশন এরশাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব এবং চাপের ব্যাপারে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, নির্বাচন নিয়ে মতবিরোধ ছিল সত্য, তবে এরশাদ পরে সব মেনে নিয়েছেন৷ তিনি দাবি করেন দলের অধিকাংশ নেতা এবং কর্মীরাই নির্বাচনের পক্ষে ছিলেন৷ তাই দলের চেয়ারম্যান শেষ পর্যন্ত অধিকাংশের মতকেই গুরুত্ব দিয়েছেন৷

ইয়াহিয়া চৌধুরী বলেন, বিরোধী দলে বসা এবং একই সঙ্গে মন্ত্রিত্ব নেয়ায়ও আপত্তি জানাননি এরশাদ৷ তাঁর মতে, বর্তমান সরকার ঐকমত্যের সরকার৷ তাই সরকারের সমালোচনার পাশাপাশি সহযোগিতাও করতে চায় জাতীয় পার্টি৷ ১৯৯৬ সালেও এরকম ঐকমত্যের সরকার ছিল বলে জানান তিনি৷ জাতীয় পার্টির এই নেতা বলেন, বিরোধী দল থেকে সংসদের ডেপুটি স্পিকারের দাবি বিএনপিই প্রথম তুলেছিল৷ তাঁর আশা জাতীয় পার্টি এবারের সংসদে ডেপুটি স্পিকারের পদ পাবে৷

তিনি ৫ জানুয়ারির নির্বাচনকে একতরফা বলতে নারাজ৷ তাঁর মতে, এটি বিএনপি-জামায়াতবিহীন নির্বাচন৷ তিনি মনে করেন বাংলাদেশের রাজনীতির তিনটি প্রধান পক্ষ: আওয়ামী লীগ, বিএনপি এবং জাতীয় পার্টি৷ সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে দুটি প্রধান পক্ষ অংশ নিয়েছে৷

ইয়াহিয়া চৌধুরী মনে করেন তাঁরা ৫ বছরের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন৷ তাই ৫ বছরই তাঁদের দায়িত্ব পালন করতে হবে৷ আগামী নির্বাচন নিয়ে বিএনপিসহ সব দলের সঙ্গে আলোচনা এবং সমঝোতার প্রয়োজন আছে৷ তবে তা মধ্যবর্তী বা আগাম নির্বাচন নয়, মেয়াদ শেষে নির্বাচনের জন্য৷ তিনি বলেন, বিএনপি এর আগে বিরোধী দল হলেও সংসদে যায়নি, বাইরে থেকে সরকারের সমালোচনা করেছে৷ আর এবারও তাঁরা সংসদে নেই৷ বাইরে থেকে সমালোচনা করবে৷ তাতে অসুবিধার কিছু নেই৷

ইয়াহিয়া চৌধুরী বলেন, এবার জাতীয় পার্টি শুধু বিরোধী দলে বসেই সন্তুষ্ট নয়৷ তাঁরা সাংগঠনিক কাঠামো আরো বিস্তৃত করতে চায়৷ এজন্য প্রাথমিক পর্যায়ে পরিকল্পনার কাজ চলছে৷ সারা দেশে সংগঠন শক্তিশালী এবং বিস্তৃত করতে নেতারা জেলায় জেলায় সফর করবেন৷ তাঁর দাবি জাতীয় পার্টি এখন ঐক্যবদ্ধ৷ এখানে কোনো কোন্দল নেই৷ আছে গণতান্ত্রিকভাবে ভিন্নমত প্রকাশের অধিকার৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়