1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

এযাত্রা বেঁচে গেলেন জেমস বন্ড

রুপালি পর্দায় ব্রিটিশ গুপ্তচর জেমস বন্ডকে খতম করা অসম্ভব৷ কিন্তু তাঁকে নিয়ে ছবি তৈরি বন্ধ হয়ে গেলে নিশ্চিহ্ন হয়ে যেতে পারতেন৷ প্রায় দেউলিয়া হয়ে যাওয়া এমজিএম স্টুডিও এযাত্রা রক্ষা পাওয়ায় সেই বিপদ আপাতত কেটে গেল৷

JAMES BOND 007, TIMOTHY, DALTON, জেমস বন্ড, টিমোথি, ডাল্টন

জেমস বন্ডের ভূমিকায় টিমোথি ডাল্টন (ফাইল ছবি)

‘‘দ্য নেম ইজ বন্ড, জেমস বন্ড'' – কয়েক দশক ধরে গোটা বিশ্ব এই সংলাপ বার বার শুনেও ক্লান্ত হয় না৷ কখনো সোভিয়েত কমিউনিস্ট জুজুকে কাবু করে, কখনো চরম ক্ষমতালোভী মিডিয়া মোগলের ষড়যন্ত্র বানচাল করে ব্রিটেন তথা গোটা মানব জাতিকে রক্ষা করে এসেছেন কাল্পনিক এই চরিত্র৷ একমাত্র দুর্বলতা লাস্যময়ী নারী৷ তারাও কখনো বন্ডকে প্রশ্রয় দিতে কার্পণ্য করে না৷ অভিনেতা বদলেছে, কিন্তু বদলায় নি চরিত্রের আকর্ষণ৷ এমনই এক জনপ্রিয় চরিত্রের অস্তিত্ব বিপন্ন হতে বসেছিল৷

হলিউডের অনেক ছবির শুরুতেই সিংহের গর্জনের সঙ্গে সঙ্গে পর্দায় ফুটে ওঠে মেট্রো গোল্ডউইন মায়ার বা এমজিএম'এর প্রতীক৷ সেই স্টুডিওরই বন্ড ছবি তৈরির একচেটিয়া অধিকার রয়েছে৷ কিন্তু চরম আর্থিক সংকটে পড়ে দেউলিয়া হতে বসেছিলেন স্টুডিওর মালিকরা৷ ‘স্পাইগ্লাস এন্টারটেনমেন্ট' নামের এক সংস্থার সঙ্গে চুক্তির মাধ্যমে শেষরক্ষা হল৷ এর আগে কোটিপতি কার্ল আইকান ঋণের বোঝা কমানোর পথ প্রশস্ত করতে যে প্রস্তাব রেখেছিলেন, এমজিএম তা নাকচ করে দিয়েছিল৷

এমজিএম'এর আর্থিক সংকটের ফলে এপ্রিল মাসে ২৩তম জেমস বন্ড ছবির শুটিং অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দিতে হয়েছিল৷ এবার বন্ড-ভক্তরা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারবেন৷ তাদের আশা, শুটিং দ্রুত শেষ করে পর্দায় আবার আবির্ভাব হবে ‘খুন করার লাইসেন্স'প্রাপ্ত গুপ্তচর বন্ড'এর৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন