1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘এমন হামলা যে কারুর ওপর হতে পারে'

শনিবার একই সময় আজিজ সুপার মার্কেটে কুপিয়ে হত্যা করা হয় জাগৃতির র্কণধার ফয়সল আরফেনি দীপনকে আর লালমাটিয়ায় আহত হন শুদ্ধস্বরের কর্ণধার আহমেদুর রশীদ চৌধুরী টুটুলসহ তিনজন৷ টুটুলের অবস্থা গুরুতর হলেও তিনি আশঙ্কামুক্ত৷

দু'দফা এই হামলার প্রতিবাদ এবং বিচারের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছেন প্রকাশকরা৷ তাঁরা বই বিক্রি বন্ধ রেখে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন৷ আন্দোলন সংঘটনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন শ্রাবণ প্রকাশনীর কর্ণধার রবিন আহসানসহ তরুণ প্রকাশকরা৷ রবিন আহসানসহ ডয়চে ভেলেকে জানান, ‘‘শুদ্ধস্বরের টুটুল এখন আশঙ্কা মুক্ত৷ রবিবার রাতে হাসপাতালে তাঁকে দেখতে গেলে সে আমার হাত চেপে ধরে বলে, ভাই আপনারা সরে যান, ওরা সবাইকে মেরে ফেলবে, বাঁচতে দেবে না৷''

অডিও শুনুন 03:21

দীপন হত্যাকারীদের বিচার না হলে আতঙ্ক বাড়বে: রবিন আহসান

তাহলে আপনারা কি প্রকাশনা ব্যবসা ব্যবসা ছেড়ে দেবেন? এমন প্রশ্নের জবাবে রবিন আহসান বলেন, ‘‘আমরা ভয়ে প্রকাশনা ব্যবসা ছেড়ে দেবো না৷ কিন্তু আমাদের নিরাপত্তা তো দিতে হবে৷ প্রকাশকদের হত্যা করা হচ্ছে, লেখকদের হত্যা করা হচ্ছে৷ হত্যা করা হচ্ছে ব্লগারদের৷ কোনো বিচার হচ্ছে না৷ ওরা চায় বই প্রকাশ না হোক৷ বই ছাপা না হোক৷''

তিনি বলেন, ‘‘আমরা আমাদের নিরাপত্তার জন্য মাঠে নেমেছি, কিন্তু আর কেউ মাঠে নামছে না৷ অথচ এই হামলা যে কারুর ওপর হতে পারে৷''

রবিন আহসান জানান যে, তাঁরা সারাদেশের জেলা প্রশাসকদের কাছে নিরাপত্তার জন্য স্মারক লিপি দিয়েছেন৷ নিজেদের মধ্যে বৈঠক করছেন পরবর্তী করণীয় নিয়ে৷ নিরাপত্তার বিয়টি এখন তাঁদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ৷ তিনি আরো বলেন, ‘‘আমরা এই পরিস্থিতির মধ্যে প্রকাশনা ব্যবসা চালিয়ে যেতে চাইলেও, আমাদের স্ত্রী সন্তানরা তো দেবে না৷ কে চায় স্বামী বা বাবাকে হারাতে? কে চায় সন্তান হারতে?''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়