1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

এমডিজি লক্ষ্য অর্জনে নতুন পথের সন্ধানে বিশ্ব শীর্ষ নেতারা

‘মিলেনিয়াম ডেভলপমেন্ট গোল’ বা এমডিজি’র বাস্তবতার নিরীখে নতুন পথ খুঁজতে বিশ্ব নেতারা আবারো মিলিত হচ্ছেন সোমবার৷ মানুষের ক্ষুধা, দারিদ্র, বৈষম্য আর অকারণ মৃত্যু রোধে গৃহীত এ পরিকল্পনা এতোদিন প্রায় মুখ থুবড়ে পড়েছিল৷

default

বুরকিনা ফাসোর শিশুরা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট নিকোলা সার্কোজি, ইরানের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমাদিনেজাদ সহ বিশ্বের অপরাপর শীর্ষ নেতারা এখন লক্ষ্য অর্জনে পিছিয়ে পড়া ‘মিলেনিয়াম ডেভলপমেন্ট' গোল, বা ‘এমডিজি' নামের এই উচ্চাভিলাষী মহৎ পরিকল্পনাটি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নতুন পথের সন্ধান করবেন৷

অবশ্য অধিকাংশ বিশেষজ্ঞই জানিয়ে দিয়েছেন যে, এমডিজি'র এই লক্ষ্য অর্জন প্রায় অসাধ্য এবং অসম্ভব একটি কাজ৷ বিশ্বজুড়ে চরম দারিদ্রে বসবাসরত সুবিশাল জনসংখ্যাকে উন্নয়নের এই যাদুর কাঠি ছুঁইয়ে তাকে একেবারে অর্ধেকে নামিয়ে আনা কিংবা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যে সব শিশুরা পাঁচ বছর বয়সে পৌঁছানোর আগেই মৃত্যুবরণ করে তাদের সংখ্যাটি দুই তৃতীয়াংশে কমিয়ে আনার বিষয়টি বাস্তবতার প্রেক্ষিতে এখন বেশ কঠিনই বটে৷

জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি-মুন জানিয়েছেন, পিছিয়ে পড়া এই এমডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে চাইলে এই খাতে আরো অনেক অর্থই বিনিয়োগ করতে হবে৷ পাশাপাশি মিলেনিয়াম ডেভলপমেন্ট গোলের এই পিছিয়ে পড়া শ্লথগতিকে ঠিক পথে আনতে হলে এবং সাফল্য পেতে হলে বিশ্বের সকল অংশের রাজনৈতিক সদিচ্ছারও প্রয়োজন রয়েছে৷

MDG Indien Bildung 2

সবার জন্য শিক্ষা : সহস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ

সহস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বা এমডিজি'র লক্ষ্য অর্জন খাতে সংকট নিরসন কল্পে জাতিসংঘের এই অধিবেশনে ইউরোপিয় ইউনিয়ন তাদের ১ বিলিয়ন ডলার সহায়তার ঘোষণাটি দিতে যাচ্ছে বলেই জানা গেছে৷ দাতাসংস্থার বরাতে আরো জানা গেছে, বিশ্বব্যাঙ্ক শিক্ষাখাতে ৭৫০ মিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তা দেবে৷ তারপরও এই অর্থ একেবারেই অপ্রতুল৷ বিশ্বজুড়ে বিরাজমান অর্থনৈতিক সংকটই এই সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষার্জনের প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে৷

এদিকে ইউনেস্কো ডাইরেক্টর জেনারেল ইরিনা বকোভা বলেছেন, নারী এবং মেয়ে-শিশুদের শিক্ষা এবং উন্নতির লক্ষ্যে গৃহীত এমডিজি তৃতীয় লক্ষ্যটির অর্জনে আমরা যেভাবে এগিয়ে গিয়েছিলাম, বিশ্বের অর্থনৈতিক সংকটের কারণে তার সে গতিতে মন্থরতা এসেছে৷ নারী শিক্ষা এবং লিঙ্গ বৈষম্য সম্পর্কে তিনি নতুন করে উদ্যোগ গ্রহণের কথা বলেছেন৷

বিশ্বের ১৪০ টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানরা জাতিসংঘের এই সম্মেলনে এমডিজি সংক্রান্ত একটি অর্থবোধক এবং গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তে উপনীত হতে যাচ্ছেন৷ যার অবশ্য কর্তব্যের মধ্যে রয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা, এইচআইভি এইডস এবং নারীর ক্ষমতায়নের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি৷

অন্যদিকে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুন বেশ দৃঢ়তার সঙ্গেই জানিয়েছেন, ‘‘ আমি জানি, উদ্যোগের ক্ষেত্রে এখানে এক ধরণের পলায়নপরতা রয়েছে, কিন্তু এই মিলেনিয়াম ডেভলপমেন্ট গোল বা সহস্রাব্দ উন্নয়নের বিষয়টি বিশ্বের শীর্ষ নেতাদের নেয়া একটি দৃঢ় প্রতিজ্ঞাই ছিল৷ এটি ছিল সুপরিকল্পিত এক নকশা, যার মাধ্যমে দারিদ্রের অন্ধকারে নিমজ্জিত বিশ্বের অগণিত মানুষকে আমরা স্বচ্ছলতার আলোয় আনতে চেয়েছিলাম৷ তাই যেভাবেই হোক একে সফল করতেই হবে৷''

প্রতিবেদন: হুমায়ূন রেজা

সম্পাদনা: দেবারিত গুহ

ইন্টারনেট লিংক