1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

এমএইচ৩৭০ নিয়ে বিভ্রান্তি কাটছে না

ভারত মহাসাগরে ভেসে আসা বিমানের একটি অংশ নিখোঁজ এমএইচ৩৭০ বিমানের – মালয়েশিয়ার এই একতরফা দাবিকে ঘিরে তুমুল সমালোচনা শোনা যাচ্ছে৷ যাত্রীদের আত্মীয়-স্বজনদের মনে ক্ষোভ বাড়ছে৷

আজকের যুগে কোনো বিশাল যাত্রীবাহী বিমান যে প্রায় ১৭ মাস ধরে নিখোঁজ থাকতে পারে, সেটা বিশ্বাস করাই কঠিন ছিল৷ এতকাল পর সেই রহস্য উন্মোচনের সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়ে ওঠার পরেও বিতর্ক কাটছে না৷ মাদাগাস্কারের কাছে লা রেউনিয়ঁ দ্বীপের কাছে একটি বিমানের ‘ফ্ল্যাপেরন' নামের যে অংশ পাওয়া গেছে, তার উৎস পরীক্ষা করতে পাঠানো হয়েছিলো ফ্রান্সে৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, মালয়েশিয়া ও অস্ট্রেলিয়াসহ অনেক দেশের বিশেষজ্ঞরা সেই কাজে ব্যস্ত৷ কিন্তু মালয়েশিয়ার সরকার একাই নিশ্চয়তার সঙ্গে দাবি করছে যে, বিমানের অংশ নিখোঁজ এমএইচ৩৭০-এর৷ অন্যদিকে অ্যামেরিকা, ফ্রান্স ও অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশ এখনো বিষয়টি নিয়ে অন্তত প্রকাশ্যে মুখ খুলছে না৷ এই অবস্থায় নিখোঁজ বিমানের আত্মীয়-স্বজনদের ক্ষোভ ফেটে পড়ছে৷ এতকাল পরেও এমন অস্পষ্ট অবস্থা তাঁদের অসহ্য বলে মনে হচ্ছে৷

বৃহস্পতিবারই মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক বলেন, কুড়িয়ে পাওয়া ‘ফ্ল্যাপেরন' অংশটি অবশ্যই এমএইচ৩৭০-এর৷ আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ দলের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি এই দাবি করেন৷ মালয়েশিয়ার ধারণা, বিমানটিকে ইচ্ছা করে যাত্রাপথ থেকে সরিয়ে আনা হয়েছিলো৷ মালয়েশিয়ার পরিবহণ মন্ত্রী এর মধ্যে দাবি করছেন যে, ভারত মহাসাগরের আরেকটি দ্বীপে বিমানের জানালা, সিট সহ আরও অংশ খুঁজে পাওয়া গেছে৷

অন্যদিকে প্যারিসে এক সংবাদ সম্মেলনে ফ্রান্সের এক কর্মকর্তা এখনো এ বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি৷

তাঁর মতে, বিশেষজ্ঞরা যতটা দ্রুত সম্ভব কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন৷ অর্থাৎ চূড়ান্ত ফলাফল জানতে আরও অপেক্ষা করতে হবে৷ ঘটনার তদন্তে যে দেশ মূল ভূমিকা গ্রহণ করেছে, সেই অস্ট্রেলিয়াও বিষয়টি সম্পর্কে একই রকম সতর্কতা দেখাচ্ছে৷

অভিশপ্ত এমএইচ৩৭০ বিমানের যাত্রীদের আত্মীয়-স্বজনদের অনেকেই এমন বিভ্রান্তির কারণে অসন্তুষ্ট৷ চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে মালয়েশীয় দূতাবাসের সামনে তাঁদের কয়েকজন বিক্ষোভ দেখিয়েছেন৷ তাঁদের অভিযোগ, প্রকৃত রহস্য উন্মোচনের ক্ষেত্রে মালয়েশিয়ার সরকার মোটেই আন্তরিক নয়৷ তারা তড়িঘড়ি করে বিষয়টি মিটিয়ে ফেলতে চাইছে মাত্র৷ এমন একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে বাকি দেশগুলির মতো মালয়েশীয় সরকারের আরও ধৈর্য ধরা উচিত ছিল বলে অনেকে মনে করছেন৷ এমনকি সে দেশে বর্তমানে যে দুর্নীতি কেলেঙ্কারি চলছে, সে দিক থেকে মনোযোগ সরিয়ে নিতেই প্রধানমন্ত্রী রাজাক এমন ঘোষণা করেছেন বলেও অভিযোগ উঠছে৷

MH370 Proteste der Angehörigen in Peking 25.03.2014

অভিশপ্ত এমএইচ৩৭০ বিমানের যাত্রীদের আত্মীয়-স্বজনদের অনেকেই এমন বিভ্রান্তির কারণে অসন্তুষ্ট৷

ভারত মহাসাগর থেকে ভেসে আসা ‘ফ্ল্যাপেরন'-টি যে একটি বোয়িং ৭৭৭ বিমানের, তা নিয়ে আর তেমন কোনো সন্দেহ নেই৷ সেই এলাকায় সাম্প্রতিক কালে সেই মডেলের অন্য কোনো বিমানের দুর্ঘটনার খবরও কারো জানা নেই৷ সেটি পরীক্ষা করে বিশেষজ্ঞরা নানা রকম তথ্য জানার চেষ্টা করছেন৷ দুর্ঘটনা বা বিপর্যয়ের কারণ থেকে শুরু করে সমুদ্রের কোন এলাকা থেকে সেটি ভেসে এসেছে, তাও জানার চেষ্টা করছেন তাঁরা৷

খুঁজে পাওয়া অংশটি সম্পর্কে যে তথ্যই জানা যাক না কেন, অস্ট্রেলিয়া এখনো সমুদ্রে বিমানের মূল ধ্বংসাবশেষের খোঁজে অনুসন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে৷ এই কাজে সফল হলে বিমানের ব্ল্যাক বক্স অক্ষত অবস্থায় খুঁজে পাওয়া যাবে, এমন আশাই করছে সে দেশের সরকার৷ সে ক্ষেত্রে এমএইচ৩৭০ অন্তর্ধান রহস্য পুরোপুরি সমাধান করা সম্ভব হবে বলে তাদের ধারণা৷

এসবি/ডিজি (এপি, এএফপি, ডিপিএ,)

নির্বাচিত প্রতিবেদন