1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

এবার বাবার হাতে মেয়ে হত্যার ভিডিও ছাড়ল আইএস

মেয়েটির বিরুদ্ধে পরকিয়ার অভিযোগ৷ বিচারের ভার পড়েছে তাঁর বাবার ওপর৷ অস্ত্রধারী আইএস যোদ্ধার সামনে বাবা পাথর ছুড়ে হত্যা করলেন নিজের মেয়েকে৷ ইউটিউবে এ ঘটনার ভিডিওচিত্র ছেড়েছে আইএস৷

গত কয়েকমাসে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেনের একে একে চার নাগরিকের শিরশ্ছেদের ভিডিওচিত্র প্রকাশ করে ইরাক ও সিরিয়ায় যুদ্ধরত ইসলামি জঙ্গি সংগঠন আইএস৷ প্রতিটি ভিডিওচিত্রে সংগঠনটির পক্ষ থেকে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে তাদের ওপর বোমা হামলা বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত এমন ঘটনা ঘটতে থাকবে৷ এবারের ভিডিওচিত্রটি যুক্তরাষ্ট্র, অন্য কোনো দেশ বা সম্প্রদায়কে সতর্ক করার জন্য নয়৷ এবার বিশ্বের সব নারীকে সতর্ক করতেই প্রকাশ করা হলো পিতার হাতে কন্যার হত্যাদৃশ্যের ভিডিওচিত্র৷

ঘটনাস্থল সিরিয়ার হামা প্রদেশের একটি প্রত্যন্ত গ্রাম৷ মঙ্গলবার প্রচার করা হলেও, ব্রিটেন ভিত্তিক বেসরকারি সংস্থা ‘দ্য সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস' মনে করে, ভিডিওচিত্রে দেখানো ঘটনাটি গত আগস্ট বা সেপ্টেম্বরের হতে পারে৷

শশ্রুমণ্ডিত এক সিরীয় গ্রামবাসী, তাঁর পেছনেই দাঁড়ানো অস্ত্রধারী এক আইএস যোদ্ধা৷ দুজনের সামনে কালো বোরকা পরা এক নারী৷ প্রথমে অস্ত্রধারী ব্যক্তি অভিযুক্ত নারীর উদ্দেশে বলে ওঠেন, ‘‘ তুমি কোনো চাপ ছাড়া, সজ্ঞাতে এ অপরাধ করেছো বলেই এই শাস্তি৷আল্লাহর এ শাস্তি তোমাকে মেনে নিতে হবে৷ তুমি কি এ শাস্তি মানতে প্রস্তুত?''

জবাবে মাথা নেড়ে সায় দেয়ার ভঙ্গি করে বাবার দিকে ফিরে তাকান বোরকা পরা নারী৷ বাবার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন৷ ক্ষমা না করে শাস্তি কার্যকর করার আগে তাঁকে কিছু বলার অনুমতি দেয়া হয়৷ অভিযোগ অস্বীকার না করে সেই নারী বলে ওঠেন, ‘‘আমি সকল নারীর উদ্দেশ্যে বলছি, আপনারা আপনাদের ইজ্জত রক্ষা করুন৷ সব বাবার প্রতি অনুরোধ, আপনারা আপনাদের মেয়ে এবং মেয়ে যে পরিবেশে বসবাস করছে সেদিকে নজর রাখুন৷''

তারপরই একটি দড়ি হাতে তুলে নেন বাবা৷ দড়ি দিয়ে বেঁধে মেয়েটিকে নতজানু হতে বাধ্য করা হয়৷ অভিযুক্ত নারীর বাবাকে শাস্তি কার্যকর করার নির্দেশ দেন আইএস যোদ্ধা৷ নিজহাতে পাথর ছুড়তে শুরু করেন বাবা৷ মৃত্যু নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ঢিল ছোড়া থামেনি৷

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সরকার-বিরোধী জোট ন্যাশনাল কোয়ালিশন৷ এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, ‘‘হামা-র প্রত্যন্ত অঞ্চলে এক নারীর বিরুদ্ধে আইএস যে বিভৎস অপরাধ করেছে, আমরা তার তীব্র নিন্দা জানাই৷ সিরিয়ার বিপ্লবের সঙ্গে এ অপরাধকর্মের কোনো সম্পর্ক নেই৷''

এসিবি/জেডএইচ (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়