1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

এবারের বিশ্বকাপও মাতাবেন টেন্ডুলকার

আধুনিক ক্রিকেট বলতে কি বোঝায়? এই প্রশ্নের একটিই উত্তর, শচীন টেন্ডুলকার৷ টেস্ট এবং ওয়ানডে ক্রিকেটের প্রায় সব ধরনের ব্যাটিং রেকর্ডের অধিকারী এই ব্যাটসম্যান শুধু নিজেকেই নন, ক্রিকেট খেলাটিকেও নিয়ে গেছেন এক ভিন্ন উচ্চতায়৷

default

শচীন টেন্ডুলকার

অথচ এই গ্রেট ব্যাটসম্যানটির আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কিন্তু অভিষেক হয়েছিল বেশ সাদামাটাভাবে৷ প্রথম ওয়ানডেতেই শূন্য রানে আউট হন তিনি৷ ডেব্যু টেস্টেও করেন মাত্র ১৫ রান৷ কিন্তু ১৬ বছর বয়সে যে যাত্রা শুরু দীর্ঘ দুই দশকে তা বহু বহুদুর এগিয়েছে৷ সমসাময়িক আর কোন ক্রিকেটারকে নিজের আশেপাশে দেখতে পান না শচীন, কিন্তু তিনি এগিয়েই চলেছেন ক্লান্তিহীনভাবে৷ রেকর্ডের কথা বাদ দিলাম, এতদিন ধরে এভাবে টানা ক্রিকেট কিভাবে খেলছেন টেন্ডুলকার সেটা নিয়েই অনেক গবেষণা হয়৷ একটুও মরচে পড়েনি তাঁর ব্যাটিং'এ, বরং দিন দিন যেন সেটা আরও ধারালো হচ্ছে৷

টেন্ডুলকারের ব্যাটিং এ কোন বিশেষ শট নেই, তার কারণ তাঁর পুরো ব্যাটিংটাই হচ্ছে বিশেষ৷ দুই পায়ের অসাধারণ ব্যালান্স ও বলের লাইন লেন্থ দ্রুত বোঝার জাত ক্ষমতা পৃথিবীর যে কোন পিচেই তাঁকে বোলারের চেয়ে এগিয়ে রাখে৷ কি ফ্রন্টফুট কি ব্যাকফুট, যে কোন পজিশনেই টেন্ডুলকারের শটের জোর একদম একরকম৷

টেস্ট এবং ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি এবং রানের রেকর্ড সবই তাঁর হাতে৷ এখন সকলেই অপেক্ষা করছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেঞ্চুরির সেঞ্চুরিটা করে যেতে পারেন কিনা টেন্ডুলকার৷ কারণ টেস্টে ৫১ ও ওয়ানডেতে ৪৬ সেঞ্চুরি হয়ে গেছে তাঁর৷ ওয়ানডেতে ১৭ হাজার রানের মাইলফলক আর কেউ পার হতে পারবে কিনা সন্দেহ রয়েছে৷ টেস্টেও সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটি ১৪ হাজারের ওপর চলে গেছে৷ আর কিছুদিন আগে ওয়ানডেতে এক ম্যাচে ২০০ রান করে ওয়ানডে ইতিহাসে চিরকালের জন্য নিজের নামটি লিখিয়ে নিয়েছেন৷ আসলে ওয়ানডে কিংবা টেস্ট কিংবা নতুন প্রজন্মের টোয়েন্টি টোয়েন্টি যেটাই ভবিষ্যতে থাকুক না কেন, যতদিন পৃথিবীতে ক্রিকেট থাকবে ততদিন শচীন টেন্ডুলকারের নামটিও শ্রদ্ধার সঙ্গেই উচ্চারিত হবে৷

সংশ্লিষ্ট বিষয়