1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

এক বিলিয়ন পাসওয়ার্ড চুরি করেছে রুশ হ্যাকাররা

রাশিয়ার হ্যাকাররা ১ দশমিক দুই বিলিয়ন পাসওয়ার্ডসহ অনেকের ব্যক্তিগত তথ্য হ্যাক করেছেন৷ মার্কিন বিভিন্ন কোম্পানিসহ বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন রকম কোম্পানির গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এখন তাঁদের দখলে৷

নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে এই তথ্য৷ মার্কিন কোম্পানি ‘হোল্ড সিকিউরিটি' জানিয়েছে, রাশিয়ার এই ‘হ্যাকার গ্যাং'-এর নাম ‘সাইবারভর'৷ এই গ্যাং ৪ লাখ ২০ হাজারের বেশি ওয়েবসাইটের ব্যবহারকারীদের ‘ইউজার নেম' এবং ‘পাসওয়ার্ড' চুরি করেছে৷ ব্যবহারকারীদের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন কোম্পানি থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ৷

Symbolbild Internet Computer

ইন্টারনেটে থাকা তথ্য সরাসরি আপনার কাছ থেকে চুরির দরকার হয় না

এক বিবৃতিতে ‘হোল্ড সিকিউরিটি' লিখেছে, ‘‘ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবে যদি আপনার তথ্য সংরক্ষণ করা থাকে, তাহলে সম্ভবত আপনিও আক্রান্ত হয়েছেন৷''

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘‘ইন্টারনেটে থাকা তথ্য সরাসরি আপনার কাছ থেকে চুরির দরকার হয় না৷ বরং আপনি যেসব সাইটে বা যার কাছে ব্যক্তিগত তথ্য দিয়েছেন, সেখান থেকেই সেটা চুরি করা সম্ভব৷ হতে পারে তা আপনার চাকুরিদাতা কিংবা আপনার বন্ধু কিংবা পরিবারের কেউ৷''

মার্কিন এই নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানটি অনলাইনে তথ্য চুরি বা হ্যাকিং শনাক্তে বিশেষ পারদর্শী৷ তারা জানিয়েছে, রাশিয়ার হ্যাকরার শুরুতে অন্যান্য হ্যাকারদের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছে৷ এরপর সেসব তথ্যের ভিত্তিতে ম্যালওয়ার সেটআপ করেছে যা তাদের বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রবেশের পথ খুলে দিয়েছে৷

প্রতিষ্ঠানটি তাদের সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে জানিয়েছে যে, রাশিয়ার হ্যাকারগ্রুপটি সব মিলিয়ে এক দশমিক দুই বিলিয়ন ই-মেল এবং সেসবের পাসওয়ার্ড সংগ্রহে সক্ষম হয়েছে৷ এগুলোর মধ্যে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ সাইটের অ্যাকাউন্টের তথ্যও রয়েছে৷

প্রসঙ্গত, সাইবারভর-এর ‘ভর' শব্দটি রাশিয়ান৷ এর অর্থ হচ্ছে চোর৷ স্বঘোষিত এই চোরেরা রাশিয়ায় ‘সাউথ সেন্ট্রাল' অঞ্চলে অবস্থান করছে বলে ধারণা করছেন গবেষকরা৷ তাঁদের মতে, সাইবারভরের সদস্য সংখ্যা এক ডজনের কম৷ তাঁরা গ্রুপ হিসেবে সংঘবদ্ধভাবে কাজ করছে৷ অর্থাৎ তাঁদের মধ্যে কাজ নির্দিষ্টভাবে ভাগ করা রয়েছে৷

হোল্ড সিকিউরিটির প্রতিষ্ঠাতা এলেক্স হোল্ডেন বলেন, ‘‘এদের কয়েকজন প্রোগ্রামিং করছেন, আর বাকিরা তথ্য চুরি করছেন৷''

এআই/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন