1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

এক কাগজেই বারবার প্রিন্ট দেয়া যাবে!

এমন এক অভিনব উপায়ের কথা বলছেন চীনা বিজ্ঞানীরা৷ সম্প্রতি এ বিষয়ে তাদের একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে৷ এক্ষেত্রে কালির পরিবর্তে ব্যবহৃত হবে পানি৷

বিষয়টা এরকম– যে কাগজে প্রিন্ট নেয়া হবে সেটাতে আগে থেকেই অদৃশ্য রঞ্জক পদার্থ মেশানো থাকবে, যে পদার্থটা পানির সংস্পর্শে রঙিন হয়ে ওঠে৷ এক্ষেত্রে কার্টরিজে কালির পরিবর্তে পানি দিতে হবে৷ আর প্রিন্টারটা যে-কোনো প্রিন্টার হলেই চলবে৷

এভাবে যে প্রিন্ট বেরিয়ে আসবে সেটা ২২ ঘণ্টা পর্যন্ত পড়া যাবে৷ এরপর কাগজ থেকে লেখা মুছে যাবে৷ ফলে ঐ একই কাগজ আবারও প্রিন্টারে দেয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে৷ অবশ্য কেউ যদি ২২ ঘণ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে না চান, তাদের জন্যও বিজ্ঞানীরা একটি যন্ত্র বের করার চেষ্টা করছেন৷ সেটা যদি সম্ভব হয়, তাহলে প্রিন্ট করা লেখা পড়া শেষ হওয়ার কাগজটা মেশিনে ঢুকিয়ে দিলে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই লেখাগুলো মুছে যাবে৷

চীনের জিলিন ইউনিভার্সিটির রসায়নের অধ্যাপক সিন শিয়াও-অ্যান জাং গবেষণা কাজের তত্ত্বাবধান করেন৷ তিনি বলেন, ‘‘বেশ কয়েকটি গবেষণায় দেখা গেছে, অফিস-আদালতে প্রিন্ট দিয়ে বের করা কাগজের প্রায় ৪০ শতাংশই মাত্র একবার পড়ার পর ফেলে দেয়া হয়৷'' এ কারণে পানি দিয়ে প্রিন্ট করলে কাগজের অপচয় কমানো সম্ভব হবে৷ এতে যেমন অর্থ বাঁচবে, তেমনি বাঁচবে পরিবেশও৷ কারণ কাগজ উৎপাদনের জন্য ব্যাপকহারে গাছ কাটা পড়ে৷

জাং বলেন, রঞ্জক পদার্থ মেশানো কাগজ ব্যবহার ‘খুবই নিরাপদ'৷ অবশ্য বিষয়টা এখনো প্রমাণিত হয়নি৷ তবে ইঁদুরের উপর গবেষণা চলছে৷

চীনা বিজ্ঞানীদের গবেষণাটি ‘নেচার কমিউনিকেশনস' জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে৷

প্রিন্ট করা কাগজ পুনরায় ব্যবহারের উপায় বের করার চেষ্টা বিজ্ঞানীরা অনেকদিন ধরেই করছেন৷ তবে জনপ্রিয় হওয়ার মতো কোনো উপায় এখনো বের করা সম্ভব হয়নি৷ দেখা যাক, চীনাদের এই গবেষণা সফল হয় কিনা৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়