1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

একুশে বইমেলা

১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হলো বাঙালির প্রাণের মেলা একুশে গ্রন্থমেলা-২০১১৷ বইমেলা উপলক্ষ্যে আমরা ঐ দিনেই গিয়েছিলাম বাংলা অ্যাকাডেমি চত্বরে৷ প্রথম দিন হলেও অনেক ভালো লেগেছে৷

default

মেলা প্রাঙ্গণে ঘুরতে ঘুরতেই হঠাৎ মনে পড়ে গেলো, আজ থেকে দু’বছর আগের কথা যখন প্রথমবারের মত মেলায় ডয়চে ভেলে স্টল দিয়েছিলো! এরপর সবকিছু থেমে গেলো৷ ডয়চে ভেলেকে আর বইমেলায় খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা! ব্যাপারটি আমাদের কাছে খুবই খারাপ লাগছে৷ এফএম-এ আসার পর যেভাবে ডয়চে ভেলের প্রচার ও প্রসার বাড়ছে, সেটাকে কেন্দ্র করে উচিত ছিলো বইমেলায় একটি ষ্টল নেওয়ার! আশা করি আগামী বছর থেকে বইমেলায় ষ্টল নেওয়ার চেষ্টা করবে কর্তৃপক্ষ৷ বইমেলার সংবাদ অনুষ্ঠানে শুনে এবং ওয়েবসাইটে দেখে ভালো লাগছে৷ একুশে বইমেলা নিয়ে ওয়েবসাইটে একটি ব্যানার তৈরির অনুরোধ করছি যেখানে বইমেলার বিভিন্ন খবর, ছবি থাকবে এবং শ্রোতাদের মতামত থাকবে৷       

ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগের সকলকে আমাদের ডয়চে ভেলে এফএম লিসনার্স অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি৷ রক্তিম শুভেচ্ছাসহ দিদারুল ইকবাল, মিরপুর, ঢাকা-১২১৬, বাংলাদেশ৷ dwfmla@gmail.com

গতকালের ওয়েবসাইট ক্লিক করেই মিশরের সর্বশেষ রিপোর্টটি আপদমস্তক পড়লাম৷ অত্যন্ত হৃদয়গ্রাহী এই রিপোর্টটি পড়ে সত্তরের গণ অভ্যূত্থানের কথা মনে পড়ে গেল৷ কী অভূতপূর্ব উত্তাল ও উন্মাদনা ও মন পাগল করা দিন ছিল সে সময়ে ৷ আমরা ছোট ছিলাম কিন্তু আমাদেরও হৃদয়ে তার বড় দাগ লেগে গিয়েছিল৷ লাল সবুজের পতাকার কত মূল্য তখন থেকেই মনেপ্রাণে বুঝে গেলাম৷ টিউনিশিয়ার পথ ধরে ঐ আলোকবর্তিকায় মিশরের গণজাগরণে আলো আসবেই আসবে এ কামনা রইল৷ ডা. বিকাশ রঞ্জন ঘোষ৷ drghosh72@gmail.com

৩১ জানুয়ারি রাতের অধিবেশনে বিজ্ঞান ডটকম পরিবেশনায় সেল নিয়ে তথ্যপূর্ণ আলোকপাত বেশ ভালো লাগলো৷ বিধান সান্যাল, বালুরঘাট, দক্ষিণ দিনাজপুর৷

প্রতিদিন সকাল ও রাতের বাংলা অনুষ্ঠান শুনতে খুব ভালো লাগে৷ বিশেষ করে ফিচার পর্বগুলো যা প্রতিনিয়ত আমাদের নতুন নতুন তথ্যের সাথে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে৷ সেজন্য ডয়চে ভেলেকে ধন্যবাদ৷ বিশ্বজিৎ কুমার সরকার৷ adaita.ku@hotmail.com

অনুষ্ঠানে প্রতিদিন বন্ধুদের কথা শুনতে খুব ভালো লাগে ৷ বিশেষ করে বন্ধুরা যখন কেউ লিখছেন ওয়েবসাইট দেখার কথা৷ আবার কেউবা লিখছেন অনুষ্ঠান খুব ভালো লাগছে৷ এসব কথা বার বার শুনতে ইচ্ছে করে আপনাদের মুখে৷ মোঃ নাজমুল শাহ, গাইবান্ধা৷

২০১০ সাল গত হলো৷ গতবছর অনেক নতুন শিল্পী, নতুন ব্যান্ড পাশ্চাত্য সঙ্গীতকে মাতিয়ে রেখেছিলো৷ তাঁদের সঙ্গীত এবং পরিচিতি নিয়ে বিশেষ কোন সুরের ভুবন করা যায় কিনা ভেবে দেখবেন৷ হোসেন আবেদ আলী, গুপ্তপাড়া, রংপুর৷

আমি ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইট দেখলাম৷ আমার চিঠিও দেখলাম সেখানে, যা খুব ভালো লাগলো৷ আপনাদের ফেসবুকও দেখলাম৷ এসবের মধ্য দিয়ে ডয়চে ভেলে আমার জ্ঞানকে আরো সম্প্রসারিত করে চলেছে৷ শুভেচ্ছা রইলো৷ চিন্ময় রায়, পদমপুর, বীরভূম, ভারত৷