‘একুশের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক সমাজ গঠন করতে হবে’ | বিশ্ব | DW | 20.02.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘একুশের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক সমাজ গঠন করতে হবে’

প্রধানমন্ত্রী আজ একুশে পদক বিতরণ করছেন ঢাকার ওসমানী মিলনায়তনে৷ সেই অনুষ্ঠানে তিনি একুশের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক সমাজ গঠনের কথা বলেছেন৷ তিনি বলছেন, এই চেতনা সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে৷

default

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একুশে পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে বলেন, একুশের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক সমাজ গঠন করতে হবে৷ আর তার সরকার সেই কাজই করে যাচ্ছে৷ তিনি বলেন, রক্ত দিয়ে যে চেতনা আমরা অর্জন করেছি তা সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে৷

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাঙালি যে সুযোগ পেলে অনেক বড় কিছু করতে পারে ক্রিকেট তার প্রমাণ৷ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আমাদের দক্ষতা প্রমাণ করেছে৷

বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য এবার অমর একুশে পদক দেয়া হয়েছে ১৩ জনকে৷ তারা হলেন, শওকত আলী(মরণোত্তর), মোশারেফ উদ্দিন আহমেদ (মরণোত্তর),আমানুল হক, বাউল করিম শাহ, জ্যোস্না বিশ্বাস, আখতার সামদানী (মরণোত্তর), নুরজাহান বেগম, মো. আবুল হাসেম, মো. হারেস উদ্দিন সরকার, মো. দেলওয়ার হোসেন, শহীদ কাদরী, আবদুল হক (মরণোত্তর) ও আবদুল হক চৌধুরী(মরণোত্তর)৷ একুশে পদক গ্রহণের পর জ্যোস্না বিশ্বাস বলেন এটি তাঁর জীবনের বড় সম্মান৷

আর বাউল করিম শাহ বলেন শেষ জীবনে হলেও তিনি সম্মান পেলেন৷ অন্যদিকে ৬ জনকে এবারের বাংলা একাডেমী পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে৷ তাঁরা হলেন, অধ্যাপক খান সারোয়ার মুর্শিদ, বুলবুল চৌধুরী, রুবী রহমান, নাসির আহমেদ, অজয় রায় এবং গোলাম কিবরিয়া৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: জান্নাতুল ফেরদৌস

সংশ্লিষ্ট বিষয়