1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘‘একজন মুক্তিযোদ্ধা চিরকাল মুক্তিযোদ্ধা নহে''

আদালত অবমাননার শাস্তি হিসেবে কাঠগড়ায় এক ঘণ্টা দাঁড়িয়ে ছিলেন৷ কিন্তু জরিমানা না দেয়ায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে গ্রেপ্তারে পরোয়ানা জারি করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল৷

গত ১০ জুন দেয়া এক রায়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে এই রায় দিয়েছিল ট্রাইব্যুনাল৷ ঐদিন জাফরুল্লাহ সহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে দায়ের করা মামলার রায় দেয়া হয়৷ রায়ে বাকি ২২ জনকে ক্ষমা করে দেয়া হয়৷ কারণ হিসেবে বলা হয় তাঁরা এ ধরণের কাজ প্রথম করেছেন৷ কিন্তু জাফরুল্লাহ আগেও এরকম করায় তাঁর বিরুদ্ধে কাঠগড়ায় এক ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকা এবং আরও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা দেয়ার রায় ঘোষণা করা হয়৷ উল্লেখ্য, ব্লগে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন' লেখার মাধ্যমে বিচারাধীন বিষয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানোর দায়ে সাংবাদিক ডেভিড বার্গম্যানকে গতবছরের ২রা ডিসেম্বর সাজা দেয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল৷ এতে উদ্বেগ প্রকাশ করে ৫০ জন নাগরিকের একটি বিবৃতি একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়৷ ঐ ৫০ জনের মধ্যে জাফরুল্লাহও ছিলেন৷

এদিকে, এক ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকার সাজা ভোগের পর আদালতের বাইরে বেরিয়ে জাফরুল্লাহ তাঁর বিরুদ্ধে দেয়া রায়কে ট্রাইব্যুনালের তিন বিচারপতির ‘মানসিক অসুস্থতার ফল' বলে মন্তব্য করেছিলেন৷

বিচারকদের নিয়ে এমন মন্তব্য করার পরও জাফরুল্লাহ কীভাবে বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন তা নিয়ে সেসময় ফেসবুকে প্রশ্ন তুলেছিলেন সৈকত ভৌমিক৷

Symbolbild Gefangene der Liebe gefangen Band Verbindung

‘‘একজন রাজাকার চিরকাল রাজাকার, কিন্তু একজন মুক্তিযোদ্ধা চিরকাল মুক্তিযোদ্ধা নহে''

তিনি তাঁর স্ট্যাটাসে জাফরুল্লাহকে ‘বাংলাদেশ-বিরোধী রাজাকার গোষ্ঠীর পক্ষের বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর' বলে আখ্যায়িত করেন৷ ইতিহাস বিকৃতকারীদের শাস্তি কেনো শুধুমাত্র ৫,০০০ টাকা বা সামান্য কটা দিনের কারাবাস সেটা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি৷

সৈকত ভৌমিকের এই স্ট্যাটাসের নীচে মন্তব্যের ঘরে জানে আলম জাফরুল্লাহকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে উল্লেখ করেন৷ তবে এর প্রতিক্রিয়ায় সৈকত ভৌমিক বলেন, ‘‘একজন রাজাকার চিরকাল রাজাকার, কিন্তু একজন মুক্তিযোদ্ধা চিরকাল মুক্তিযোদ্ধা নহে৷''

এদিকে, জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করায় সরকারের সমালোচনা করেছেন কেউ কেউ৷ ফেসবুকে শেয়ার হওয়া এ সংক্রান্ত একটি খবরের নীচে মুস্তাফিজ পারভেজ লিখেছেন, ‘‘জালিম যখন রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকে তখন সম্মানী লোকদের অসম্মান করে, এটা তারই এক নমুনা৷'' সাজিন মাহমুদের প্রশ্ন, এটাই কি মুক্তিযোদ্ধার প্রাপ্য সম্মান? কাজি মারুফ লিখেছেন, ‘‘পুরা বাংলাদেশটাই তো এখন কারাগার৷ তাই জাফরুল্লাহ স্যার ঠিক পথেই আছেন৷ আসুন আমরা সবাই তাঁর মতো সত্য কথাটা বলি৷''

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন