1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

এইডস ছড়িয়ে নাদিয়া বললেন, স্যরি

আটাশ বছর বয়সী জার্মান পপ স্টার নাদিয়া বেনাইসিয়ার এখন বেশ দুর্দিন যাচ্ছে৷ এইডস সংক্রমিত করার জন্য কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে দুঃখ প্রকাশ করলেন তিনি৷ তবে এতেও কারাবাস এড়ানো যাবে কি না, তা নিয়ে সন্দেহ আছে৷

default

নাদিয়া বেনাইসিয়া

নাদিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগটি মারাত্মক৷ তা হলো, নাদিয়া জানতেন তিনি এইডস আক্রান্ত, তারপরও কোনো প্রতিরোধক না নিয়েই তিন ব্যক্তির শয্যাসঙ্গী হয়েছিলেন তিনি৷ কিন্তু তিনজনের কাউকেই একবারের জন্য নাদিয়া বলেননি যে তিনি এইডস আক্রান্ত৷ আর তার ফল হিসেবে পরে একজনের রক্তে পড়ে এইচআইভি ভাইরাস৷

অনেকে বলছেন, এটা এক ধরণের প্রতারণা৷ আর এই প্রতারণার অভিযোগেই নাদিয়াকে গত বছরের এপ্রিলে গ্রেফতার করা হয়৷ এ বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ৷ এবার বিচারের পালা৷ সেই বিচারই শুরু হলো সোমবার, ফ্রাঙ্কফুর্টের কাছে ডার্মস্টাডটের আদালতে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে নাদিয়া নিজের অপকর্মের কথা অকপটে স্বীকার করেন৷ বললেন, ‘‘আমি খুবই দুঃখিত''৷

আগামী ২৬ আগস্ট এই মামলার রায় হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে৷ যদি আদালত দোষী সাব্যস্ত করে, তবে ছয় মাস থেকে ১০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে নাদিয়ার৷ মামলার অভিযোগপত্র অনুসারে, নো অ্যাঞ্জেলস নামের পপ গোষ্ঠীর এই গায়িকা ২০০০ থেকে ২০০৪ সালের মধ্যে ওই তিন ব্যক্তির সঙ্গে আলাদাভাবে অন্তত পাঁচবার যৌনকর্মে লিপ্ত হয়েছিলেন৷ এদের কাউকেই তিনি বলেননি যে ১৯৯৯ সাল থেকে তাঁর শরীরে বাসা বেঁধে আছে মারণব্যাধি এইডস৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

ইন্টারনেট লিংক