1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘ঋণের নেশা’ থেকে মুক্ত হতে চায় গ্রিস

ক্ষমতায় এসেই অবাক করা ঘোষণা দিয়ে চলেছে গ্রিসের সিপ্রাস সরকার৷ প্রথমে ইউক্রেন প্রশ্নে রাশিয়ার ওপর আরো কঠোর অবরোধ আরোপে সমর্থন দেয়নি তারা৷ এবার দেশের অর্থনীতিকে চাঙা করতে ঋণ-নির্ভরতা থেকে মুক্তির কথা বলেন অর্থমন্ত্রী৷

সম্প্রতি ডানপন্থি ইন্ডিপেন্ডেন্ট গ্রিকস দলের সঙ্গে মিলে জোট সরকার গঠন করেছে গ্রিসের বামপন্থি দল সিরজা৷ সিরজার নেতা আলেক্সিস সিপ্রাস হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী৷ ক্ষমতায় আরোহণের এক সপ্তাহের মধ্যেই সিপ্রাস সরকার বুঝিয়ে দিয়েছে, পূর্ববর্তী সরকারের অনুসৃত সব পথ তাদের পছন্দ নয়৷ বিশেষ করে দেশের ভঙ্গুর অর্থনীতিকে ঠিক করতে তাঁরা আর ঋণ-মুখাপেক্ষী থাকতে চান না৷

গ্রিসের অর্থমন্ত্রী ইয়ানিস ভারোফাকিস ফ্রান্স সফরে গিয়ে বলেছেন, দেশের অর্থনীতিকে চাঙা করতে সরকার শিগগিরই নতুন পরিকল্পনা প্রণয়ন করবে৷

Alexis Tsipras in Zypern Nicos Anastasiades Ankunft

সাইপ্রাসের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে গ্রিক প্রধানমন্ত্রী সিপ্রাস (ডানে)

আগামী ফেব্রুয়ারির মধ্যে পরিকল্পনা চূড়ান্ত হবে বলে জানালেও সে পরিকল্পনা সম্পর্কে বেশি কিছু বলেননি৷ তবে একটা কথা খুব স্পষ্ট করে বলেছেন ইয়ানিস ভারোফাকিস, তাঁর মতে, ‘‘গত পাঁচ বছর ধরে গ্রিস কেবল পরবর্তী ঋণের কিস্তি কখন আসবে সেদিকেই তাকিয়ে থেকেছে৷ আমরা এতে নেশাগ্রস্থদের সঙ্গে মিল দেখেছি, নেশাগ্রস্থরা যেমন এক ‘ডোজ' শেষ হতে না হতেই পরের ডোজের কথা ভাবতে শুরু করে, সেরকম ছিল পরিস্থিতি৷'' সিপ্রাস সরকার সেই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসবে – এমন অঙ্গীকারের কথা জানাতে গিয়ে গ্রিসের অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘‘নতুন সরকার এই নেশাগ্রস্থতার অবসান ঘটাবে৷'' কীভাবে? তিনি জানান, ফ্রেব্রুয়ারির মধ্যেই এর একটি রূপরেখা দাঁড় করানো হবে৷

গ্রিসের জন্য আগামী কয়েকটা দিন খুব গুরুত্বপূর্ণ৷ এ সপ্তাহেই নতুন প্রধানমন্ত্রী সিপ্রাস এবং অর্থমন্ত্রী ভারোফাকিস ইইউ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন৷

এসিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন