1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

উৎসব শুরু হলো ইউরোপের সাংস্কৃতিক রাজধানী টুর্কুতে

মাইনাস ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার মধ্যেই ইউরোপের সাংস্কৃতিক রাজধানী হওয়ার উৎসব শুরু করলো ফিনল্যান্ডের শহর টুর্কু৷ গোটা বছর ধরেই চলবে তাদের সাংস্কৃতিক কার্যক্রম৷

default

আনন্দ করছে টুর্কুবাসী

চলতি বছর ইউরোপের সাংস্কৃতিক রাজধানী হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে ফিনল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী শহর টুর্কু এবং এস্তোনিয়ার রাজধানী তালিন৷ নতুন বছরের শুরুতেই সাংস্কৃতিক রাজধানী হওয়ার উৎসব শুরু করে দিয়েছে তালিন৷ তবে ফিনল্যান্ডের টুর্কু একটু দেরি করেই শুরু করলো৷ প্রচন্ড ঠান্ডার মধ্যে আউরা নদীর ওপর দাঁড়িয়েই হাজার হাজার মানুষ উপভোগ করলো মনোমুগ্ধকর আতশবাজি এবং অ্যাক্রোবেটিকস৷ ভাবছেন নদীর ওপর দাঁড়িয়ে কিভাবে? আসলে ঠান্ডায় গোটা আউরা নদীই এখন জমে বরফ হয়ে গেছে৷ তো গোটা বছরব্যাপী এই সাংস্কৃতিক পদযাত্রার উদ্বোধনীতে উপস্থিত ছিলেন ফিনল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট টারিয়া হালোনেন সহ নানা দেশের আমন্ত্রিতরা৷

শহর হিসেবে ইউরোপের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী শহর ফিনল্যান্ডের টুর্কু৷ ১২২৯ সালে এই শহরের গোড়াপত্তন হয়েছিল৷ তবে ১৮২৭ সালে এক ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রায় গোটা শহরই ধ্বংস হয়ে যায়৷ কিন্তু তারপর আবারও ফিনল্যান্ডের জনগণ গড়ে তোলেন তাদের পুরনো এই শহরটিকে৷ এস্তোনিয়ার সঙ্গে ফিনল্যান্ডের একটি ভাষাগত সম্পর্কও রয়েছে৷ ফিনো উগ্রিক ভাষার কারণে এই দুটি দেশের সম্পর্ক অনেক পুরনো, যদিও দেশ দুটি প্রায় দুইশ কিলোমিটার দুরত্বে অবস্থিত৷

ইউরোপের সাংস্কৃতিক রাজধানী দুটিতে এবার বসছে বিশেষ একটি আয়োজন৷ সেটি হলো নিউ বাল্টিক ড্রামা প্রকল্প৷ সহজ কথায় নাটক লেখার প্রতিযোগিতা৷ সেরা নাটকের পুরস্কার তো থাকছেই, পাশাপাশি সেরা নাটকটি টুর্কু, তালিন এবং সেইন্ট পিটাসবার্গের থিয়েটারগুলোতেও প্রদর্শিত হবে৷ এছাড়া স্বাস্থ্যের ওপর সংস্কৃতির ইতিবাচক প্রভাব কেমন সেটি প্রমাণের জন্য এবার টুর্কু ফাউন্ডেশন প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার টিকিট ছেড়েছে কেবল চিকিৎসকদের জন্য৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: জাহিদুল হক

সংশ্লিষ্ট বিষয়