1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘‘উপজেলা নির্বাচনের পর আন্দোলন, সরকারকে সময় দেয়া হচ্ছে’’

বিএনপি আন্দোলনের অংশ হিসেবেই উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে৷ এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দলের তৃণমূল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের চাঙ্গা করে নতুন আন্দোলন শুরু করতে চায় তারা৷ ডয়চে ভেলেকে একথা জানিয়েছেন বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব৷

Khaleda Zia 2012

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া

উনিশে ফেব্রুয়ারি থেকে বাংলাদেশে উপজেলা পরিষদের নির্বাচন শুরু হচ্ছে৷ এরপর কয়েক ধাপে এপ্রিল পর্যন্ত চলবে এই নির্বাচন৷ পাঁচই জানুয়ারির নির্বাচন বর্জন করলেও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে বিএনপি৷ এমনকি বর্তমানে সেদলের প্রধান মিত্র জামায়াতও এই নির্বাচনে আছে৷ বিএনপি'র যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘স্থানীয় সরকারের এই নির্বাচন দলীয়ভাবে না হলেও তাদের দল এই নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ আর এজন্য তারা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তাদের মনোনীত প্রার্থী দিয়েছেন৷ তারা দলীয়ভাবে একক প্রার্থী দিয়েছেন এবং তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের দল মনোনীত প্রাথীর জন্য কাজ করতে বলেছেন৷''

মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘‘তারা উপজেলা নির্বাচনকে আন্দোলনের অংশ হিসেবেই নিয়েছেন৷'' তিনি মনে করেন, এই নির্বাচন যদি সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ হয় তাহলে তাদের প্রার্থীরা বিজয়ী হবেন৷ পাঁচই জানুয়ারির নির্বাচনে ভোট দিতে না পেরে সাধারণ মানুষের মধ্যে যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে তারা উপজেলা নির্বাচনের মাধ্যমে সরকারকে তার জবাব দেবেন বলে মনে করেন তিনি৷ আর নির্বাচনে কারচুপি হলে সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ আরো বেড়ে যাবে৷

তিনি বলেন, বিএনপি'র অনেক নেতা-কর্মীই আত্মগোপনে ছিলেন৷ আবার কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত অনেক নেতাকে কারাগারে যেতে হয়েছে৷ এই নির্বাচনকে সামনে রেখে আত্মগোপনে থাকা নেতা-কর্মীরা বেরিয়ে এসছেন৷ তারা আবার সক্রিয় হয়েছেন৷ নির্বাচনি প্রচারণার মাধ্যমে তারা আবার সাধারণ মানুষের কাছে যাচ্ছেন৷ যা একই সঙ্গে দলকেও শক্তিশালী করবে৷

এদিকে, বিএনপি'র চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আহমেদ আজম খান ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘উপজেলা নির্বাচনের প্রচার প্রচারণায় জাতীয় ইস্যুকেই তারা প্রাধান্য দিচ্ছেন৷'' তাঁর মতে, সাধারণ মানুষও জাতীয় ইস্যুকেই গুরুত্ব দিচ্ছে৷ আর এই নির্বাচনের মাধ্যমে ভোটাররা তাদের পক্ষেই রায় দেবেন বলে মনে করেন তিনি৷

মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘‘তারা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াননি, পাঁচই জানুয়ারির নির্বাচন বর্জন করেছেন৷ বিএনপি নির্বাচনের দল, নির্বাচন চায়৷ আর সে নির্বাচন হতে হবে সবদলের অংশগ্রহণে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে৷ উপজেলা নির্বাচনের পর তারা তাদের দাবি আদায়ে চূড়ান্ত আন্দোলনে নামবেন বলে জানান তিনি৷

তিনি বলেন, ‘‘পাঁচই জানুয়ারি নির্বাচনের আগের এবং পরের পরিস্থিতি এক নয়৷ পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে তারা সরকারকে কিছুটা সময় দিচ্ছেন৷''

মাহবুব উদ্দিন খোকন জানান, জামায়াতের সঙ্গে তাদের জোট থাকবে৷ আর উপজেলা নির্বাচনেও তাদের মধ্যে সমন্বয় আছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়