1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

উদ্বেগ, উত্‍কণ্ঠায় বাংলাদেশে বিরোধী দলবিহীন নির্বাচন

উত্‍সবের আমেজ নেই৷ নেই বিরোধী দল৷ ৫২ ভাগ ভোটারের ভোট নেই৷ ১৫৩ আসনে নির্বাচন নেই৷ আছে উদ্বেগ আর উত্‍কণ্ঠা৷ বিদেশি পর্যবেক্ষক আছেন মাত্র চারজন৷ তবুও বাংলাদেশে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন হচ্ছে৷

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ এই নির্বাচনকে বলছে সংবিধান রক্ষার নির্বাচন৷ তবে বিরোধী দল রবিবারের নির্বাচনকে বলছে একদলীয় শাসন কায়েমের নির্বাচন৷ বাংলাদেশের এই নির্বাচনে ভারত ও ভুটানের চারজন পর্যবেক্ষক ছাড়া আর কোনো বিদেশি পর্যবেক্ষক নেই৷ ভারত ছাড়া আর কোনো দেশ সমর্থন দেয়নি এই নির্বাচনে৷

বাংলাদেশে সাধারণত নির্বাচন মানেই উত্‍সব৷ ভোট কেন্দ্রে দীর্ঘ লাইন৷ দুই বড় দল আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির মর্যাদার লড়াই৷ আর থাকে টান টান উত্তেজনা৷ সেই উত্তেজনা সহিংস নয়, বরং কে হারে কে জেতে তা দেখার অপেক্ষায়৷

কিন্তু এবার তার ব্যতিক্রম৷ নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত ৩৭টি রাজনৈতিক দলের মধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগসহ ১২টি দল এই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে৷ আর প্রধান বিরোধী দল বিএনপিসহ ২৫টি দল এই নির্বাচন বর্জনের পর প্রতিহতে একই সঙ্গে হরতাল অবরোধ পালন করছে৷ বিরোধীরা চায় নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন৷ আর সরকারি দল সে দাবিতে কান না দিয়ে দলীয় সরকারের অধীনেই নির্বাচন করছে৷

এই রাজনৈতিক সংকট সমাধানে অনেক আলোচনা হয়েছে৷ বিদেশি কূটনীতিকরা চেষ্টা করেছেন, চেষ্টা করেছে জাতিসংঘ৷ শেষ পর্যন্ত জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় দুই দলের মহাসচিব পর্যায়ে আলোচনাও হয়েছে৷ কিন্তু সমাধান আসেনি৷ কমেনি সংঘাত, সহিংসতা৷ গত ২৫ নভেম্বর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে শনিবার পর্যন্ত রাজনৈতিক সহিংসতায় ১২২ জন নিহত হয়েছেন৷ আর সহিংসতা থেমে নেই৷ নির্বাচন কেন্দ্রে আগুন দেয়া হচ্ছে৷ পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে ব্যালট পেপার৷ কেন্দ্রগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হওয়ায় পুড়ছে নতুন বছরের বই৷

‘প্রহসনের নির্বাচন'

বিএনপির চেয়ানপার্সনের উপদেষ্টা ড. ওসমান ফারুক শনিবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে রবিবারের নির্বাচনকে ‘প্রহসনের নির্বাচন' বলে তা বর্জন এবং প্রতিহতের আহ্বান জানিয়েছেন দেশবাসীর প্রতি৷ তিনি বলেছেন, ‘‘এই নির্বাচন হল বর-বধু সাজিয়ে পুতুলের বিয়ের মতো৷''

তিনি অভিযোগ করেন, ‘‘ভোটারবিহীন এই নির্বাচনের ষড়যন্ত্র সফল করতে বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ‘গৃহবন্দি' করা হয়েছে৷ শীর্ষ থেকে তৃণমূল পর্যন্ত কয়েক হাজার নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ যৌথ বাহিনী অভিযানের নামে আন্দোলন দমাতে নেতা-কর্মীদের ওপর নির্মম নির্যাতন চালাচ্ছে৷''

ড. ফারুক দেশবাসীকে নির্বাচন বর্জন করার আহ্বান জানিয়ে চলমান হরতাল-অবরোধ সফল করায় দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানান৷

‘যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে নির্বাচন বর্জন'

এদিকে, আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘‘বিরোধী দল যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে এই নির্বাচন বর্জন করেছে৷ তাদের নির্বাচনে আনতে অনেক চেষ্টা এবং ছাড় দেয়া হয়েছে৷ তারা নির্বাচনে আসলে নির্বাচন ১০ দিন পিছিয়ে দেয়ারও প্রস্তাব করা হয়েছিল৷''

তিনি বলেন, ‘‘এই নির্বাচন গণতন্ত্র এবং সংবিধান রক্ষার নির্বাচন৷'' খালেদা জিয়াকে গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা বাধাগ্রস্ত না করারও আহ্বান জানিয়েছেন তোফায়েল৷ ‘খালেদা জিয়া গৃহবন্দি' এই অভিযোগ অস্বীকার করে তোফায়েল বলেন, ‘‘তিনি গৃহবন্দি হলে বিদেশি দূত ড্যান মোজেনা, রবার্ট গিবসন তাঁর সঙ্গে দেখা করেন কিভাবে৷ তিনি বিবৃতি দেন কিভাবে৷''

রবিবারের নির্বাচনে ৩০০ আসনের মধ্যে ১৫৩ আসনের প্রার্থীরা আগেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন৷ তাই নির্বাচন হচ্ছে বাকি ১৪৭ আসনে৷ এতে মোট ভোটার ৪,৩৯,৩৭,৯৩৭ জন৷ প্রার্থী ৩৯০ জন৷ মোট ভোটারের ৫২ ভাগের ভোট দেয়ার সুযোগ নেই৷ নির্বাচন কমিশন নির্বাচন বিরোধীদের সহিংসতার আশঙ্কায় ১৯ জেলার ৮০টি ভোট কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ মনে করছে৷

বিদেশি পর্যবেক্ষক ৪ জন

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষক ছিলেন ৫৮৫ জন৷ এবার ভারত ও ভুটান থেকে দু’জন করে মোট চারজন পর্যবেক্ষক এসেছেন৷

নির্বাচনের আগেই এবার সারা দেশে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে৷ আরো আছে পুলিশ, ব়্যাব এবং বিজিবি৷ প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দিন আহমেদ আশা করেন, ভোটাররা শান্তিপূর্ণভাবে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারবেন৷

বাংলাদেশের নির্বাচন বিশ্লেষকরা মনে করেন, রবিবারের নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতিই হবে নির্বাচন কমিশনের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ৷ আর সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহিউদ্দীন খান আলমগীর বলেছেন, সহিংসতায় শঙ্কিত না হয়ে জনগণ ভোট কেন্দ্রে গিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দেবে৷ তারা ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে চায়৷

এদিকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক বিবৃতিতে বলেছেন, রবিবারের নির্বাচন হাস্য-কৌতুকে পরিণত হয়েছে৷ তিনি দাবি করেন, সরকার রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া এবং জনবিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন